জেলা জুড়ে কর্মহীন পরিবারে খেলাফত মজলিসের ফুডপ্যাক

প্রকাশিত: ৩:২২ অপরাহ্ণ, মে ৯, ২০২০

জেলা জুড়ে কর্মহীন পরিবারে খেলাফত মজলিসের ফুডপ্যাক


মোঃ আব্দুল কাইয়ুম,মৌলভীবাজার:
দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের কারনে চলছে সরকার ঘোষিত লকডাউন। প্রতিনিয়ত মৃত্যুর পাশাপাশি বাড়ছে দেশের ৬৪ জেলায় আক্রান্তের সংখ্যাও। শহর,নগর কিংবা গ্রাম-বন্দর সর্বত্র দোকানপাঠ ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় চরম বিপাকে পড়েছেন দেশের বেশিরভাগ নিম্নআয়ের কর্মহীণ মানুষ। সরকার স্বাধ্যমত ত্রাণ তৎপরতা অব্যাহত রাখলেও চাহিদার বিপরীতে অপ্রতুল।

প্রবাসী অধ্যুসিত মৌলভীবাজার জেলায় করোনাভাইরাসের কারনে ঘরবন্দী হয়ে পড়া নিম্নআয়ের মানুষদের সরকারি খাদ্য সহায়তার পাশাপাশি এসব মানুষের মুখে হাসি ফুটাতে এগিয়ে এসেছেন প্রবাসীসহ বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনগুলোও। ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগ,বিএনপিসহ দেশের উল্লেখযোগ্য রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে খেলাফত মজলিসও লকডাউনের পর থেকে মৌলভীবাজার জেলা জুড়ে তাদের খাদ্য সহায়তা কর্মসূচি অব্যাহত রেখে চলেছে।

সংগঠনটির দ্বায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, মৌলভীবাজার সদর, রাজনগর,কমলগঞ্জ,শ্রীমঙ্গল, কুলাউড়া,বড়লেখা ও জুড়ীসহ জেলার ৭টি উপজেলায় প্রায় দুই হাজার কর্মহীণ পরিবারের মধ্যে ইতিমধ্যে পৌঁছে গেছে চাল,ডাল,তৈল,পেঁয়াজ,আলু,লবন ও ছুলাসহ নিত্যপণ্যের ফুডপ্যাক। খেলাফত মজলিসের জেলা সভাপতি ও রাজনগর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা আহমদ বিলাল এর তত্ত্বাবধানে প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত এসব ফুডপ্যাক সংগঠনের উপজেলা ভিত্তিক টিম গুলো সর্বরাহ করছেন অসহায় ঘরবন্দি মানুষদের কাছে।

বিশেষ করে রাজনগর উপজেলার বেশ কয়েকটি চাবাগানের চা শ্রমিক, জেলে ,রিক্সা শ্রমিক,দিনমজুর,পরিবহন শ্রমিক ও কয়েকশ কৃষক পরিবারে খেলাফত মজলিসের জেলা সভাপতি ও রাজনগর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা আহমদ বিলাল সহকর্মীদের সাথে নিয়ে নিজের ব্যক্তিগত গাড়িতে করে খাদ্য সহায়তা সামগ্রী নিরবে পৌঁছে দিচ্ছেন। কোন ধরনের ফটোসেশন কিংবা প্রচারণা ছাড়াই তাঁর পরিবারের নিজস্ব জাকাত তহবিল থেকে রাজনগর উপজেলার পাঁচগাও ইউনিয়নসহ উপজেলার বেশ কয়েকটি ইউনিয়নে অন্তত একহাজার অসহায় পরিবারকে দেয়া হয় খাদ্য সহায়তা। আর দলীয় ফান্ড থেকে জেলার সাত উপজেলায় প্রথম দিকে ক্ষুদ্র পরিসরে প্রায় দুই হাজার পরিবারকে দেয়া হয় নিত্যপণ্যেসহ খাদ্য সহায়তা।

সংগঠনটির জেলা সভাপতি মাওলানা আহমদ বিলাল জানান, করোনা ভাইরাসের কারনে ঘরবন্দি হয়ে পড়া নানা বর্ণের মানুষদের পাশে সাধ্যমত ব্যক্তিগত ভাবে আমি নিজে এবং আমাদের দলের পক্ষ থেকে রাজনগর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিচ্ছি খাদ্য সহায়তা । তিনি বলেন, এপর্যন্ত জেলায় তাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রায় সাড়ে ৪ লক্ষ টাকারও বেশি খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়েছে। আহমদ বিলাল বলেন, আমরা এবং আমাদের সংগঠন ইসলাম নির্দেশিত পন্থা অনুষরণ করে কোন ধরনের প্রচারণা ছাড়াই বেশিরভাগ খাদ্য সহায়তাই অত্যান্ত গোপনে পৌঁছে দিচ্ছি অসহায় পরিবারকে।

খেলাফত মজলিসের সহ-সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাইফুর রহমান এ প্রতিবেদককে জানান, করোনার প্রাদূর্ভাব শুরু হওয়ার পর পরই কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে ইস্যুকৃত একটি সার্কুলার আসলে সে অনুযায়ী সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করে জেলার দ্বায়িত্বশীল পর্যায়ে করণীয় নির্ধারনে দীর্ঘ বৈঠক হলে বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমরা জেলার সবগুলো উপজেলায় ত্রাণ তৎপরতা জোরদার করি। তিনি বলেন, দলীয় নেতৃবৃন্দ ও প্রবাসী দ্বায়িত্বশীলদের কাছ থেকে সংগ্রহকৃত অর্থ দিয়ে আমরা বিপন্ন সাধারণ মানুষের সহায়তায় কার্যক্রর প্রদক্ষেপ গ্রহণ করেছি, ইতিমধ্যে জেলার দুই হাজার পরিবারকে খেলাফত মজলিসের ফুডপ্যাক পৌঁছে দেয়া হয়েছে যা আগামী সঙ্কটেও চলমান থাকবে।

ছড়িয়ে দিন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Calendar

December 2021
S M T W T F S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031