নৌকায় ভোট না দিলে কেন্দ্রে যাওয়ার দরকার নাই

প্রকাশিত: ৬:৫৫ অপরাহ্ণ, জুন ১২, ২০২২

নৌকায় ভোট না দিলে কেন্দ্রে যাওয়ার দরকার নাই

লালমনিরহাট পাটগ্রাম উপজেলার আসন্ন ৬ নং বাউরা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৫ জুন। এ নির্বাচনে যারা নৌকা মার্কায় ভোট দেবেন না, তাদের ভোট কেন্দ্রে না আসার হুমকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে।
এ ব্যাপারে জেলা প্রশসাক, পুলিশ সুপার, উপজেলা নির্বাচন অফিসা,সংবাদকর্মীসহ একাধিক স্থান বরাবর, ছয় স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর স্বাক্ষরিত অভিযোগপত্র পেশ করেছেন। তারা আরো অভিযোগে উল্লেখ করেন নির্বাচিত প্রচারনা শুরু থেকেই আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা মার্কা চেয়ারম্যান প্রার্থী ও তার সন্ত্রাসী লোকজন বিভিন্ন ভাবে অত্যাচার করে আসচ্ছে। পোস্টার ছেড়াসহ আমাদের কর্মিদের প্রচারনা কাজে বাধা, কর্মিদের মারধরসহ যাবতীয় নির্বাচন প্রচারনাকে স্থগিত করে দিচ্ছে। হুমকী প্রদানে আমাদের চরম ক্ষতি এবং সাধারণ ভোটারগণ তাদের হুমকীর কারণে বর্তমানে ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে। এছাড়ও সাধারণ ভোটারদের হুমকি প্রদান করে বলেন, যারা নৌকায় ভোট দিবে না তাদের ভােট কেন্দ্রে যাওয়ার দরকার নাই। যদি কোন ভোটরা নৌকায় ভোট প্রদান না করে তাহলে তাদের জানে মেরে ফেলবেন। এছাড়ও নৌকার প্রার্থী প্রচারনার সময় আচরণ বিধি লঙ্ঘন করে বলেন আমি একটি ভোট পেলে চেয়ারম্যান। অভিযোগে আরো বলেন পার্শ্ববর্তী দহগ্রাম ইউনিয়ন থেকে গুড্ডিমারী ইউনিয়ন পর্যন্ত চেয়ারম্যানগণ ও তাদের লোকজন প্রতিনিয়ত নির্বাচন বিধিকে উপেক্ষা করে রাত ১০টা পর্যন্ত নৌকা মার্কার প্রচারনা ও আমাদের কর্মীদেরকে হুমকী ধামকী প্রদান করছে । বিশেষ করে গুড্ডিমারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জনাব মোঃ শ্যামল পাটগ্রাম হতে আওয়ামীলীগ সভাপতি বাবু পূর্ণ চন্দ্র ও জোংড়া ইউনিয়নের মকবুল হোসেন ও এমদাদুল মাস্টার উল্লেখ্য যোগ্য । পার্শ্ববর্তী চেয়ারম্যান শ্যামল নিজ হাতে হ্যান্ড মাইক নিয়ে তার দলবল সহ গত( ৮ জুন) রাত দশ ঘটিকার সময় নৌকার প্রচারনা সহ হুমকী ধামকী প্রদান করছে। যাহা বাউরা ইউনিয়নে আমাদের সমর্থক ও কর্মীদের আতঙ্কিত করছে , যার ফলে আমাদের প্রচারনা কাজে নামতে পারছি না বলে অভিযোগে উল্লেখ করেছে।
এব্যাপার পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান নির্বাচন সুষ্ঠু কারার লক্ষে আমারা সজাগ রয়েছি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Calendar

September 2022
S M T W T F S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930