দিরাই-শাল্লা কালচারাল এন্ড ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ৩০টি পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ প্রদান

প্রকাশিত: ৬:৫৩ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৬

দিরাই-শাল্লা কালচারাল এন্ড ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ৩০টি পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ প্রদান

এসবিএন, দিরাই প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে যুক্তরাজ্যস্হ দিরাই-শাল্লা কালচারাল এন্ড ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের উদ্যোগ ২ উপজেলার ৩০টি পরিবারের বিবাহ কার্য সম্পাদনের জন্য নগদ অর্থ প্রদান করা হয়েছে।

এ উপলক্ষে বুধবার সকাল ১১ টায় উপজেলা গন মিলনায়তন হলে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে আয়োজন করা হয়।

এসোসিয়েশন সভাপতি প্রবাসী কমিউনিটি নেতা সামছুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও দিরাই প্রেসক্লাবের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সর্দার মুজাহিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও শিক্ষা কমিটির সভাপতি হাফিজুর রহমান তালুকদার।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান গোলাপ মিয়া, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ছবি চৌধুরী, সরমঙ্গল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এহসান চৌধুরী, চরনারচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রতি রঞ্জন দাস, এসোসিয়েশনের উপদেষ্টা হাজী সিরাজ মিয়া, ব্র্যাকের উপজেলা সমন্বয়কারী আব্দুর রাজ্জাক, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক রঞ্জন রায়, দিরাই প্রেসক্লাব সভাপতি সামছুল ইসলাম সরদার, উপজেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, কেয়ার নিউট্রিশন প্রকল্পের ম্যানেজার আনিসুর রহমান সোহাগ।

বক্তব্য রাখেন উপজেলা ফারিয়ার সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দীন মিল্লাদ, সমুজ আলী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মাওলানা খালেদ আহমদ জায়ীম, ছাত্রনেতা জুনেদ আহমদ প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যকালে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান তালুকদার বলেন, যারা পরোপকারে নিজের কষ্টার্জিত টাকা ব্যয় করেন তারাই প্রকৃতভাবে মহৎ, আমাদের এলাকার প্রবাসীরা সব সময় এলাকার হতদরিদ্র মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন।

বিশেষ করে যুক্তরাজ্যস্হ দিরাই-শাল্লা কালচারাল এন্ড ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের সেবা মূলক কাজ প্রশংসার দাবীদার।

তারা বন্যার সময় বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ানো, শীতার্তদের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ, বিভিন্ন গ্রামে বিশুদ্ধ পানি ব্যবস্থার জন্য টিউবওয়েল সরবরাহ, গুণীজন সম্মাননা ও আজকের এই নগদ অর্থ প্রদানসহ অনেক সেবা মূলক কাজ করে যাচ্ছেন।

তাদের এই উন্নয়ন মূলক কাজ অব্যাহত থাকবে এটাই আমাদের কামনা।

সভাপতির বক্তব্যকালে এসোসিয়েশন সভাপতি সামছুল হক চৌধুরী বলেন, আমরা প্রবাসে থাকলেও আমাদের মন পড়ে থাকে আমাদের প্রিয় জন্মভূমিতে।

সমাজের অসহায় দুঃখি মানুষের কথা চিন্তা করে শিক্ষকতার মত মহান পেশা ছেড়ে দিয়ে বিলেতে পাড়ি জমাই।

আমাদের কষ্টার্জিত অর্থ দিয়ে সমাজের অসহায় মানুষদের জন্য কিছুটা সেবা করতে পারছি বলে নিজেকে ধন্য মনে করছি।

আগামীতে আপনাদের সহযোগিতা অব্যাহত থাকলে আমাদের এসোসিয়েশনের হাওর পাড়ের মানুষদের জন্য সেবা কাজ চলমান থাকবে ইনশাআল্লাহ।