কিশোররা দেখিয়ে দিয়েছে চাইলেই আইনের প্রয়োগ করা যায়” ঃ সমাজকল্যাণমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৮:৩৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৯, ২০১৮

কিশোররা দেখিয়ে দিয়েছে চাইলেই আইনের প্রয়োগ করা যায়” ঃ সমাজকল্যাণমন্ত্রী

 

সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেন- “সড়ক আন্দোলনে কিশোররা দেখিয়ে দিয়েছে ,চাইলে সঠিকভাবে আইনের মাধ্যমেই সব কাজ করা যায়।তাদের আন্দোলন থেকে অনেক কিছুই আমাদের শেখার আছে।সমাজের সকল ক্ষেত্রে সেবার মানসিকতা পোষণ করতে হবে। সমাজসেবা কোন রুটিন কাজ নয়,এটি একটি সাংবিধানিক দায়িত্ব।যদি স্কুলের কিশোররা বিনা বেতনে সড়ক ব্যাবস্থাপনায় রাস্তায় নেমে দায়িত্ব পালন করতে পারে সমাজসেবায় আপনাদেরকেও অনেক দায়িত্ব পালন করতে হবে।”আজ দুপুরে সমাজসেবা অধিদপ্তরে মাঠ পর্যায়ে ৪৮ টি মটর সাইকেল ও ২ টি জীপ গাড়ী বরাদ্দ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে তিনি এ কথা বলেন ।
সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ে এবছরের বাজেট বৃদ্ধি প্রসঙ্গে মেনন বলেন-“বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর সমাজকল্যাণে বাজেট ৪ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে।গত এক বছরেই বৃদ্ধি পেয়েছে ১০%। ভাতাভোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে ৬৪ লাখ মানুষের। এই ভাতাভোগীদের নিকট সঠিক সময়ে ভাতা পৌছে দিতে সম্প্রতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জিটিপি (গভার্ণমেণ্ট টু পারসন) অনলাইন পদ্ধতি চালু করেছেন।এর পাশাপাশি মাঠ পর্যায়ে কাজের গতি আনতে আজকে ৪৮ জেলায় মটর সাইকেল ও ২ টি জেলায় জীপ গাড়ী দেয়া হলো।সুতরাং সমাজসেবামুলক কাজে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীকেই সড়ক আন্দোলনের কিশোরদের মানসিকতায় উদবুদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। এই মানসিকতা বাস্তবায়িত হলে সমাজসেবায় সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় হবে ১ নম্বর।”

আজ দুপুরে রাজধানীর ৪ নং মিন্টো রোডস্ত সমাজকল্যানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবনে সমাজসেবায় মাঠ পর্যায়ে ৪৮ জেলায় ৪৮ টি মটরসাইকেল এবং রাজশাহী ও পটুয়াখালী জেলায় দুইটি জীপ গাড়ী বন্টন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে গাড়ীর চাবি বন্টন করেন সমাজকল্যাণমন্ত্রী ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি।অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবা অধিদফতরের মহাপরিচালক গাজী মোহাম্মদ নুরুল কবীর, বেগম জুলিয়েট পরিচালক (প্রশাসন ও অর্থ),আবু মোহাম্মদ ইউছুফ পরিচালক (কার্যক্রম) ও অন্যান্য পরিচালক, উপপরিচালক ও যানবাহনগ্রহীতা কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ।

লাইভ রেডিও

Calendar

April 2024
S M T W T F S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930