ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা তৈরিতে সুযোগ করে দিচ্ছে উবার

প্রকাশিত: ৪:৩৬ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৪, ২০১৭

ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা তৈরিতে সুযোগ করে দিচ্ছে উবার

ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা তৈরিতে সুযোগ করে দিচ্ছে উবার

ঢাকা শহরের পরিবহণ ব্যবস্থার উন্নয়নে এবং ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা তৈরিতে সুযোগ করে দিচ্ছে উবার ।

ঢাকা, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৭: বিশ্বের সবচেয়ে বড় ও অন-ডিমান্ড রাইড শেয়ারিং কোম্পানি উবার আজ ঢাকায় প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রমের এক বছর পূর্তি উদযাপন করেছে। ২০১৬ সালের ২২ নভেম্বর ঢাকায় কার্যক্রম শুরু করে উবার। বিশেষ প্রযুক্তির সহায়তায় যাত্রীদের সহজে যাতায়াতের সুযোগ প্রদান করার মাধ্যমে শহরের পরিবহন ব্যবস্থার উন্নয়ন করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

উবার ইন্ডিয়া এ্যান্ড সাউথ এশিয়ার সেন্ট্রাল অপারেশনের হেড প্রদীপ পরমেশ্বরণ বলেন, “প্রতিনিয়ত গাড়ির সংখ্যা বেড়ে চলা ঢাকা শহরের যাতায়াত ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনতে গিয়ে আমরা চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হই। স্মার্টফোনের আধুনিক প্রযুক্তি ও বর্তমান অবকাঠামো ব্যবহার করেই জনসাধারণের জন্য উপযুক্ত যাতায়াত ব্যবস্থা তৈরি করা সম্ভব। ঢাকা শহরে আমাদের লক্ষ্য বাস্তবায়নে প্রতিনিয়ত সাহায্য করার জন্য বাংলাদেশ সরকার, আমাদের পথচলার অংশিদার, যাত্রী ও চালকদের আমরা আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাতে চাই।”

ঢাকায় উবারের ৩৬৫ দিন

• ঢাকা শহরে গড়ে ৭ মিনিট সময়ের মধ্যে উবারের গাড়ি পাওয়া সম্ভব।

• সকাল ৮টা – ১০টা ও বিকাল ৫টা – রাত ৯টার মধ্যে উবার সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়। সপ্তাহের অন্য দিনগুলির তুলনায় ছুটির দিনগুলিতে উবার ব্যবহারের মাত্রা বেশি।

• ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসেই ১৫ লাখ বার উবার ডাকা হয়েছে
• শুধুমাত্র ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসেই ২ লাখেরও বেশি মানুষ উবারে ভ্রমণ করেছেন
• প্রতি মাসে ১০ হাজারেরও বেশি চালক এবং প্রতিদিন শত শত চালক উবারে যোগদান করছেন ।
• গন্তব্য হিসেবে উত্তরা, বনানী ও গুলশান ১-এ সবচেয়ে বেশি সংখ্যক যাত্রী যাতায়াত করে থাকেন।

• উবারের একজন চালক ঢাকাতে মোট ৩৩৫০টি ট্রিপ দিয়েছেন। ট্রিপগুলিতে সর্বমোট যে দূরত্ব অতিক্রম করা হয়েছে তা ঢাকা থেকে সান ফ্র্যানসিসকোর দূরত্বের দ্বিগুণ!

• ঢাকার একজন যাত্রী উবারে মোট ৬৯৫টি ট্রিপ নিয়েছেন। ট্রিপগুলিতে সর্বমোট যে দূরত্ব অতিক্রম করা হয়েছে তা ঢাকা থেকে টোকিওর দূরত্বের সমান।

• বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ চালক হিসেবে উবারের সাথে যুক্ত হয়েছেন। উবারের ড্রাইভার পার্টনারদের মধ্যে আছে ফ্লিটের ড্রাইভার ও ব্যক্তিগত গাড়ির মালিক। এছাড়া মোবাইল কোম্পানি ও ব্যাংকের চাকরিজীবী এবং ছাত্ররাও বাড়তি আয়ের জন্য উবারে যোগ দিয়েছেন।

