ধর্ম অবমাননার নাম করে শিক্ষকদেরকে লাঞ্ছিত ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে মানববন্ধন

প্রকাশিত: ১১:৩২ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৭, ২০২২

ধর্ম অবমাননার নাম করে শিক্ষকদেরকে লাঞ্ছিত ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে মানববন্ধন

 

 

 

 

ধর্ম অবমাননার নাম করে নড়াইল, নওগাঁ, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারা দেশে শিক্ষকদেরকে লাঞ্ছিত ও গ্রেফতার করার প্রতিবাদে   শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে মানববন্ধন করেছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ও চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র।

চারণ কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন-এর সভাপতিত্বে ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক শোভন রহমানের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি কবি কামরুজ্জামান ভুঁইয়া, শাহজাহান কবীর, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ ঢাকা নগরের সদস্য নাসির উদ্দিন প্রিন্স, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় সভাপতি মুক্তা বাড়ৈ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি রাজীব কান্তি রায়, ঢাকা নগরের সভাপতি অনিক কুমার দাস।

 

সমাবেশে বক্তারা বলেন, নড়াইলে পুলিশের উপস্থিতিতে একদল মানুষ একটি কলেজের অধ্যক্ষের গলায় জুতার মালা পরিয়ে তাকে লাঞ্ছিত করলো, অথচ তাদের কাউকেই আজ পর্যন্ত সনাক্ত করা গেল না। এটি বাংলাদেশের জন্য একটি লজ্জাজনক ঘটনা। এই জুতার মালা আসলে পরানো হয়েছে পুরো বাংলাদেশের গলায়। একদিকে শিক্ষা ব্যবস্থায় বিজ্ঞান শিক্ষাকে সংকুচিত করে শিক্ষাকে পরিচালনা করা হচ্ছে সাম্প্রদায়িক ধ্যান ধারণার ভিত্তিতে, শিক্ষকদেরকে ব্যাস্ত রাখা হচ্ছে শাসকশ্রেণির পদলেহন করতে, অপরদিকে মৌলবাদী নানান গোষ্ঠির সাথে আতাত করে সরকার তার অবৈধ ক্ষমতাকে দীর্ঘায়িত করার জন্য তাদেরকে আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়ে পুষ্ট করছে। আজ যে দল ক্ষমতাসীন হয়ে বসে আছে, তারা নিজেদেরকে প্রগতিশীল, অসাম্প্রদায়িক, মুক্তিযুদ্ধের চেতনার দল বলে নিজেদেরকে দাবি করে, অথচ মৌলবাদী শক্তিকে তোষণ করা ছাড়া তারা ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারছে না। নানামুখি রাষ্ট্রীয় নিপীড়ন ও অগণতান্ত্রিক শাসনের জাতাকলে আজ মানুষের জীবন যখন দুর্বিসহ হয়ে উঠেছে, তখন স্বৈরতান্ত্রিক সরকার আর মৌলবাদ আজকে একে অপরকে রক্ষা করতে জোট বেধেছে। সচেতন জনগণ ও দেশবাসীকে এই চক্রান্তের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড়াতে হবে।