জি-৭ সম্মেলনে নেতৃবৃন্দকে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

প্রকাশিত: ২:৫৫ অপরাহ্ণ, জুন ১০, ২০১৮

জি-৭ সম্মেলনে নেতৃবৃন্দকে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

৯ জুন, শনিবার কুইবেক সিটিতে জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনের আউটরিচ অধিবেশনে বক্তব্য প্রদানকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও টেকসই প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি বাস্তবায়নে মিয়ানমারের প্রতি চাপ প্রয়োগে সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য জি-৭ নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের সমস্যার মূল মিয়ানমারেই নিহিত এবং তাদেরকেই তার সমাধান করতে হবে। রোহিঙ্গাদের অবশ্যই তাদের নিজগৃহে ফিরে যেতে হবে, যারা সেখানে শত শত বছর ধরে বসবাস করে আসছে।রোহিঙ্গাদের ওপর নিপীড়ন ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের দায়ে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করে জবাবদিহিতা ও ন্যায়বিচার নিশ্চিত করারও আহ্বান জানান ।

আমরা ইতোমধ্যে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের অধিকার নিশ্চিত করতে মিয়ানমারের সঙ্গে চুক্তি করেছি । এই প্রক্রিয়া যাতে স্থায়ী ও টেকসই হয় সে জন্য আমরা এতে জাতিসংঘ শরণার্থীবিষয়ক হাইকমিশন ইউএনএইচসিআরকে অন্তর্ভুক্ত করেছি। রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বৈঠকে চার দফা প্রস্তাব উত্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী । প্রস্তাবগুলো হচ্ছে-

  • জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও টেকসই প্রত্যাবাসনের জন্য বাংলাদেশের সাথে করা দ্বিপাক্ষিক চুক্তি বাস্তবায়নে মিয়ানমারকে রাজি করানো ।
  • মিয়ানমার সরকার কর্তৃক অবিলম্বে ও নিঃশর্তভাবে রাখাইন পরামর্শক কমিশনের সুপারিশগুলোর বাস্তবায়ন করা।
  • দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে যথাযথ ও উপযুক্ত নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয়ে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাব গ্রহণের জন্য কাজ করা
  • চার. রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা বা মানবাধিকার লংঘনের জন্য জবাবদিহিতা ও বিচার নিশ্চিত করতে পদক্ষেপ গ্রহণ।

 জি-৭ভুক্ত দেশগুলো হলো কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান, যুক্তরাজ্য এবং আমেরিকা । এবারের সম্মেলনে শেখ হাসিনাসহ বিশ্বের ১২ জন নেতাকে জি-৭ সম্মেলনের বিশেষ আউটরিচ সেশনে অংশ নেওয়ার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন জাস্টিন ট্রুডো । কানাডার কুইবেক শহরে ১০ জুন, রোববার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করবেন। সন্ধ্যায় টরেন্টোতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন ।

১১ জুন, সোমবার টরেন্টোতে রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে কানাডার বিশেষ দূত বব রাইয়ের সঙ্গে বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী । এরপর আগামী ১২ জুন, মঙ্গলবার দেশে ফেরার কথা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ।