জঙ্গিবাদ বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে হুমকি : কৌশিক বসু

প্রকাশিত: ৬:৩৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৭, ২০১৫

জঙ্গিবাদ বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে হুমকি : কৌশিক বসু

এসবিএন ডেস্ক:
বিশ্ব ব্যাংকের শীর্ষ অর্থনীতিবিদ কৌশিক বসু বলেছেন, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় জঙ্গিবাদ বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির জন্য হুমকি। বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে এ কথা বলেন তিনি। বিশ্ব ব্যাংকের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট বসু বলেন, চলতি অর্থবছর থেকে ২০১৬’র জুন মাসের শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশের অর্থনীতি ৬.৫ শতাংশ হারে প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে পারে। আগামী অর্থবছরে তা ৬.৭ শতাংশ হতে পারে। এমনকি বাংলাদেশ যদি তাদের কিছু অর্থনৈতিক দূর্বলতা, রাজনৈতিক ইস্যু এবং জঙ্গিবাদ কার্যকরভাবে ও সঠিকভাবে মোকাবিলা করতে পারে তাহলে প্রবৃদ্ধি ৭ শতাংশ পর্যন্ত পৌঁছাতে পারে। তিনি আরও বলেন, অনেক দেশে রাজনৈতিক সমস্যা রয়েছে। কাজেই বাংলাদেশ এক্ষেত্রে আলাদা নয়। কিন্তু এসব সমস্যা কমিয়ে আনা সম্ভব অর্থনৈতিক ও উন্নয়নমূলক কর্মকা- দিয়ে। রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশ গত বছর জুড়ে ক্রমবর্ধমান রাজনৈতিক উত্তেজনার ভুক্তভোগী। একই বছর সমালোচকদের কণ্ঠরোধ করতে প্রচারণা শুরু করেছে সহিংস জঙ্গিরা। ৪ জন ধর্মনিরপেক্ষ লেখক ও একজন প্রকাশককে হত্যা করেছে তারা। হত্যা করেছে বাংলাদেশে কমর্রত দুই বিদেশীকে। একজন জাপানি, অপরজন ইটালিয়ান। নিহত একজন বস্নগার ছিলেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত মার্কিন নাগরিক। আইএস দুই বিদেশী কর্মীকে হত্যার দায় স্বীকার করেছে। কিন্তু দেশে তাদের অস্তিত্বের বিষয়টি অস্বীকার করেছে সরকার। মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকার অনেক দেশে রাজনৈতিক জঙ্গিবাদ স্থিতিশীলতাকে হুমকির মুখে ফেলেছে। কৌশিক বসু এ বিষয়টিকে উল্লেখ করে বলেন, বাংলাদেশের উচিত বিষয়টিকে খতিয়ে দেখা কেননা এটা অর্থনীতির জন্য ক্ষতিকর। তিনি অবকাঠামো নানা খাতে উল্লেখযোগ্য বিনিয়োগের পরামর্শ দেন। বিশেষ করে জ্বালানি, বন্দর ও যোগাযোগ খাতের ওপর জোর দেন তিনি। কেননা এটা বাংলাদেশের বর্তমান ২৫০০ কোটি ডলারের তৈরি পোশাক রপ্তানিকে বৃদ্ধি করতে সহায়তা করবে। বর্তমানে বাংলাদেশ অবকাঠামো খাতে ৩০০ কোটি ডলার ব্যয় করে। দেশটির উন্নয়ন অংশীদারদের মতে এ খাতে ব্যয় করা উচিত ১২০০ কোটি ডলার। ব্যবসার ব্যয় কমাতে বসু আমলাতন্ত্র নিয়ন্ত্রণেরও পরামর্শ দেন।