খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণ ৩১ ডিসেম্বর

প্রকাশিত: ৯:১৯ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ২১, ২০১৫

খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণ ৩১ ডিসেম্বর

এসবিএন ডেস্ক:

আবারও সাক্ষ্যগ্রহণ এর তারিক পড়ল খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার পরবর্তী জেরা ও সাক্ষ্যগ্রহণের দিন আগামী ৩১ ডিসেম্বর ধার্য করেছেন আদালত। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলা দুটির বিচারিক কার্যক্রম চলছে রাজধানীর বকশীবাজারে কারা অধিদপ্তরের প্যারেড মাঠে স্থাপিত তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদারের অস্থায়ী আদালতে।

প্রধান আসামি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার চার সাক্ষীকে আসামিপক্ষের জেরা এবং নতুন এক সাক্ষীর সম্পূর্ণ ও তদন্ত কর্মকর্তার আংশিক সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে সোমবার এ দিন ধার্য করেন আদালত। সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে আদালতের কার্যক্রম শুরু হয়। দেশে ফিরলেও পুরোপুরি সুস্থ না হওয়ায় আদালতে অনুপস্থিতির জন্য দুই মামলায়ই খালেদা জিয়ার পক্ষে আবেদন জানান তার আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া। আদালত খালেদার অনুপস্থিতির আবেদন মঞ্জুর করে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার সাক্ষীর জেরা ও নতুন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণের আদেশ দেন।

সোমবার মামলাটির ২৭ থেকে ৩০তম সাক্ষী (জব্দ তালিকার সাক্ষী) সোনালী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের ডিজিএম আব্দুল গফুর, এজিএম মো. হারুন অর রশীদ, মিরপুর শিল্প এলাকা শাখার ব্যবস্থাপক হারুন অর রশীদ ফকির ও জিএম আমিন উদ্দিন আহমেদকে খালেদা জিয়ার পক্ষে জেরা করেন অ্যাডভোকেট আব্দুর রেজ্জাক খান। অন্য আসামিদের পক্ষে জেরা করেন অ্যাডভোকেট টি এম আকবর ও অ্যাডভোকেট আমিনুল ইসলাম।

এরপর ৩১তম সাক্ষী মেট্রো মেকার্স অ্যান্ড ডেভেলপার্স লিমিটেডের সাবেক সিনিয়র ম্যানেজার কাজী রশিদউজ্জামানের পুরো এবং ৩২তম সাক্ষী তদন্তকারী কর্মকর্তা দুদকের উপপরিচালক হারুন অর রশিদের আংশিক সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। আগামী ধার্য তারিখে অসমাপ্ত সাক্ষ্যগ্রহণ ও আসামিপক্ষের জেরা হবে বলে জানিয়েছেন দুদকের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোশাররফ হোসেন কাজল।

ছড়িয়ে দিন