নির্বাচনের আগে ভোটার তালিকা আর হালনাগাদ হচ্ছে না

প্রকাশিত: ২:০৮ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০১৮

নির্বাচনের আগে ভোটার তালিকা আর হালনাগাদ হচ্ছে না

একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে ভোটার তালিকা আর হালনাগাদ হচ্ছে না । নির্বাচন কমিশন এ নিয়ে আর কোনো কর্মসূচি নেবে না ।

সেক্ষেত্রে অক্টোবরের মধ্যে ৩০০ সংসদীয় আসনের ভোটারের সিডি প্রস্তুত ও ভোটার তালিকা মুদ্রণ সম্পন্ন করা হবে।

মঙ্গলবার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে সিইসির সভাপতিত্বে কমিশন সভা শেষে সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান ।

গত জানুয়ারিতে হালনাগাদ শেষে বর্তমানে দেশে প্রায় ১০ কোটি ৪২ লাখ ভোটার রয়েছে। এরাই একাদশ সংসদ নির্বাচনে ভোট দিতে পারবেন।

ইসি সচিব বলেন, “সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ২০১৮ সালের ১ জানুয়ারি পর্যন্ত ভোটারযোগ্য নাগরিকদের তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। এখন আর নতুন করে হালনাগাদ কর্মসূচি নেওয়া হবে না।”

হালনাগাদ কর্মসূচিতে বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করা হয়। বিকল্পভাবে উপজেলায় এসে ভোটার হতে বিশেষ কর্মসূচিও থাকে। কিন্তু এবার তেমন কোনো বিশেষ উদ্যোগ রাখবে না সংস্থাটি।

তবে বাদ পড়া বা যোগ্য কেউ থাকলে চলমান প্রক্রিয়ায় তারা নির্ধারিত পদ্ধতিতে সংশ্লিষ্ট উপজেলার রেজিস্ট্রেশন অফিসারের কাছে গিয়ে ভোটার হতে পারবেন বলে জানান ইসি সচিব।

তিনি জানান, প্রতি বছর ১ মার্চ ‘জাতীয় ভোটার দিবস’ পালনের সিদ্ধান্ত হয়েছে। আগামী বছর দিবসটি প্রথমবারের মতো আড়ম্বরপূর্ণভাবে পালন করা হবে।

ইসি সচিব জানান, তৃতীয় লিঙ্গ রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির পর আগামী বছর থেকে হিজড়া পরিচয়ে তাদের ভোটার নিবন্ধন করা হবে। বর্তমানে তারা নারী বা পুরুষ পরিচয়ে নিবন্ধিত হচ্ছে।

“প্রয়োজনীয় কাজ শেষ করার লক্ষ্যে হিজড়া পরিচয়ে নিবন্ধন করতে সময় লাগবে। তবে কেউ আবেদন করলে তাকে হিজড়া পরিচয়ে নিবন্ধন করা যেতে পারে। আনুষ্ঠানিকভাবে কাজ শুরু হবে একাদশ সংসদ নির্বাচনের পর।”

চলতি বছরের ৩০ অক্টোবর থেকে আগামী ২৮ জানুয়ারির মধ্যে একাদশ সংসদ নির্বাচন আয়োজনের সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

হেলালুদ্দীন জানান, কমিশন সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে-৩০০ সংসদীয় আসনের ভোটার তালিকার সিডি প্রস্তুত ও ভোটার তালিকা মুদ্রণ অক্টোবরে সম্পন্ন করতে হবে। অক্টোবরের শেষে উপযুক্ত সময়ে তফসিল ঘোষণা করবে ইসি।