জনপ্রিয় চিত্রনায়ক সিয়ামের বুদ্ধিমত্তায় ক্ষুধার্ত হারানো শিশু ফিরলো মায়ের কোলে

প্রকাশিত: ১:৩৭ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০১৮

জনপ্রিয় চিত্রনায়ক সিয়ামের বুদ্ধিমত্তায় ক্ষুধার্ত হারানো শিশু ফিরলো মায়ের কোলে

 

মোহাম্মদ অলিদ সিদ্দীকী তালুকদার,

এটি কোন গল্প কিংবা সিনেমার নয় , বাস্তবেরই গল্প। সিনেমায় নায়কেরা হারিয়ে যাওয়া শিশু উদ্ধার করেন, এমন গল্প আমরা প্রায়ই দেখি। কিন্তু বাস্তবেও যে একজন নায়ক হারিয়ে যাওয়া শিশুকে উদ্ধার করে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিতে পারেন, তা সিয়াম করে দেখালেন। নতুন প্রজন্মের জনপ্রিয় নায়ক সিয়াম মঙ্গলবার এ কাজটি করে দেখালেন। সঙ্গে ছিলেন তার বন্ধুরা। এটি জীবনের সেরা একটি ঘটনা হয়ে থাকল বলে জানান সিয়াম। পুলিশ কর্মকর্তারা তো সিয়ামকে শুধু পর্দার নয়, মেনে নিলেন বাস্তবের নায়ক হিসেবেও।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর মহাখালীতে তিতুমীর কলেজের সামনে দিয়ে যাচ্ছিলেন সিয়াম ও তাঁর বন্ধু আবীর। সেখানে জটলা দেখে এগিয়ে যান সিয়ামের বন্ধু আবীর। দেখেন, একটি শিশু একা একা কাঁদছে। ইমন নামের সেই শিশুটি শুধু বলেছে, তার মা বনানীতে কাজ করেন। এর বেশি আর কিছুই তার মনে নেই। সিয়াম বলেন, ‘অনেক চেষ্টার পর বনানীর একটি বাসার ঠিকানা দেয়। সেই ঠিকানায় বন্ধুরাসহ আমরা গিয়ে কিছুই পাইনি। এর মধ্যে জানলাম, সে খুব ক্ষুধার্ত। পাউরুটি ও কলা খেতে দিই, দেখলাম সে কলার খোসা পর্যন্ত খেয়ে ফেলছিল। বুঝলাম অনেক ক্ষুধার্ত। তারপর একটা রেস্টুরেন্টে দুপুরের খাবার খাওয়ালাম। এদিকে দুপুর গড়িয়ে বিকেল, আমরা বাধ্য হয়ে বনানী থানায় যোগাযোগ করলাম। কর্তব্যরত কর্মকর্তাকে সবকিছু বলার পর আমাদেরকে শিশুসহ যেতে বললেন। এরপর থানা কর্তৃপক্ষ চারিদিকে খোঁজখবর নেওয়া শুরু করে। সব মিলিয়ে ৩০ মিনিটের মধ্যে শিশুটির মাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। আমরাও ইমনকে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিলাম।’

বিষয়টি নিয়ে সিয়াম বলেন, পুলিশ ভাইয়েরা আমাদের সমস্যা এত গুরুত্বের সঙ্গে দেখলেন, তাতে আমরা সত্যিই মুগ্ধ। তাঁরা দ্রুত সময়ে দক্ষতার সঙ্গে ইমনের মাকে আমাদের কাছে নিয়ে আসেন। এটা সত্যি মুগ্ধ হওয়ার মতোই। সাধারণ মানুষদের বলতে চাই, বিপদে পড়লে এভাবেই পুলিশ ভাইদের সাহায্য নিতে পারেন। বনানী থানায় পুলিশ ভাইয়েরা আমাদের প্রতি যেভাবে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন, তা বলে বোঝাতে পারব না। অফিসার তাইহান স্যারের তো ডিউটিই শেষ হয়ে গিয়েছিল। এরপরও তিনি দায়িত্বশীলতার সঙ্গে কাজটি করেছেন।

এদিকে সিয়ামের ফেসবুক লাইভে বনানী থানার পরিদর্শক তাইহান বলেন, ‘বাচ্চাটাকে মায়ের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার কিছুটা অবদান আমাদের আছে। সবচেয়ে বড় অবদান চিত্রনায়ক সিয়াম ও তাঁর বন্ধুদের। তাঁরা বাচ্চাটাকে খুঁজে পাওয়ার পর নতুন জামা কিনে দিয়েছেন, তাকে খাইয়েছেন, তারপর আমাদের কাছে সাহায্যের জন্য এসেছেন। আমরা সবাই মিলে শুধু চেষ্টা করেছি, এ চেষ্টার ফলে বাচ্চাটা তার মায়ের কাছে ফিরে গেছে। সিয়াম ও তাঁর বন্ধুদের বনানী থানার পক্ষ থেকে ধন্যবাদ।’

হারিয়ে যাওয়া শিশু ইমনের মা জানান, বাচ্চাকে বাসায় একা রেখে বনানীতে কাজ করতে যান তিনি। এরপর সে বাসা থেকে বের হয়ে যায়। তিনি বলেন, ‘আমার মতো কেউ আর এভাবে বাচ্চাকে একা বাসায় রেখে যাবেন না। এটা আমার মোটেও ঠিক হয়নি।’

একটা সময় ছোটপর্দায় কাজ করলেও গত রোজার ঈদে সিয়ামের অভিষেক হয় বড় পর্দায়। প্রথম ছবি ‘পোড়ামন ২’ দিয়েই বাজিমাত করেন তিনি। এই নায়কের দ্বিতীয় ছবি ‘দহন’ আগামী অক্টোবরে মুক্তি পাবে। এরই মধ্যে ছবির বেশির ভাগ অংশের শুটিং শেষ হলেও গানের কাজ বাকি রয়েছে। দুটি ছবিরই পরিচালক রায়হান রাফী। আর দুটি ছবিতেই সিয়ামের বিপরীতে নায়িকা হয়েছেন পূজা চেরী।