ঢাকায় কার্যক্রম শুরু করার প্রথম বছরে যাত্রী ও চালকদের জন্য নিরাপদ, নির্ভরযোগ্য ও স্বাচ্ছন্দ্যপূর্ণ যাত্রা নিশ্চিত করার জন্য উবার নতুন সেবা চালু করার পাশাপাশি নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ ও কৌশলগত অংশীদারিত্ব সৃষ্টি করেছে। এসব উদ্যোগের মধ্যে রয়েছে:

• নতুন সেবা: বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার যাত্রী ও চালকের চাহিদা পূরণ করতে চালু করা হয়েছে উবার প্রিমিয়ার ও উবার মোটো নামের দুইটি সেবা।

• কৌশলগত অংশীদারিত্ব: দেশের অন্যতম সেরা মোবাইল অপারেটর রবির সাথে যুক্ত হয়ে ড্রাইভার পার্টনারদের অভিনব সব ডিজিটাল সেবা প্রদান করা হচ্ছে। এছাড়া এখন চালকরা রবি ডিলারশিপ ওয়াক-ইন সেন্টারে উবারে যোগদানের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার সুযোগ পাচ্ছেন।

• নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা: একটি বিশেষ সেফটি ফিচার চালু করা হয়েছে যার মাধ্যমে সরকারের কন্ট্রোল রুমের সাথে যোগাযোগ করে জরুরী মুহূর্তে অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও সরকারী প্রতিনিধির সাহায্য পাওয়া যায়।

অ্যাপের নুতন ফিচার:

o ড্রাইভার কমপ্লিমেন্ট চালু করা হয়েছে যেটির মাধ্যমে যাত্রীরা রাইড শেষ করার পর অ্যাপে ব্যাজ প্রদানের মাধ্যমে চালকদের দক্ষতা ও বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণকে স্বীকৃতি দিতে পারেন।

o মাল্টি ডেসটিনেশনস ফিচার যোগ করা হয়েছে যার মাধ্যমে ট্রিপের আগে বা ট্রিপের সময়ে তিনটি যাত্রাবিরতি নির্ধারণ করা যায়।

o যাত্রীদের বিনোদনের জন্য যোগ করা হয়েছে স্ন্যাপচ্যাট ফিল্টারের বিশেষ ফিচার। ট্রিপের সময় উপভোগ করা যাবে “ওয়ার্ক ওয়ান্ডার্স” ও “ইয়োর ইটি্এ”-সহ বিভিন্ন আকর্ষণীয় ফিল্টার।

এক বছর পূর্তি উদযাপনের মুহূর্তে উবার যাত্রীদের প্রয়োজন অনুযায়ী যাত্রার স্বাধীনতা প্রদান, চালকদের ক্ষুদ্র উদ্যোক্তার সুযোগ সৃষ্টি ও যানজটমুক্ত ঢাকা গড়ার প্রতিজ্ঞাকে স্মরণ করিয়ে দিতে চায়।

উবার সম্পর্কে তথ্য

উবার-এর লক্ষ্য সব জায়গায়, সবার জন্য একটি নির্ভরযোগ্য পরিবহন ব্যবস্থা তৈরি করা। আপনি কীভাবে বাটনের এক চাপে যাতায়াতের জন্য একটি গাড়ি পেতে পারেন? এ সমস্যার সমাধান খুঁজতে আমাদের শুরুটা হয় ২০১০ সালে। ৬ বছর পর এবং ৫ বিলিয়ন ট্রিপ শেষে এখন আমরা বৃহত্তর একটি চ্যালেঞ্জ নিয়ে কাজ শুরু করেছি, সেটি হচ্ছে অল্প গাড়িতে বেশি মানুষ যাতায়াতের ব্যবস্থা করে শহরে যানজট এবং দূষণ কমানো।

ছড়িয়ে দিন