ঢাকা ১৮ই জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১১ই জিলহজ ১৪৪৫ হিজরি

পুঠিয়ার ধলাটে অবৈধ কাকড়ায় মাটি পরিবহনের কারণে রাস্তার বেহাল দশা, জনদুর্ভোগ চরমে

abdul
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২২, ০৯:৪৩ অপরাহ্ণ
পুঠিয়ার ধলাটে অবৈধ কাকড়ায় মাটি পরিবহনের কারণে রাস্তার বেহাল দশা, জনদুর্ভোগ চরমে

 

 

 

 

রাজশাহী প্রতিনিধিঃ রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর ইউনিয়নের শিবপুর হাট ওয়ার্ডের ধলাট- ছান্দাবাড়ীসহ অবৈধ কাকড়ায় মাটি পরিবহন করায় পুঠিয়ার রাস্তা ঘাটের বেহাল দশা দেখা দিয়েছে।

 

 

 

পবিহনের সময় এসব কাকড়া থেকে মাটি রাস্তায় পড়ে এবং বৃষ্টিতে সেই মাটিতে কাঁদাময় হয়ে রাস্তা চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। সরকারের কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা রাস্তা হচ্ছে নষ্ট। আর এ রাস্তা নিমিষেই ধুলোয় মিশিয়ে দিচ্ছে ব্যক্তিস্বার্থে ব্যবহৃত দানবীয় মাটির ট্রাক বা কাকড়া। তারা ভেঙ্গে চুড়ে একাকার করে ফেলছে সরকারের বিভিন্ন সংস্থার নির্মিত নতুন নতুন রাস্তা-ঘাট। বিষয়টি যেন দেখার কেউ নেই।

 

 

 

তারা প্রশাসনের নাকের ডগায় শুধু মাত্র ব্যক্তি স্বার্থেই সরকারের এমন কোটি কোটি টাকা ক্ষতি সাধন করলেও কেউ তাদের বাঁধা দেইনি বা দিচ্ছে না। গত দুই সপ্তাহ আগে পুঠিয়া উপজেলা প্রশাসন এমন বেশ কিছু অবৈধ পুকুর খনন ও কাকড়ার বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালতে প্রায় ৩ লক্ষাধিক টাকা জরিমানা করেছেন।

 

 

 

বর্তমানে পুকুর খনন বন্ধ থাকলেও আজ শুক্রবার বৃষ্টি হওয়ায় পুঠিয়ার বিভিন্ন এলাকায় রাস্তার ভয়াবহ চিত্র দেখা গেছে। স্থানীয়রা জানান, শুস্ক মৌসুমে পুঠিয়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় শুরু হয়েছিলো অবৈধ পুকুর খননের মহোৎসব। যে যার মত পেরেছে শত শত বিঘা দুইতিন ফসলী জমি পুকুর খনন করেছে। পুকুর খননের এসব মাটি তারা সেসময় বিক্রি করেছে বিভিন্ন ব্যাক্তির কাছে যারা নিজ নিজ জায়গা ভরাট করছে। আর এসব মাটি পরিবহন করা হয়েছে অবৈধ যানবাহনে যার স্থানীয় নাম কাঁকড়া। এ কাঁকড়াতে করে মাটি পরিবহনের ফলে সদ্য নির্মিত রাস্তা ঘাট ভেঙ্গে চুড়ে একাকার হয়ে যাচ্ছে।

 

 

 

 

 

উপজেলার বাশপুকুর থেকে দোমাদী ও ধলাট কমরপুরের রাস্তা এবং ছান্দাবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে ধলাট শিবপুর হাট রাস্তায় গত কিছুদিন আগে অবৈধভাবে পুকুর খনন করার মাটি পরিবহনের কারণে আজ বৃষ্টির কারণে রাস্তায় মাটি পড়ে রাস্তার বেহাল দশায় পরিনত হয়েছে।

 

 

 

 

 

 

ছান্দাবাড়ী গ্রামের জাহিদুল ইসলাম টিটু জানান, শুক্রবার বিকালে বৃষ্টি থামার পরে মোটরসাইকেল নিয়ে ছান্দাবাড়ী থেকে শিবপুর বাজারে যাওয়ার সময় রাস্তায় প্রচুর কাদা থাকায় মোটরসাইকেল নিয়ে ছিলিপ করে পরে আমি একটু আহত হয়েছি। আমার মতো আরও অনেকে পরেছে বলে শুনেছি। তাই যাদের কারণে রাস্তার এমন দশা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দরকার বলে তিনি জানান।
কয়েক মাস আগে নতুন রাস্তা নির্মাণ করেছে আর এই রাস্তা দিয়ে মাটির বহনের কাকড়া চলাচল করায় রাস্তা ভেঙ্গেছুড়ে একাকার হয়ে যাচ্ছে।

 

 

 

 

এসব ট্রাকে অতিরিক্ত মাটি তুলে নিয়ে যাওয়ার ফলে রাস্তায় যত্রতত্র মাটি পড়ে বিভিন্ন যানবাহনের মারাত্বক সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে।

 

 

 

 

ধলাট ছান্দাবাড়ির সাধারন পথচারী ও যানবাহন চালকরা জানান, শুক্রবার রাত থেকে সারাদিন বৃষ্টিতে কাদাপানিতে ওইসব রাস্তা একাকার হয়ে গিয়েছে। সেখানে এখন যানবাহন নিয়ে চলাচলে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা।

 

 

 

 

দু’একজন ব্যক্তির এমন স্বার্থে সরকারের এমন বিশাল ক্ষতি ও জনদুর্ভোগ চরমে। তাই এলাকাবাসির দাবি যারা এই রাস্তা দিয়ে মাটি পরিবহন করেছে তারা যেন রাস্তার মাটি পরিস্কার করে দায়। এবং সরকারি রাস্তা ক্ষতি করে যারা এই অবৈধ পুকুর খনন করে রাস্তা দিয়ে কাকড়ায় মাটি পরিবহন করেছে এবং জনগণের চলাচলে যারা অসুবিধা সৃষ্টি করেছে তাদের আইনের আওতায় আনা প্রয়োজন বলে মনে করেন এলাকাবাসি।

 

 

 

 

এ ব্যাপারে পুঠিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুরুল হাই মোহাম্মদ আনাছের সাথে যোগাযোগ করা হলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

June 2024
S M T W T F S
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30