চিকিৎসা নিশ্চিত করতে হাসপাতালকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ

প্রকাশিত: ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ, মে ১৩, ২০২০

চিকিৎসা নিশ্চিত করতে হাসপাতালকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ

সব ধরণের রোগীদের চিকিৎসা নিশ্চিত করতে দেশের সব হাসপাতালকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে ।
কোনো সরকারি বা বেসরকারি হাসপাতাল এসব নির্দেশ অমান্য করলে প্রয়োজনীয় ‘শাস্তিমূলক ব্যবস্থা’, এমনকি লাইসেন্স বাতিলের মত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ার করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

সোমবার এ সংক্রান্ত তিনটি নির্দেশনা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মিডিয়া সেল জানিয়েছে।

তাতে বলা হয়েছে, সব বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকে সন্দেহভাজন কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসার জন্য পৃথক ব্যবস্থা থাকতে হবে।

চিকিৎসা সুবিধা থাকা সত্ত্বেও জরুরি চিকিৎসার জন্য আসা কোনো রোগীকে ফেরত দেয়া যাবে না।

অন্য হাসপাতালে পাঠানোর পরামর্শ (রেফার) দিতে হলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ‘কোভিড হাসপাতাল নিয়ন্ত্রণ কক্ষের’ সঙ্গে যোগাযোগ করে রোগীর চিকিৎসার বিষয়টি সুনিশ্চিত করে তারপর পঠাতে হবে।

দীর্ঘদিন ধরে যেসব রোগী কিডনি ডায়ালাইসিসসহ বিভিন্ন চিকিৎসা নিচ্ছেন, তারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত না হয়ে থাকলে তাদের চিকিৎসা স্বাভাবিক নিয়মে অব্যাহত রাখতে হবে।
বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ১৬ হাজার ৬৬০ জন কোভিড-১৯ সংক্রমিত হয়েছেন। মারা গেছেন ২৫০ জন।

কোভিড-১৯ সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা না দেওয়ার অভিযোগ উঠছে।

বিভিন্ন মিডিয়ায় পাওয়া খবরে জানা গেছে , চিকিৎসা পাওয়ার আশায় রোগীরা হাসপাতাল থেকে হাসপাতালে ঘুরেও সেবা পাচ্ছেন না ।

ছড়িয়ে দিন