ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ার অভাবনীয় সিরিজ জয়

প্রকাশিত: ৮:৪৫ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৫

ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ার অভাবনীয় সিরিজ জয়

এসবিএন ডেস্ক:
ক্যারিবিয়ান গ্রেট স্যার ফ্রাঙ্ক ওরেলের নামে ট্রফিটা।

কিন্তু এই ফ্রাঙ্ক ওরেল ট্রফিকে নিজেদের সম্পত্তি বানিয়ে ফেলেছে অস্ট্রেলিয়া! টানা ২০ বছরের মতো দ্বি-জাতি টেস্ট সিরিজের শিরোপাটা তাদের কাছেই থাকলো।

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে বক্সিং ডে টেস্টে ১৭৭ রানে হারিয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতেছে তারা।

মেলবোর্নে চতুর্থ দিনের খেলা শুরু হওয়ার আগেই অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ দ্বিতীয় ইনিংস গুটিয়ে নেন।

৩ উইকেটে ১৭৯ রানে করেন ইনিংস ঘোষণা। তাতে জ্যাসন হোল্ডারের দলের সামনে ৪৬০ রানের জয়ের টার্গেট দাঁড়ায়।

বিকল্প হিসেবে শেষের দুই দিনের অন্তত ১৮০ ওভার টিকে থাকতে হতো ম্যাচ ড্র করতে।

কিন্তু তা হয়নি। বেশ লড়াই দেখিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তারপরও তাদের দ্বিতীয় ইনিংস শেষ হয়েছে ২৮২ রানে।

চতুর্থ দিনের শেষভাগে জয় তুলে নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

প্রথম ইনিংসে ক্যারিবিয়ানরা ৮৩ রানে হারিয়েছিল ৬ উইকেট। দ্বিতীয় ইনিংসে তা হলো না।

তবে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়েছে তারা। ১ উইকেটে ৬৪ রানে লাঞ্চে যায় তারা।

এরপর চা বিরতিতে গেছে ৪ উইকেটে ১৪৬ রান তুলে।

টপ ও মিডল অর্ডারের সবাই কমবেশি রান পেয়েছেন।

অস্ট্রেলিয়ান বোলারদের মধ্যে উইকেট হচ্ছিলো ভাগাভাগি। চা বিরতির আগে চার উইকেট নিয়েছেন চার বোলার।

ক্রেগ ব্রাথওয়েট (৩১), রাজেন্দ্র চন্দ্রিকা (৩৭), ড্যারেন ব্রাভো (২১), মারলন স্যামুয়েলস (১৯) কিছু রান করেছেন।

তবে ১০০ রানের জুটি হয়েছে ষষ্ঠ উইকেটে।

অধিনায়ক হোল্ডার ও দিনেশ রামদিনের লড়াই হতাশ করছিল স্বাগতিক বোলারদের।

দু’জনেই ফিফটি করেছেন। তবে এই জুটির প্রতিরোধ ভাঙ্গার পর আর তেমন কোনো সুযোগ পায়নি ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

রামদিনের (৫৯) পর হোল্ডারকেও (৬৮) শিকার করেছেন ফাস্ট বোলার মিচেল মার্শ।

শেষের দিকে তিনি একপ্রান্ত থেকে ৩ উইকেট নিয়েছেন। তাতেই বড় ক্ষতি হয়েছে ক্যারিবিয়ানদের।

ম্যাচটাকে শেষ দিনে নিয়ে যেতে পারেনি সম্ভাবনা জাগিয়েও। এই ইনিংসে মার্শ ৪ ও অফ স্পিনার ন্যাথান লায়ন ৩ উইকেট নিয়েছেন।

দুই ইনিংস মিলে ৭ উইকেট নেয়া লায়ন হয়েছেন ম্যান অব দ্য ম্যাচ।