চীন, রাশিয়ার মত বাংলাদেশও পায়নি বাইডেন প্রশাসনের আমন্ত্রন

প্রকাশিত: ১১:৪৭ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৪, ২০২১

চীন, রাশিয়ার মত বাংলাদেশও পায়নি বাইডেন প্রশাসনের আমন্ত্রন

 

শরীফুল ইসলাম, স্টাফ রিপোর্টারঃ বাংলাদেশের নানা অর্থনৈতিক অবকাঠামো উন্নয়নে সহযোগী দেশ হিসেবে পাশে রয়েছে চীন ও রাশিয়া। বাংলাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থার নানা কর্মকান্ডে চীন সরাসরি জড়িত। ঠিক এমন অবস্থায় আগামী ৯ ও ১০ ডিসেম্বর ভার্চুয়ালি গণতন্ত্র সম্মেলন আয়োজন করতে যাচ্ছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এ সম্মেলনে ১১০টির বেশি দেশকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

 

কিন্তু সেই সম্মেলনে চীন ও রাশিয়ার মত বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানায়নি যা অবাক হবের হলেও বাস্তবিক। বাংলাদেশে প্রধানমন্ত্রী শেখা হাসিনা দূরদ্ররশী নেতৃত্বের ফলে কূটনৈতিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এগিয়ে রয়েছে। এক যুগের বেশী ক্ষমতায় থেকে নানা উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের মাধ্যমের আলোচনা রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাই হয়ত এই দাওয়াতে আমন্ত্রণ পাননি বলে মত আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের।

এ ছাড়া দাওয়াত দেওয়া হয়েছে তাইওয়ানকে। যে দ্বীপ রাষ্ট্রকে চীন তার নিজের অংশ হিসেবেই দাবি করে। যুক্তরাষ্ট্রের এ সম্মেলনে তাইওয়ানকে আমন্ত্রণ জানানো স্বাভাবিকভাবেই চীনকে ক্ষুব্ধ করবে। বাণিজ্য, প্রযুক্তিসহ নানা ক্ষেত্রে চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের দ্বন্দ্ব চলছে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমল থেকেই।

এদিকে মধ্যপ্রাচ্য থেকে শুধু ইসরাইল ও ইরাক আমন্ত্রণ পেয়েছে সম্মেলনে অংশ নেওয়ার জন্য। মিসর, সৌদি আরব, জর্ডান, কাতার ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের মতো মিত্রদের দাওয়াত দেয়নি যুক্তরাষ্ট্র। দক্ষিণ এশিয়া থেকে দাওয়াত পেয়েছে— পাকিস্তান, ভারত, মালদ্বীপ ও নেপাল।

আফ্রিকা থেকে দাওয়াত পেয়েছে— ডেমোক্র্যাটিক রিপাবলিক অব কঙ্গো, সাউথ আফ্রিকা, নাইজেরিয়া ও নাইজারের মতো দেশ।

ইউরোপ থেকে পোল্যান্ড দাওয়াত পেলেও আমন্ত্রিত দেশের তালিকায় নাম নেই হাঙ্গেরির। যদিও সম্প্রতি মানবাধিকার ইস্যুতে পোল্যান্ডের সঙ্গে ইউরোপীয় ইউনিয়নের মতবিরোধ চলছিল। এ ছাড়া ফ্রান্স, জার্মানিসহ ইউরোপের প্রায় সব দেশ সম্মেলনে আমন্ত্রণ পেয়েছে।

ছড়িয়ে দিন