কমলকুমার মজুমদারের ১০৫ তম জন্মদিন আজ

প্রকাশিত: ১১:০৪ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৭, ২০১৯

কমলকুমার মজুমদারের ১০৫ তম জন্মদিন  আজ

ভিন্নধারার লেখক কমলকুমার মজুমদার (১৯১৪-১৯৭৯) -এর ১০৫ তম জন্মদিন আজ ।
এ উপলক্ষে পোয়োট্রি এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ রবিবার বিকেল ৫ টায় এলিফ্যান্ট রোডে কবিতা ক্যাফেতে অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করেছে। সেখানে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন কমলকুমার সম্পর্কে পিএইচডি গবেষক ডক্টর শোয়াইব জিবরান ।সভাপতিত্ব করবেন পোয়েট্রি এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ এর সভাপতি কবি সৌমিত্র দেব ।১৭ নভেম্বর রবিবার সন্ধ্যা ৬ টা থেকে অনুষ্ঠানে কবি ও কবিতা মোদী সকলেই আমন্ত্রিত ।
কমলকুমার মজুমদার ১৭ নভেম্বর, ১৯১৪ সালে উত্তর চব্বিশ পরগনার জেলার, টাকি শহরে জন্ম গ্রহণ করেন । বিশ শতকের একজন বাঙালি ঔপন্যাসিক হিসেবে তিনি বাংলা কথাসাহিত্যের অন্যতম স্মরণীয় ব্যক্তিত্ব হিসাবে পরিগণিত। তাকে বলা হয় ‘লেখকদের লেখক’। তার উপন্যাস অন্তর্জলী যাত্রা এর অনন্যপূর্ব আখ্যানভাগ ও ভাষাশৈলীর জন্য প্রসিদ্ধ। বাংলা কথাসাহিত্য বিশেষ করে উপন্যাস ইয়োরোপীয় উপন্যাসের আদলে গড়ে উঠেছে কমলকুমার মজুমদার সেই অনুসরণ পরিহার করেছিলেন।

তিনি ছিলেন বাংলা সাহিত্যের দুরূহতম লেখকদের একজন। বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য বিখ্যাত ছিলেন; যেমন সুহাসিনীর পমেটম উপন্যাসে ২৫০ পৃষ্ঠায় যতি-চিহ্ন বিহীন মাত্র একটি বাক্য লক্ষ্য করা যায়। তিনি বাংলা সাহিত্যের দুর্বোধ্যতম লেখক হিসেবেও পরিচিত ছিলেন। দীক্ষিত পাঠকের কাছে কমলকুমার অবশ্যপাঠ্য লেখক হিসেবেই সমাদৃত হলেও অদ্যাবধি তিনি সাধারণ্যে পাঠকপ্রিয়তা লাভ করেন নি। তার বিখ্যাত উপন্যাসসমূহ হল: অন্তর্জলী যাত্রা, গোলাপ সুন্দরী, অনিলা স্মরণে, শ্যাম-নৌকা, সুহাসিনীর পমেটম, পিঞ্জরে বসিয়া শুক এবং খেলার প্রতিভা। ছোটগল্প গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে: নিম অন্নপূর্ণা, গল্প সংগ্রহ।

ছড়িয়ে দিন