দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের মাঝে বস্ত্র ও খাদ্য বিতরণ করেছে যুবলীগ

প্রকাশিত: ৯:৪৮ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০২১

দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের মাঝে বস্ত্র ও খাদ্য বিতরণ করেছে যুবলীগ

দেশব্যাপী আওয়ামী যুবলীগের উদ্যোগে করোনায় বিপর্যস্ত অসহায়-দুস্থদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করা হচ্ছে। এই কর্মসূচির ধারাবাহিকতায়  শনিবার রাজধানীর মিরপুর কলেজ মাঠে আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল প্রায় পাঁচশত দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের মাঝে ঈদ বস্ত্র ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন।
এ সময় জাতীয় দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী সংস্থার মহাসচিব মো. আইউব আলী হাওলাদার সংস্থার পক্ষে বক্তব্যকালে সরকারের কাছে আবেদন করে বলেন, প্রতিবন্ধীরা অসচ্ছল, অনগ্রসর বিধায় তাদের করোনার টিকা গ্রহণের জন্য যেন একটি কেন্দ্র নির্ধারণ করে দেয়া হয়। যাতে করে তারা তাদের ভোটারআইডি কার্ড নিয়ে টিকা গ্রহণ করতে পারে। জাতীয় দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীসংস্থা একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন যা একমাত্র দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের সংগঠন হিসেবে পরিচিত। এই সংগঠনের ৬ অরফানেজ রোড বকশিবাজার ঢাকার বাড়িটি স্থায়ীভাবে বরাদ্দ পাওয়ার জন্য ৩০-০৯-২০২০ তারিখে প্রধানমন্ত্রীর বরাবরে আবেদন করাহয়। বিষয়টিপ্রধানমন্ত্রীকে বিবেচনা করার জন্য দাবি জানায় এবং প্রতিবন্ধীদের ভাতা ৭৫০ টাকা থেকে বাড়িয়ে এক হাজার টাকা করারও দাবি জানায় সংস্থার মহাসচিব।
প্রধানঅতিথির বক্তব্যে মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন, যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশের নির্দেশে আমরা সারাদেশে খাদ্য সহায়তা দিচ্ছি। যতদিন এই মহামারী থাকবে ততদিন যুবলীগ মানুষের পাশে থেকে সেবা করে যাবে। আমরা স্বাস্থ্য সেবা, টেলিমেডিসিন সেবা, অক্সিজেন সেবা দিয়ে যাচ্ছি।

যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ যুবলীগকে ইতিবাচক ধারায় ফিরিয়ে নিয়ে এসে ইতোমধ্যেই সফল হয়েছেন। যুবলীগ পরশের নেতৃত্বে আরও বেশি সুসংগঠিত হয়েছে। বিশেষ করে এই বৈশ্বিক করোনা মহামারির সময়ে মানুষের আস্থার প্রতীক হয়ে উঠেছে যুবলীগ। তার ধারাবাহিকতায় করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে প্রায় এক বছর পর ঘোষিত যুবলীগের নতুন পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে যোগ্য, দক্ষ ও পরিচ্ছন্ন ইমেজের ব্যক্তিদের অন্তর্ভুক্তি যুবলীগের চেয়ারম্যান হিসেবে পরশের অন্যতম সাফল্য হিসেবেই বিবেচনা করা যেতে পারে।

 

ছড়িয়ে দিন