চাঁদপুরে শারদীয় দূর্গা উৎসবে ব্যাপক প্রস্তুতি :

প্রকাশিত: ১:১৩ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৩, ২০১৮

চাঁদপুরে শারদীয় দূর্গা উৎসবে ব্যাপক প্রস্তুতি :

চাঁদপুর: চাঁদপুরের পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির পিপিএম বলেছেন, সকলের সহযোগিতা নিয়ে শারদীয় দূর্গা উৎসব উদযাপন করা হবে। আর এ ক্ষেত্রে পুলিশ প্রশাসন সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে। আর আপনারা যারা পুজা কমিটিতে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তারাও কাজ করতে হবে। পুজার পূর্ব পর্যন্ত আপনারা মন্ডপের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করবেন। যে কোন সমস্যা হলে আমাকে অবহিত করবেন। সোমবার (১ অক্টোবর) সকাল ১১টায় জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে আসন্ন শারদীয় দূর্গা পুজা উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সহকারী পুলিশ সুপার সাকিলা ইয়াছমিন সূচনার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুভাষ চন্দ্র রায়, সাবেক সভাপতি জীবন কানাই চক্রর্বতী ,সহ- সভাপতি বিবি দাস, সাধারন সম্পাদক তমাল কুমার ঘোষ, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খৃস্টান ঐক্য পরষিদরে সভাপতি এড. বনিয় ভূষন মজুমদার, সাধারন সম্পাদক এড. রনজতি রায়, জেলা কমিউনিটি পুলশিরে সভাপতি ডা: রুহুল আমনি, মতলব থানার অফসিার ইনর্চাজ এইচ এম ইকবাল, সাংগঠনকি সম্পাদক গোপাল সাহা, সদর উপজলো পূজা উদযাপন পরষিদরে সাধারন সম্পাদক সাংবাদকি লক্ষ্মণ চন্দ্র সূত্রধর, মতলব উওররে সভাপতি কিশোর কুমার ঘোষ, হাজীগঞ্জরে সভাপতি রুহি দাস বনিক, কচুয়ার সভাপতি ফনী ভূষন মজুমদার তাফু, শাহরাস্তির সভাপতি শ্যামল বন্ধু ভট্টার্চায, হাইমচররে সভাপতি বিবেক লাল মজুমদার। এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলশি সুপার (সদর সার্কেল) জাহেদ পারভেজ চৌধূরী, জেলা কমিউনিটি পুলশিরে সাধারন সম্পাদক সুফি খায়রুল আলম খোকনসহ প্রতিটি থানার ইনচার্জগনও পুলিশের কর্মকর্তাবৃন্দ।
চাঁদপুর: চাঁদপুর সদর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নে ছোট সুন্দর এ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ফলাফল সন্তোষজনক। কিন্তু দীর্ঘ দিনের সমস্যা হচ্ছে অবকাঠামগত উন্নয়ন হয়নি। এতে করে বিদ্যালয়ের ৮শ’ শিক্ষার্থীকে কষ্ট করে পাঠ গ্রহন করতে হয়। বিদ্যালয় ঘুরে ও শিক্ষকদের সাথে আলাপ করে এসব তথ্য পাওয়াগেছে। বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক সত্যজিত আচার্যি জানান, বিদ্যালয়টি ১৯২৫ সালে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। এরপর ২০০০সালের ১৯ জুলাই এমপিও ভুক্তি লাভ করে। বর্তমানে ১০জন এমপিও ভুক্ত শিক্ষক রয়েছে। আর ৫জন অতিথি শিক্ষক রয়েছেন। বর্তমানে শিক্ষার্থী সংখ্যা ৮২৬জন। এর মধ্যে ৩৭০জন ছাত্র এবং ৪৫৬ছাত্রী। তিনি আরো জানান, বিদ্যালয়ের একাধিক একতলা ভবন ও টিনের ঘর রয়েছে। কিন্তু পাকা দ্বিতল কিংবা ৩লা ভবন নেই। এ কারণে কষ্ট করে শ্রেনী কক্ষগুলো পরিচালনা করতে হয়। শিক্ষা প্রকৌশল বিভাগ ১৯৯০ সালে ২টি ১ তলা ভবন নির্মাণ করে। এরপর নিজস্ব অর্থয়ানে কিছু কাজ করা হয়।প্রধান শিক্ষক হারুনুর রশিদ জানান, ভবন সমস্যা নিয়ে দ্বিতীয় তলা ভবন করার জন্য আবেদন করা হয়েছে। এটি বর্তমানে প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তিনি আরো জানান এ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার পাশের হার: ২০১৪-৭৭.৯%, ২০১৫-৫৩.৭৬%, ২০১৬-১০০%, ২০১৭-৭২.৩৮% ও ২০১৮-৯৮.২৯%। আগামী ফলাফল আরো উন্নতি করণের লক্ষ্যে আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

লাইভ রেডিও

Calendar

April 2024
S M T W T F S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930