গৌরাঙ্গ মোহান্তের কবিতার আবৃত্তি-অ্যালবাম “আকাশ ও বেদনার হরফ” এর মোড়ক উন্মোচন

প্রকাশিত: ৩:০৭ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৬, ২০১৮

গৌরাঙ্গ মোহান্তের কবিতার আবৃত্তি-অ্যালবাম “আকাশ ও বেদনার হরফ” এর মোড়ক উন্মোচন

আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ দো ঢাকায় শুক্রবার ৫ই জানুয়ারি ২০১৮ অয়োজিত হয় কবি, গবেষক ও অনুবাদক গৌরাঙ্গ মোহান্তের কবিতার আবৃত্তি-অ্যালবাম “আকাশ ও বেদনার হরফ” এর মোড়ক উন্মোচন ও কবিতা-সন্ধ্যর।
অনুষ্ঠানে কবির সাহিত্যকর্ম নিয়ে আলোচনা করেন কবি ও প্রাবন্ধিক হায়াৎ সাইফ, কথা সাহিত্যিক অধ্যাপক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম এবং কবি ও অনুবাদক কায়সার হকসহ অন্যান্য আলোচকবৃন্দ।
গৌরাঙ্গ মোহান্ত ১৯৬২ সালের ০৭ জানুয়ারি লালমনিরহাট জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগ থেকে ১৯৮৩ সালে অনার্সসহ বিএ ও ১৯৮৪ সালে এমএ পাশ করেন। তিনি ভারতের দার্জিলিং এর নর্থ বেঙ্গল ইউনিভার্সিটি থেকে ২০০১ সালে ইংরেজি সাহিত্যে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।গৌরাঙ্গ মোহান্ত প্রধানত কবিতা, প্রবন্ধ ও অনুবাদকর্মের মধ্যে শৈল্পিক অনুভব সঞ্চারের পথ খোঁজেন।
‘আধিপ্রান্তর জুড়ে ছায়াশরীর’ (২০০৯) তাঁর প্রথম কাব্য, দ্বিতীয় কাব্য ‘শূন্যতা ও পালকপ্রবাহ’ (২০১২)। তাঁর কাব্য ‘ট্রোগনের গান’, নির্বাচিত কবিতাগ্রন্থ ‘জলময়ূরের শত পালক’ ও চীনা ট্যাং যুগের কবিতার অনুবাদগ্রন্থ ‘ঝলকে ওঠা স্বপ্নডাঙা’ ২০১৬ সালে প্রকাশিত হয়। তাঁর উল্লেখযোগ্য সম্পাদিত গ্রন্থসমূহ- ‘বেগম রোকেয়া স্মারকগ্রন্থ’ (যৌথ, ২০০৫) ও ‘পুথি রহিব নিশানী : হেয়াত মামুদ’ (যৌথ, ২০০৬)। কর্মসূত্রে তিনি সরকারি চাকুরে; বাংলাদেশ সরকারের অতিরিক্ত সচিব এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন উচ্চশিক্ষা মানোন্নয়ন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক হিসেবে কর্মরত। সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে গৌরাঙ্গ মোহান্ত বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত। কবি গৌরাঙ্গ মোহান্ত তাঁর সৃষ্টিকর্মে অকপট উচ্চারণের ব্যঞ্জনায় নিয়ত ঘটাতে চান সত্তার বিশুদ্ধায়ন। গভীরতর শিল্পসৃষ্টির ভেতর দিয়ে তিনি প্রকাশ করতে চান জীবনসত্য।