কিংবা কিছুই হবে না, না কবিতা না বিস্ফোরণ

প্রকাশিত: ১২:২৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৭

কিংবা কিছুই হবে না, না কবিতা না বিস্ফোরণ

অম্বরীষ দত্ত
তৈরি হও হে সময়, তৈরি হও আলো, তৈরি হও অন্ধকার
তৈরি হও হে সূর্য, তৈরি হও সূর্যালোক, তৈরি হও রোদ ও উষ্ণতা
তৈরি হও সাগর, নদী এবং সমূহ জলাধার
তৈরি হও বাস্প, তৈরি হও মেঘ ও বৃষ্টি
তৈরি হও হে মৌসুমি পবন, শীত ও কুয়াশা…
তৈরি হও ………
তৈরি হও হে পক্ষীকুল, হে পশু, হে সরীসৃপ, হে কীট ও পতঙ্গ
তৈরি হও হে নদী, হে পাহাড়, হে বনভুমি, হে বালুচর হে প্রকৃতি …
তৈরি হও পিতা ও পিতামহ, তৈরি হও পিতৃব্য, তৈরি হও পুত্র ও পৌত্র সকলেই
তৈরি হও মাতা ও মাতামহ, তৈরি হও মাতুলগণ, তদীয় স্ত্রী কন্যা পুত্রগণ
তৈরি হও ভ্রাতা ও ভগিনিগণ, তৈরি হও চেনা জন, আত্মীয় স্বজন, পর ও আপন
তৈরি হও মানুষ, তৈরি হও তুমি…
তৈরি হও নারীপুরুষ নির্বিশেষ তোমরা হে তাবৎ মনুষ্যকূল, মানব প্রজাতি…
অনিবার্য ধ্বংসের জন্যে, বিলুপ্তির জন্যে তৈরি হও……।

একটি কবিতা লেখা হবে
একটি পদ্য লেখা হবে
একটি সঙ্গীত রচিত হবে
একটি স্তোত্র রচিত হবে
একটি মহাপংক্তি রচিত হবে
একটি মহাশ্লোক রচিত হবে

মহাকাশে বিস্ফোরণ হবে আজ
কিংবা যে কোনদিন যে কোন সময় – শূন্যে,
মহাজাগতিক মহাবিস্ফোরণ সংগঠিত হবে
আজ অথবা যে কোন দিন যে কোন সময়- মহাশূন্যে-
আর ধ্বনিত হবে চলমান মহাকালের সর্বশেষ আওয়াজ
সকলেই তৈরি থেকো, সকলেই তৈরি থেকো সৃষ্টি সমাজ…

মহাব্রহ্মাণ্ডের সমস্ত নিয়ম আর বিধি বিধান আজ ছিন্ন হবে
আর তোমরাতো সকলেই জানো
ক্রমাগত ঘূর্ণনে ও পরস্পর ঘর্ষণে উশৃঙ্খল নক্ষত্ররাজি,
গ্রহ,উপগ্রহ, ধুমকেতু,উল্কা, ধুলিকনা,অনু পরমানু
সবকিছু লয়প্রাপ্ত হবে…
এ বিশ্ব ধ্বংসপ্রাপ্ত হবে, মহাবিশ্ব ধ্বংসপ্রাপ্ত হবে
ব্রহ্মাণ্ড বিলীন হবে মহাঅন্ধকারে, মহাশূন্যে, কালোগহ্বরে…
তারপর নিরবতা, অমোঘ নিরবতা, অন্তহীন নিরবতা
এবং কালান্তর, দীর্ঘ কালান্তর…

কালোগহ্বর থেকে উৎসারিত নতুন আলোর বিন্দু
নতুন শক্তি ছড়িয়ে দিবে নবসৃষ্ট শূন্যতায়, নতুন আকাশে, মহাকাশে …
সঞ্চারিত সমুদয় আলো ও শক্তি মিলিত হবে আরও কোন নতুন বিন্দুতে
এবং ক্রমশই তা কেন্দ্রীভূত হবে, সৃষ্টি হবে নতুন নক্ষত্র,গ্রহ,উপগ্রহ
এবং এক বা একাধিক নক্ষত্র মণ্ডলী
এবং অবধারিত ভাবেই সৃষ্টি হবে আমাদের নতুন ঠিকানা
নতুন সূর্য, নতুন প্রাণের উৎস,
নতুন সৃষ্টির নতুন সম্ভাবনার নতুন আবাসভুমি…
নতুন পৃথিবী… আর নতুন মানুষ
নতুন প্রাণী ও প্রকৃতি
শোনা যাবে নতুন মহাধ্বনি
সূচিত হবে নতুন মহাকাল
রচিত হবে নতুন মহামন্ত্র, মহাশ্লোক, মহাস্তোত্র
নতুন পৃথিবীর নতুন মানুষের সম্মিলিত মহাউচ্চারণ
নতুন মহাবিশ্বের নতুন মহাকাব্য
মানুষের মহাকাব্য, মহাপুরাণ….
কিংবা কিছুই হবেনা, না কবিতা না বিস্ফোরণ ।