চাঁদপুরে পানি বন্ধী দুর্ভোগে কয়েক হাজার মানুষ

প্রকাশিত: ৫:২৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৬, ২০১৭

চাঁদপুরে পানি বন্ধী দুর্ভোগে কয়েক হাজার মানুষ

সিলেট ৭১ নিউজ ডেস্ক:চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনা ও ডাকাতিয়া নদীর পানি তুলনা মূলক ভাবে তেমন বৃদ্বি না পেলেও শহরের নিন্ম অঞ্চল অবিরাম বর্ষনে প্লাবিত হয়ে গেছে। এ ছাড়া শহর তলীর ও শহরের অধিকাংশ রাস্তা-ঘাট এখন পানির নীচে তলিয়ে গেছে। এতে করে সকল শ্রেনী পেশার মানুষ এ পানির মধ্যে চলাচল করতে গিয়ে মারাত্বক ও চরম দুর্ভোগ পৌহাতে হচেছ।

সরজমিনে বিভিন্ন স্থানে ঘুরে দেখা য়ায়, গত কয়েক দিনের অবিরাম বর্ষনে চাঁদপুর শহর ও শহরতলীর বিভিন্ন নিন্ম অঞ্চলের রাস্তা ঘাট ও ফসলি জমি বৃস্টির পানিতে তলিয়ে রয়েছে। চাঁদপুর শহরতলীর মৈশাদী,বাবুরহাট,ইচলী,ডালিরঘাট,দোকানঘর,করেগো দোকান,আনন্দবাজার,মিয়ার বাজার,বিষ্ণনদী,তরপুরচন্ডী সহ সকল স্থানে বৃস্টির পানি আটকা পড়ে এলাকা বাসী মারাত্বক দুর্ভোগ পৌহাতে হচেছ। তারা আটকা পড়া পানিতে বন্ধী হয়ে পরে আছে। এ ছাড়া চাঁদপুর শহরের প্রধান সড়ক গুলোর মধ্যে গুরুত্বপূর্ন অধিকাংশ সড়ক ও রাস্তা-ঘাট অবিরাম বর্ষনে তলিয়ে গেছে,এতে করে শহরবাসী মারাত্বক দুর্ভোগ পৈাহাতে হচেছ। এ পানি আটকা পরায় বিভিন্ন স্থানের মল মূত্র পানিতে ভেসে একাকার হয়ে গেছে। এ আটকা পড়া পানি মাড়িয়ে শহরবাসী চলাচল করতে গিয়ে বিষাক্ত পানি হতে পানি বাহিত রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়ছে। বিশেষ করে শহরের প্রফেসার পাড়া,মমিনপাড়া,মোল্লা বাড়িরোড,কোড়ালিয়া,রহমতপুর কলনী, ট্রাকরোড,নাজির পাড়া,বকাউলবাড়ী,জেটিসি শ্রমিক কলনী,উওর শ্রীরামদী জামতলা,কয়লাঘাট,নিশিবিল্ডিং, বকুলতলা রেলওয়ে ১৪ নং কলনী ও রেলওয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং কলনী,৫নং ঘাট, আক্কাছ আলী বস্তী,মাদ্রাসারোড,যমুনারোডসহ বিভিন্ন স্থানে বৃস্টির পানি আটকা পড়ে এলাকাবাসী মারাত্বক দুর্ভোগে পড়ে রয়েছে। শহরের নাজির পাড়ায় পানি আটকা পড়ে কৃত্রিম বন্যায় রুপ নিয়েছে। চাঁদপুর শহরের অধিকাংশ স্থানে অপরিকল্পিত ভাবে পুকুর,নালা,ডোবা ভরাট করে বাড়ি ঘর নিমার্ন করায় ও চাঁদপুর পৌরসভার অপ্রতুল ড্রেনেজ ব্যবস্থার ফলে অবিরাম বৃস্টি হলে পানি আটকিয়ে পড়ে জনদুর্ভোগের সৃস্টি হচেছ। অপর দিকে শহরের একটি বিরাট অংশ রেলওয়ের জায়গা হওয়ায় হাজার হাজার এলাকাবাসী নিজেদের ইচছা মত অবৈধ ভাবে পৌরসভা থেকে কোন রকম অনুমতি ছাড়া বাড়ি ঘর নির্মান করায় সামান্য বৃস্টি হলে পানি আটকা পড়ে দুর্ভোগ পৌহাতে হয়। এ ছাড়া রেলওয়ের অসংখ্য পুকুর রয়েছে, এ সব পুকুরে মাছ চাষ করায়,পানি আটকিয়ে রাখায় ব্যাপক জলাবদ্বতা সৃস্টি হচেছ। এর প্রতি পৌর কর্তৃপক্ষের নজর না থাকায় শহরবাসী বেশী দুর্ভোগে পড়ছে বলে ভুক্ত ভোগী এলাকাবাসীর অভিযোগ করেন। এলাকাবাসীর দাবী পৌর কর্তৃপক্ষ সঠিক ভাবে তদারকী করলে চাঁদপুর পৌরবাসী এ দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পেতে পারে।

সুত্র:চাঁদপুর নিউজ ডট কম

ছড়িয়ে দিন