পুনরাবৃত্তি যেন না হয়ঃ নতুন গভর্নর

প্রকাশিত: ৭:৫৭ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৭, ২০১৬

পুনরাবৃত্তি যেন না হয়ঃ নতুন গভর্নর

এসবিএন ডেস্কঃ বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন গভর্নর ফজলে কবির জানিয়েছেন, রিজার্ভের অর্থ চুরির ক্ষতি পোষানোর চেষ্টার পাশাপাশি ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঠেকাতে নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করা হবে।

বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

কাতার এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে ভোরে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান সাবেক অর্থ সচিব ফজলে কবির। যিনি এতোদিন সোনালী ব্যাংকের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

ফজলে কবির সাংবাদিকদের বলেন, “সরকার এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় অর্থমন্ত্রী যে আস্থা রেখে আমাকে যে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দিয়েছেন তা আমি প্রতিপালন করার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করবো।”

গভর্নর হিসেবে প্রথম মিশন কী হবে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে ফজলে কবির বলেন, “প্রথম মিশন তো আপনারা জানেন, এখন যে বিষয়টি রয়েছে.. সম্প্রতি যে বিষয়টি হয়েছে সেটি…। আপনারা দেখবেন, তদন্ত কমিটি হয়েছে, ধরে ধীরে রিপোর্টে আসবে। ইতোমধ্যে যে বিপর্যয় হয়ে গেছে, সেজন্য কোনো ড্যামেজ রিপেয়ার করার দরকার আছে কি না… এর পুনরাবৃত্তি যেন না হয় কখনো, সে বিষয়ে আমরা বাংলাদেশ ব্যাংকের সবাই সচেষ্ট থাকবো।”

অর্থ চুরির বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভের কারো সঙ্গে কথা হয়নি বলে এক প্রশ্নের জবাবে জানান নতুন গভর্নর।

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের ৮ কোটি ডলারের বেশি অর্থ ‘হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে’ লোপাট হয়ে যাওয়ার বিষয়টি গোপন রাখায় চাপের মধ্যে মঙ্গলবার গভর্নরের পদ ছাড়তে বাধ্য হন ড. আতিউর রহমান।

ওই দিনই অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত নতুন গভর্নর হিসেবে ফজলে কবিরের নাম ঘোষণা করেন। এরপর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় বুধবার ৪ বছরের জন্য চুক্তিতে তার নিয়োগের প্রজ্ঞাপন জারি করে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংককে ঢেলে সাজানোর দায়িত্ব নতুন গভর্নরকে দেয়ার ইংগিত দিয়ে অর্থমন্ত্রী বুধবার সাংবাদিকদের বলেন, “বাংলাদেশ ব্যাংকের বিভিন্ন সিস্টেমস রিকোয়ার সিরিয়াস রিফর্মস। ইট ইজ নট ইন এ ভেরি হেলদি কন্ডিশন। দ্যাট ইজ ম্যাই অ্যাসেসমেন্ট দ্যাট কনডিশন ইজ নট দ্যাট হেলদি।”

এছাড়া সাবেক গভর্নর ফরাসউদ্দিনের নেতৃত্বে গঠিত কমিটিও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কোথায় কোথায় সংস্কার প্রয়োজন তা খতিয়ে দেখবে বলে জানান মুহিত।