নতুন উপলব্ধি

প্রকাশিত: ১১:৪৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ২১, ২০২১

নতুন উপলব্ধি

শাকুর  মজিদ
আগামী দিনের সাহিত্য হয়ে যেতে পারে ওডিওমুখি। মুন্নার পরামর্শে শুনতে শুরু করলাম – গাভী বিত্তান্ত। আহমদ ছফার বিখ্যাত উপন্যাস। এই লেখকের অনেক নাম শুনেছি। কোন বই পড়িনাই। আজ শুনতে শুরু করে অনেকটুকু শুনে ফেলেছি এবং আমি কনভিন্সড। অনেক কম সময়ে কম ঝামেলায় আমি একটা উপন্যাস পড়ার স্বাদ পেয়ে যাচ্ছি। আমার সেল ফোনের সাথে একটা ছোট স্পিকার ব্লুটুথ দিয়ে যুক্ত। এখন আমি অন্য কাজ করার সাথে সাথে উপন্যাসটাও শুনে ফেলতে পারছি। মাঝে মাঝে বিজ্ঞাপনের বিরক্তি আসে, ৩ সেকেন্ড পর্যন্ত শুনতে হয়, এই যা।

আমার মনে হয় , নতুন লেখকেরা দুইনম্বরী প্রকাশকের পেছনে টাকা ও সময় নষ্ট না করে, নিজের লেখাটি ভালো কাউকে দিয়ে সম্পাদনা করিয়ে, ভালো কাউকে দিয়ে রেকর্ড করিয়ে নিজের নামে খোলা একটা ইউ টিউব চ্যানেলে পোস্ট করে দিতে পারেন।
কাগজের অপচয় বাঁচে, আর নিজের টাকা পয়সা কম অপচয় হয়।
আর কাগজের বইয়ের সংখ্যা দিয়ে কখনোই কোন লেখকের মান যাচাই হয় না। আপনি কী লিখলেন তার কতোটা আপনি আরেকজনের কাছে পৌঁছাতে পারলেন সেটাই কথা।
আমার কাছে ই-বুকের চেয়েও সহজ ও সুবিধার মনে হয়েছে ওডিওবুক। অনেক সহজে অনেক অনেক বেশি সংখ্যায় অনেকগুণ বেশি পাঠকের কাছে নিজের লেখা পৌঁছানো যায়।
বোর্ড বাধাই করে কাগজের বই আপনি ছাপাতেই পারেন, কিন্তু কেউ উলটে দেখলো না, মন দিয়ে পড়লো না, তাতে আপনার কোন সন্তুষ্টিই থাকার কথা না।
আমিও আমার কিছু বই ওডিওবুক করে ফেলবো চিন্তা করছি। আর এই দুনিয়ার খবর দিয়ে আমাকে ঋদ্ধ করেছিল ইকরাম কবীর ।

 

শাকুর  মজিদ ঃ বাংলা একাডেমী পদকে ভূষিত লেখক ও নাট্যকার 

ছড়িয়ে দিন