দুধ দিয়ে গোসল করে রাজনীতি থেকে বিদায় নেয়ার ঘোষণা

প্রকাশিত: ৭:২৯ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২, ২০১৬

দুধ দিয়ে গোসল করে রাজনীতি থেকে বিদায় নেয়ার ঘোষণা

সিলেট বাংলা নিউজঃ ইউপি নির্বাচনে মাত্র ১৪৯ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হয়ে অনেকটা ক্ষোভ আর দুঃখে দুধ গোসলের মাধ্যমে রাজনীতি থেকে চিরবিদায় ও ভবিষ্যতে নির্বাচন না করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন অলোয়া ইউনিয়নের আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মো. রহিজ উদ্দিন আকন্দ।

বিগত ৫ বছর ওই অলোয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। দায়িত্ব পালনকালে দুই দুইবার উপজেলার শ্রেষ্ঠ ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন রহিজ।

গত নির্বাচনেও তিনি দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন চান রহিজ উদ্দিন আকন্দ।

কিন্তু দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয় ঠিকাদার নুরুল ইসলামকে। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে মোটরসাইকেল প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নেন তিনি। মাত্র ১৪৯ ভোটের ব্যবধানে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো.নুরুল ইসলামের কাছে পরাজিত হন তিনি।

নির্বাচনে নুরুল ইসলাম পান ৫০৩৯ ভোট আর রহিজ উদ্দিন আকন্দ পান ৪৮৯০ ভোট। সামান্য ভোটের ব্যবধানে পরাজয় মেনে নিতে পারেননি রহিজ উদ্দিন আকন্দ।

তাই তিনি ক্ষোভে দুধ গোসলের মাধ্যমে রাজনীতি থেকে চিরবিদায় ও ভবিষ্যতে নির্বাচন না করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন। দুধ গোসলের পর কথা হয় রহিজ উদ্দিন আকন্দের সাথে। অনেকটা ক্ষোভ আর কষ্টে তিনি বলেন, বিগত ৫ বছর চেয়ারম্যান থাকাকালীন এলাকায় ব্যাপক কাজ করেছি।

দুই দুইবার উপজেলার সেরা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলাম। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দলের জন্য অনেক শ্রম দিয়েছি। তারপরও দল আমাকে মনোনয়ন দেয়নি।

কিন্তু তাতেও আমার কোন দুঃখ নেই। জনগণ আমাকে বিপুল ভোট দিয়েছে। আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলাম। আমার ফলাফল পাল্টে দিয়ে ১৪৯ ভোটের ব্যবধানে অন্যজনকে ঘোষণা করা হয়েছে।

যে দলের জন্য এতো শ্রম দিয়েছি সেই দল থেকে কি পেলাম? সিদ্ধান্ত নিয়েছি আর রাজনীতি করবোনা। তাই দুধ দিয়ে গোসল করে পবিত্র হলাম। নিয়মিত ৫ ওয়াক্ত নামাজ পড়বো। আর যতটুকু পাড়ি জনগণের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখবো।

ছড়িয়ে দিন