একটি কালীমন্দিরের ভিত্তি স্থাপন

প্রকাশিত: ৪:৩৩ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১, ২০২০

একটি কালীমন্দিরের ভিত্তি স্থাপন

বিনেন্দু ভৌমিক

মঞ্চ নাটক করে পেট পালা, মানে জীবিকা নির্বাহ করা এখনো অনেকটা দুঃস্বপ্নের মতো। কিন্তু আজ থেকে শ’দেড়েক বছর আগে ১৮৭২ সালে ‘ন্যাশনাল থিয়েটার’ নামে একটা নাট্য কোম্পানি করে সেই কাজটিই করে দেখিয়েছিলেন বাংলা নাটকের কিংবদন্তী পুরুষ ‘গিরীশ চন্দ্র ঘোষ’। দুহাতে নাটক লিখেছেন, দাপিয়ে, মঞ্চ কাঁপিয়ে, চুটিয়ে অভিনয় করেছেন। কিন্তু তাঁর ব্যক্তিগত জীবনটা ছিল বড় উচ্ছৃঙ্খল। ছিলেন কুখ্যাত মদ্যপ, যাকে বলে পাঁড় মাতাল। একদিন মদ খেয়ে টং হয়ে পড়ে আছেন, তাঁকে দেখেই হুটহাট দরজা জানালা বন্ধ করে দিচ্ছেন পথের ধারের বাড়ির মানুষজন। কে সামলাবে এই হ্যাঁপা! কিন্তু গিরীশ জানতেন কলকাতার কোত্থাও এই মাতালটির জায়গা না-হলেও একটা জায়গা আছে যেখানকার দুয়ার তাঁর জন্য সবসময় খোলা থাকবে। সেটা দক্ষিণেশ্বর কালীবাড়ি। আর সেখানে একজন বসে আছেন তাঁকে বাহুডোরে বাঁধবার জন্য, তিনি ‘রামকৃষ্ণ’। সত্যিই তাই। গিরীশ যখন পৌঁছে টালমাটাল হয়ে হল্লা করছিলেন, তখন ‘রামকৃষ্ণ’ দক্ষিণেশ্বর মন্দিরের সিঁড়ি বেঁয়ে নামতে নামতে বলছিলেন, ‘কার গলার আওয়াজ পেলুম রে, গিরীশ না!’ লজ্জায় কুঁকড়ে গেছিলেন সেদিন বাংলার দাপুটে নাট্যকার, আধুনিক বাংলা নাটকের পথিকৃৎ— ‘গিরীশ চন্দ্র ঘোষ’। শেষে যতটুকু অভ্যাস বদলেছিলেন তা তো ঐ রামকৃষ্ণ’র জন্যই।

‘আই ফোন’ বা ‘টাচ ফোন’ প্রযুক্তির জনক স্টিভ জবস যৌবনে মাইলের পর মাইল হেঁটে যেতেন আমেরিকার একটি ইস্কন মন্দিরে বিনে পয়সায় দুটো খেতে পাবেন বলে।

উপাসনালয় কখনো কখনো প্রতিভাধরদের বাঁচায় আপন সন্তানের মতো।

আমতৈল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, আমার বাল্যবন্ধু রানা খান শাহীন একদিন আমার কাছে তার গাঁয়ের কয়েকজন সুধীজনকে নিয়ে এলেন কদুপুর গ্রামে একটা মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে আমার উপস্থিতি যাচ্ঞা করে। আমি তো অবাক। গ্রামে মন্দির স্থাপন হবে, আর তার নেমন্তন্ন দিতে এসেছেন একজন মুসলমান! বুঝলাম এখনো আশা আছে।

কাল গিয়েছিলাম সেখানে। সঙ্গে ছিলেন আরেক দরাজদিল মানুষ, অতিশয় সজ্জন, আমার পরম সুহৃদ, কানাডা-প্রবাসী বন্ধুবর—সঞ্জয় দাস ।.

মন্দির স্থাপনার্থে চাঁদা বা অর্ঘ্য অনেকবারই দিয়েছি। কিন্তু এই প্রথম ভিত্তিপ্রস্তরস্থাপন অনুষ্ঠানে থাকলাম। সবাইকে বললাম, আমতৈলের কদুপুরে যে কালীমন্দির স্থাপিত হবে তা যেন রাজনৈতিক কোন্দল বা গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে পড়ে কলঙ্কিত না-হয়। এখানে যেন কেউ অস্পৃশ্য থাকে না। এই কালীমন্দির যেন গিরীশ ঘোষ বা স্টিভ জবসদের মতো মানুষদের বেঁচে থাকার নিধান হয়।

মা বা বিধাতার কাছে তার কোনো সন্তান বা সৃষ্টিই তো পর নয়!

লেখক ঃ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা

ছড়িয়ে দিন

Calendar

December 2021
S M T W T F S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031