গণমানুষের অর্থনীতি ও বঙ্গবন্ধু

প্রকাশিত: ৭:৩৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৬, ২০২১

গণমানুষের অর্থনীতি ও বঙ্গবন্ধু

এবারের বইমেলায় আলোচিত একটি বই ‘গণমানুষের অর্থনীতি ও বঙ্গবন্ধু’। বঙ্গবন্ধুর অর্থনৈতিক ভাবনা নিয়ে বইটি লিখেছেন অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহম্মদ শামস্-উল ইসলাম। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন শতাব্দী জাহিদ। প্রকাশ করেছে ‘আলোঘর প্রকাশনা’।
মোহম্মদ শামস্-উল ইসলাম বইটির প্রসংগ কথায় লিখেছেন, ‘‘স্বাধীন বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে বঙ্গবন্ধুর কাছে আমার অনিঃশ্বেষ ঋণ। সেই ঋণ শোধ হবার নয়। ২০২০ সালের ১৭ মার্চ গোটা দেশ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উদযাপন শুরু করেছে। ২০২০ সালকে মুজিববর্ষ ঘোষণা করা হয়েছে। জাতির এই সম্মিলিত আনন্দ-আয়োজনে তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞতা স্বীকার এবং অকৃত্রিম শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করার প্রয়াসে ‘গণমানুষের অর্থনীতি ও বঙ্গবন্ধু’ শিরোনামের এই গ্রন্থ রচনায় উদ্বুদ্ধ হয়েছি।’’

‘গণমানুষের অর্থনীতি ও বঙ্গবন্ধু’ বইটির বিষয়বস্তু সম্পর্কে লেখক লিখেছেন, ‘এটা কোনো গবেষণা গ্রন্থ নয় কিন্তু তথ্য-উপাত্ত সহযোগে শোষিত-বঞ্চিত মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে বঙ্গবন্ধু কী রকম শ্রম দিয়েছিলেন, কতোটা ত্যাগ স্বীকার করেছিলেন, মানুষকে কতোটা আপন করে নিয়েছিলেন, দেশের আপামর জনগণ তাঁকে কতোটা আপনার বলে গ্রহণ করেছিলেন- সেসব বিষয় গ্রন্থে উপস্থাপনের চেষ্টা করেছি।’
বইটির মুখবন্ধ লিখেছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান এবং কথামুখ লিখেছেন অগ্রণী ব্যাংকের চেয়ারম্যান ড. জায়েদ বখ্ত। বইটি উৎসর্গ করা হয়েছে বঙ্গবন্ধুর মা সায়েরা খাতুন এবং সহধর্মিনী বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসাকে।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে হিসাব বিজ্ঞানে অনার্সসহ স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী মোহম্মদ শামস্-উল ইসলাম অগ্রণী ব্যাংকে সিনিয়র অফিসার হিসেবে যোগ দেন ১৯৮৪ সালে। ২০১৬ সাল থেকে অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এর আগে আনসার-ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবেও দক্ষতার সংগে দায়িত্ব পালন করেছেন। দীর্ঘ ৩৭ বছরের বর্ণাঢ্য ব্যাংকিং ক্যারিয়ারে অনেক সৃজনশীল ও ব্যতিক্রমী কাজ করেছেন তিনি। বিশেষ করে বঙ্গবন্ধু কর্নারের প্রবক্তা হিসেবে তিনি এখন দেশে বিদেশে সুপরিচিত ।