দিশেহারা মন

প্রকাশিত: ১০:১৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৫, ২০১৮

দিশেহারা মন

শিল্পী মাহমুদা

প্রত্যহ রোদ ওঠে আলোর নিবাসে সূর্যে
থেমে থাকেনা বেলা অবেলার মনের তূর্যে ,
গেথে রাখার দিন পরমাস্তে আলোড়ন
গোধূলি বিকেল যখন জীবন সন্ধ্যাধারে জাগায় শিহরণ,
স্পর্শে জাগা ঢলে পরা জাগরণ ।

বিশুদ্ধ আত্মায় সদাই চিনি হে প্রাণ শুদ্ধোদনে
মনকে পিঞ্জরে অবরুদ্ধে অবচেতনে ,
নিজের বিরুদ্ধে মহত্যের বিক্ষোভে ।

অনাদায়ে মমতার মন স্রোতে সমুদ্রে ঢেউ তুলে ,
আর আমি খোলা জানালায় চেয়ে থাকি চোখ মেলে ।
বিনয়ে না জানি কতো ফোটা বৃষ্টি হয়ে ,
সংস্পর্শে ছুঁয়ে দিও নিশুতি আপনোলয়ে ।

নরকবাসি হয় বিবেক প্রানে ,পরিচয় রয় মাতালে ,
দিশেহারা মন যদি
পাতালে খুজে সমান্তরালে
পরিনাম হয় আবেগে
মনের বিরুদ্ধে
মহত্যের বিক্ষোভে
হে প্রাণ শুদ্ধোদনে ॥

মেঘের বিচ্ছেদে বৃষ্টি বিলাস

মেঘের বিচ্ছেদে বৃষ্টি বিলাস , মানুষ খোঁজে জল
সকল কথায় প্রাপ্তির হিসেব , নিত্য ভাংছে মনোবল ,
জনম জনম জখম জর্জরিত জন্মান্ধ মানুষের মন
ঘুরে যাচ্ছে দিশাহীন কাজে , আজেবাজে লাজে অকারণ ।

আমার গল্প – অল্প বৃষ্টি ছুঁয়ে স্বল্প আলোয় স্থির ,
জানা নেই ঠিক আগত – বিগত ইতিহাস জলধির।
ছেড়ে প্রলাপ , সরল আলাপ , বিভ্রান্ত মহেন্দ্র ক্ষন ,
মনের ভেতর কথার খৈ , চোখে অথৈ জলের সন্তোরন।

হাত থেকে নখ ছুঁয়ে জন্মান্ধ চুল ,
ভ্রু কুচকে চকচকে ঘামে পড়ি জীবনের ভুল ।
তোমাকে পড়ছি – তুমি এই অতৃপ্ত পাঠক মনে খরা
তোমাকে পড়লেই পাঠ হয় ধরা ।

চারপাশ অশান্ত , বিশ্বাস বিভ্রান্ত
কষ্ট সব জলন্ত নির্বাক আদিগন্ত –
একবার বলো তো , কে চায়না বসন্ত. !!
তুমি চোখ মেলে যে তাকিয়ে আছো
” বলছি তুমি শোনো ”
হেতুহীন এই তাকিয়ে থাকার মানি কি আছে কোনো !
বলছি শোনো — ।