প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পুরষ্কার গ্রহণ করেছেন এডভোকেট তৌফিকা করিম

প্রকাশিত: ১২:৫২ পূর্বাহ্ণ, মে ১, ২০১৯

প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পুরষ্কার গ্রহণ করেছেন এডভোকেট তৌফিকা করিম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে পুরষ্কার গ্রহণ করেছেন লিগ্যাল এসিসটেন্স টু হেল্পলেস প্রিজনার্স এন্ড পার্সনস (এলএএইচপি) এর চেয়ারম্যান এডভোকেট তৌফিকা করিম। জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান দিবসের অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের আইন ও বিচার বিভাগের জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থা ঢাকার হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল “বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায় শেখ হাসিনার অবদান, বিনামূল্যে লিগ্যাল এইডে আইনি সেবাদান।” আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী আনিসুল হক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। আইন মন্ত্রণালয়ের সচিব আবু সালেহ শেখ মোঃ জহিরুল হক এবং জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থার পরিচালক মো. আমিনুল ইসলাম অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠানে ‘জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস-২০১৯’ উপলক্ষে এবারই কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ সংস্থার পক্ষ থেকে প্রথম বারের মতো শ্রেষ্ঠ লিগ্যাল এইড অফিস, শ্রেষ্ঠ প্যানেল আইনজীবী ও লিগ্যাল এইডের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট শ্রেষ্ট বেরসরকারি সংস্থা ক্যাটাগরিতে তিনটি পুরস্কার প্রদান করা হয়।

রাষ্ট্রের তৃনমূল পর্যায়ে আইন সহায়তা পৌঁছে দিতে সরকারের পাশাপাশি দেশীয় বেসরকারী সংস্থাসমূহ (এনজিও) আইনগত সহায়তা বিস্তারে গঠনমূলক ভূমিকা রাখছে। তাই সরকারী আইনগত কার্যক্রমের স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও কার্যপরিধির বিস্তৃতির উদ্দেশ্যে উৎসাহ প্রণোদনা হিসেবে সেরা বেসরকারী সংস্থা হিসেবে লিগ্যাল এসিসটেন্স টু হেল্পলেস প্রিজনার্স এন্ড পার্সনস (এলএএইচপি) কে সেরা বেসরকারী সংস্থা হিসেবে মনোনয়ন করা হয়।

দিবসটি উপলক্ষে বিকেলে ধানমন্ডি লেকের রবীন্দ্র সরোবরে “ লিগ্যাল এইড ফেয়ার ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান” এর উদ্বোধন করেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের সচিব আবু সালেহ শেখ মোঃ জহিরুল হক। উক্ত অনুষ্ঠানে লিগ্যাল এসিসটেন্স টু হেল্পলেস প্রিজনার্স এন্ড পার্সনস (এলএএইচপি) বিনা মুল্যে রক্তদান কর্মসূচীর আয়োজন করে।

উল্লেখ্য যে, লিগ্যাল এসিসটেন্স টু হেল্পলেস প্রিজনার্স এন্ড পার্সনস (এলএএইচপি) এনজিও বিষয়ক ব্যুরো নিবন্ধিত একটি মানবকল্যাণ ও সেবামূলক সংস্থা যার নিবন্ধন নং-২৫৪৪। এলএএইচপি ২০০৯ সাল থেকে যাত্রা শুরু করে এপ্রিল, ২০১৯ পর্যন্ত বিভিন্ন মেয়াদে ৫৬৫ জন অসহায় কারাবন্দিকে জামিনে মুক্ত করেছে। এই সংস্থাটি বর্তমানে ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী, গাজীপুর, কিশোরগঞ্জ, টাঙ্গাইল, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া, নোয়াখালী, কক্সবাজার, ময়মনসিংহ, জামালপুর, শেরপুর, রাজশাহী, সিরাজগঞ্জ, রংপুর, সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলাসহ সর্বমোট দেশের (২২) বাইশটি জেলায় গরীব, দুস্থ, অসহায় কারাবন্দি ও বিচার প্রার্থীদের আইনগত সহায়তা প্রদান করে আসছে।