তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হোসেনকে আর বাঁচানো গেল না

প্রকাশিত: ৮:১১ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১৭, ২০১৮

তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হোসেনকে  আর বাঁচানো গেল না

মস্তিষ্কে আঘাতের কারণে তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হোসেনকে আর বাঁচানো গেল না ।

দুই বাসের মধ্যে পড়ে একটি হাত হারালেও রাজীব হোসেনকে বাঁচাতে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন চিকিৎসকরা । কিন্তু সব চেষ্টা বিফল করে দিয়ে সে চলে গেল না ফেরার দেশে । গত ৩ এপ্রিল ঢাকার কারওয়ান বাজারে দুই বাসের রেষারেষিতে মধ্যে পড়ে একটি হাত হারানোসহ মাথায় গুরুতর জখম হয়েছিল রাজিবের ।শমরিতা হাসপাতাল থেকে পরদিনই তাকে নেওয়া হয়েছিল ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে । অবস্থার অবনতি ঘটলে এক সপ্তাহ আগে তাকে নেওয়া হয় লাইফ সাপোটে।

সোমবার মধ্য রাতে চিকিৎসকরা রাজীবকে মৃত ঘোষণা করেন ।

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার বাঁশবাড়ি গ্রামের রাজীব তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ার সময় মা এবং অষ্টম শ্রেণিতে পড়ার সময় বাবাকে হারান। ঢাকার মতিঝিলে খালার বাসায় থেকে এসএসসি ও এইচএসসি পাস করে ভর্তি হন স্নাতকে।

পড়ালেখার ফাঁকে একটি কম্পিউটারের দোকানে কাজ করে নিজের আর ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া দুই ভাইয়ের খরচ চালানোর সংগ্রাম করে আসছিলেন এই তরুণ।

গত ৩ এপ্রিল কারওয়ান বাজারে বিআরটিসি ও স্বজন পরিবহনের রেষারেষিতে বিআরটিসির যাত্রী রাজীবের ডান কনুইয়ের ওপর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। তার মাথার সামনে-পেছনের হাড় ভেঙে যাওয়া ছাড়াও মস্তিষ্কের সামনের দিকে আঘাত লাগে।

প্রথমে পান্থপথের শমরিতা হাসপাতালে নেওয়া হলেও সেখান থেকে পরে তাকে ভর্তি করা হয় ঢাকা মেডিকেলে। তার চিকিৎসার জন্য গঠন করা হয় মেডিকেল বোর্ড।

বোর্ডের প্রধান অধ্যাপক মো. শামসুজ্জামান বলে আসছিলেন, রাজীবের হৃদযন্ত্র, ফুসফুস, কিডনি কাজ করলেও মস্তিষ্ক সাড়া দিচ্ছিল না।

সোমবার সন্ধ্যায়ও তিনি জানান, রাজীবের অবস্থা আগের মতোই আছে । তার হার্ট, লাংস, কিডনি ভাল । কিন্তু মস্তিষ্কের অবস্থা বেশ খারাপ ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

লাইভ রেডিও

Calendar

May 2024
S M T W T F S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031