ঢাকা ১৮ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১২ই জিলহজ ১৪৪৫ হিজরি

নওগাঁর মহাদেবপুরে পাওনা ২ হাজার টাকা না পেয়ে ভ্যান চালকে হত্যা- গ্রেপ্তার-২

abdul
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২২, ০৭:১৭ অপরাহ্ণ
নওগাঁর মহাদেবপুরে পাওনা ২ হাজার টাকা না পেয়ে ভ্যান চালকে হত্যা- গ্রেপ্তার-২

 

 

 

রহমতউল্লাহ, নওগাঁ  প্রতিনিধিঃ নওগাঁর মহাদেবপুরে পাওনা দুই হাজার টাকা না পেয়ে ব্যাটারিচালিত ভ্যানের চালক মহসিন আলীকে (২৪) হত্যা করেন সাখাওয়াত হোসেন। পরে মহসিনের ভ্যানটি ছিনতাই করে সান্তাহার পৌরসভার বাসিন্দা প্রদীপ চন্দ্রের কাছে বিক্রি করেন সাখাওয়াত।
আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে নওগাঁর পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান মিয়া তাঁর নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানিয়েছেন।
মহসিন আলী হত্যার ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গতকাল বুধবার বিকেলে মহাদেবপুর উপজেলার কৃষ্ণপুর দক্ষিণপাড়া থেকে সাখাওয়াতকে ও রাতে বগুড়ার সান্তাহার পৌরসভা এলাকা থেকে প্রদীপকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
মহসিন আলী মহাদেবপুরের আটুরা পূর্বপাড়া এলাকার বাসিন্দা। নিখোঁজের ৮ দিন পর গত ২১ জানুয়ারি সন্ধ্যায় উপজেলার হোসেনপুর এলাকার হলুদখেত থেকে মহসিনের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনার পরদিন ২২ জানুয়ারি নিহতের বড় বোন মর্জিনা বাদী হয়ে মহাদেবপুর থানায় অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন। মামলার পর এ ঘটনার তদন্তে নামে মহাদেবপুর থানা–পুলিশ।
সংবাদ সম্মেলনে  আবদুল মান্নান মিয়া বলেন, গত ১৩ জানুয়ারি দুপুর ১২টার দিকে মহসিন ভ্যান নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন। ওই দিন রাতে বাড়িতে না ফেরায় পরিবারের লোকজন বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। কিন্তু কোনো খোঁজ না পেয়ে পরদিন মহাদেবপুর থানায় মর্জিনা বেগম সাধারণ ডায়েরি করেন। ২১ জানুয়ারি লাশ উদ্ধারের পর মর্জিনা বাদী হয়ে মহাদেবপুর থানায় অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন।
পুলিশ সুপার বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাখাওয়াত হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। জিজ্ঞাসাবাদে সাখাওয়াত বলেছেন, মাস দুয়েক আগে সাখাওয়াতের কাছ থেকে মহসিন তিন হাজার টাকা ধার নিয়েছিলেন। পরে মহসিন এক হাজার টাকা পরিশোধ করেন। অবশিষ্ট দুই হাজার টাকা পরিশোধ না করায় সাখাওয়াত তাঁকে চাপ দিতে থাকেন। গত ১৩ জানুয়ারি দুপুরে জরুরি কথা আছে বলে মহসিনকে উপজেলার মাতাজিহাটে ডেকে নেন তিনি। সেখান থেকে তাঁরা ওই ভ্যানে করে রাত নয়টার দিকে উপজেলার মহিষবাথান মোড়ের পাশে হোসেনপুর বালু পয়েন্ট এলাকায় যান। সেখানে ধারের টাকা ফেরত দেওয়া নিয়ে কথা–কাটাকাটির একপর্যায়ে সাখাওয়াত ইট দিয়ে মহসিনের মাথায় উপর্যুপরি আঘাত করে তাঁকে হত্যা করেন।
পরে সাখাওয়াত একটি হলুদের খেতের ভেতরে গাছের পাতা দিয়ে মহসিনের লাশ ঢেকে রেখে ভ্যানটি নিয়ে পালিয়ে যান। পরে সান্তাহারের প্রদীপ চন্দ্র নামের এক ব্যক্তির কাছে সাখাওয়াত ভ্যানটি বিক্রি করেন। সাখাওয়াতের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে প্রদীপ চন্দ্রের বাড়ি থেকে ছিনতাই হওয়া অটোভ্যানের খণ্ড খণ্ড অংশ উদ্ধার করে পুলিশ। আলামত নষ্ট করার অভিযোগে প্রদীপকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
আজ বিকেলে মহাদেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজম উদ্দিন আহমেদ বলেন, আজ দুপুরে আসামিদের আদালতে নেওয়া হয়েছে। আদালতে আসামিরা ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি না দিলে তথ্য-প্রমাণ উদ্ধারের জন্য তাঁদের রিমান্ডে নেওয়ার জন্য আবেদন করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

June 2024
S M T W T F S
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30