কৃষ্ণা কাবেরী হত্যা মামলার বিচারকাজ এখন শেষ পর্যায়ে

প্রকাশিত: ২:৪০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১০, ২০১৮

কৃষ্ণা কাবেরী হত্যা মামলার বিচারকাজ এখন শেষ পর্যায়ে

কামরুজ্জামান  হিমু

কলেজশিক্ষক কৃষ্ণা কাবেরী হত্যা মামলার বিচারকাজ এখন শেষ পর্যায়ে ।
ঢাকার আদাবরে প্রায় চার বছর আগে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছিল ।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আশা করছেন, মামলার একমাত্র আসামি পলাতক , তাই তার আত্মপক্ষ সমর্থনের শুনানি হবে না । সেক্ষেত্রে সংক্ষিপ্ত যুক্ততর্কের পর জানুয়ারি মাসেই রায় ঘোষণা করা হতে পারে।

গত রোববার ঢাকার এক নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে মামলার প্রথম তদন্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদপুর থানার সেই সময়ের এসআই বতর্মানে শাহবাগ থানার পরিদশর্ক মাহবুবুর রহমান সাক্ষ্য দেন।

এরপর বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিন আগামী বৃহস্পতিবার অভিযোগপত্র দাখিলকারী গোয়েন্দা ও অপরাধ তথ্য বিভাগের পরিদর্শক দেলোয়ার হোসেনের সাক্ষ্যগ্রহণের দিন রেখেছেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আবু আবদুল্লাহ ভূঞা বলেন, মামলাটিতে এ পর্যন্ত ২২ জনের সাক্ষ্য নেওয়া হয়েছে। যেহেতু অভিযোগ গঠনের পর হাই কোর্ট থেকে জামিন নিয়ে আসামি পালিয়ে গেছেন সেহেতু তার আত্মপক্ষ সমর্থনের শুনানি হবে না।

পুলিশ কর্মকর্তা দেলোয়ারের সাক্ষ্যের পরই যুক্তিতকের্র জন্য একটি সংক্ষিপ্ত সময় নির্ধারণ করে তারিখ রাখা হবে। তারপরই হবে রায়, আগামী মাসেই হতে পারে।

গত বছরের ২০ এপ্রিল আসামি গুলশানের ব্রোকারেজ হাউজ হাজী আহমেদ ব্রাদার্স সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপক জহিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মধ্যে দিয়ে প্রায় চার বছর আগের আলোচিত ওই হত্যাকাণ্ডের বিচার শুরু হয়।

মামলার নথিপত্রে দেখা যায়, মামলাটিতে যারা সাক্ষ্য দিয়েছেন, তাদের মধ্যে রয়েছেন- মামলার বাদী কৃষ্ণা কবেরীর ভাসুর সুধাংশু শেখর বিশ্বাস, কৃষ্ণার স্বামী শিতাংশু শেখর বিশ্বাস, এই দম্পতির দুই মেয়ে শ্রাবণী বিশ্বাস শ্রুতি, অদ্বিতীয়া আরভি বিশ্বাস অদৃতি, প্রতিবেশী বিপ্লব কুমার বিশ্বাস, ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক ঢাকা মেডিকেলের ফরেনসিক বিভাগের তৎকালীন সহকারী অধ্যাপক কাজী মো. আবু শামা, মহাখালী মেট্রোপলিটন মেডিকেলের চিকিৎসক মনির হোসেন, আসামির জবানবন্দী গ্রহণকারী হাকিম ঢাকার বতর্মান অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আমিনুল হক, হাকিম এমদাদুল হক, ফায়ার সাভির্সের কমর্কর্তা এম এ আলিম।

২০১৫ সালের ৩০ মার্চ মোহাম্মদপুরের ইকবাল রোডের ভাড়া বাসায় হামলায় মারাত্মক আহত ও দগ্ধ হয়ে পরদিন হাসপাতালে মারা যান আদাবরের মিশন ইন্টারন্যাশনাল কলেজের সমাজকল্যাণ বিভাগের প্রভাষক কৃষ্ণা কাবেরী মণ্ডল (৩৫)।

তার স্বামী সীতাংশু শেখর বিশ্বাস বিআরটিএর প্রকৌশল বিভাগের উপ-পরিচালক ছিলেন।

ঘটনার পর তার বড় ভাই সুধাংশু শেখর বিশ্বাস গুলশানের ব্রোকারেজ হাউজ হাজী আহমেদ ব্রাদার্স সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপক জহিরুল ইসলাম পলাশকে একমাত্র আসামি করে মোহাম্মদপুর থানায় হত্যা মামলা করেন।

এক বছরের বেশি সময় তদন্ত চালিয়ে ২০১৬ সালের ৩০ মে আদালতে অভিযোগপত্র দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক দেলোয়ার হোসেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

লাইভ রেডিও

Calendar

April 2024
S M T W T F S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930