ঢাকা ২৪শে জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৭ই মহর্‌রম ১৪৪৬ হিজরি


দু’দিনব্যাপী মহাঅষ্টমী পুণ্যস্নান উৎসব

redtimes.com,bd
প্রকাশিত মার্চ ২৫, ২০১৮, ০৯:৪৬ পূর্বাহ্ণ
দু’দিনব্যাপী মহাঅষ্টমী পুণ্যস্নান উৎসব

নারায়ণগঞ্জের বন্দরের লাঙ্গলবন্দে ব্রহ্মপুত্র নদে শুরু হয়েছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের দু’দিনব্যাপী মহাঅষ্টমী পুণ্যস্নান উৎসব। দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে পুণ্যার্থীদের ঢল নেমেছে ব্রহ্মপুত্র নদে। শান্তিপূর্ণভাবে স্নানোৎসব সম্পন্ন করতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। পূণ্যার্থীরাও জানিয়েছেন এবার নির্বিঘ্নে বিভিন্ন ঘাটে তারা পূণ্যস্নান করছেন।
শনিবার সকাল ১০টা ১৩ মিনিট ৫০ সেকেন্ডে শুরু হয় স্নানের লগ্ন। লাখো পূণ্যার্থী উলুধ্বনি দিয়ে মেতে ওঠেন স্নানোৎসবে। ‘হে মহাভাগ ব্রহ্মপুত্র হে লোহিত্য আমার পাপ হরণ কর’ এই পবিত্র মন্ত্র পাঠ করে ফুল, বেলপাতা, ধান, দুর্বা দিয়ে স্নানোৎসবে অংশ নিচ্ছে পূণার্থীরা।
স্নান উৎসব উদযাপন কমিটির সভাপতি পরিতোষ কান্তি সাহা জানান, ভারত, নেপাল, ভুটানসহ দেশ বিদেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে সব বয়সের নারী পুরুষের তীর্থস্থানে পরিণত হয়েছে ব্রক্ষপুত্র নদের তীর। রাজ ঘাট, গান্ধিঘাট, অন্নপূর্ণা ঘাট, প্রেমতলা সহ ১৮টি ঘাটের মাধ্যমে স্নান উৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে।
স্নানোৎসবে আসা পূণ্যার্থীরা জানান, পাপ মোচনের আশায় তারা এই ব্রাক্ষ্মপুৎত্র নদে স্নান করতে এসেছন। এবার নদীর কচুরীপানা পরিষ্কার থাকায় ও যথাযথ নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকায় সন্তোষ প্রকাশ করেন তারা।
এখানকার দেবোত্তর সম্পত্তিগুলো উদ্ধার করে তীর্থস্থানসহ জনগণের উন্নয়নের কাজে ব্যবহারের দাবি জানান আয়োজকরা।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফির রহমান জানান, পূণ্যার্থীদের নিরাপত্তায় পুলিশ, র‌্যাব, আনসারসহ সাদা পোশাকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বিপুলসংখ্যক সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। তিন কিলোমিটার এলাকা জুড়ে বসানো হয়েছে সিসি ক্যামেরা। নিরাপত্তা পর্যবেক্ষণের জন্য রয়েছে ওয়াচ টাওয়ার। প্রশাসনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছাড়াও তীর্থস্থানের পাশে বসানো হয়েছে স্বেচ্ছাসেবী ক্যাম্প। এসব ক্যাম্পে পূণ্যার্থীদের জন্য প্রাথমিক চিকিৎসাসেবাসহ তাদের বিশ্রামের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও দুর্ঘটনা এড়াতে বিপুল সংখ্যক ফায়ার সার্ভিসের কর্মী নিয়োজিত রয়েছেন। পুলিশের কন্ট্রোল রুম থেকে এসব তদারকি করা হচ্ছে।
আগামীকাল রোববার সকাল ৭টা ৫৩ মিনিট ৩০ সেকেন্ডে লাঙ্গবন্দের এই স্নানোৎসবের লগ্ন শেষ হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

July 2024
S M T W T F S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031