প্রযুক্তি ব্যবহারে সতর্কতা প্রয়োজনঃব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) জয়ন্ত কুমার সেন

প্রকাশিত: ৭:২২ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১, ২০১৭

প্রযুক্তি ব্যবহারে সতর্কতা প্রয়োজনঃব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) জয়ন্ত কুমার সেন

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) জয়ন্ত কুমার সেন বলেন,প্রযুক্তি সমাজকে সামনের দিকে নিয়ে যায় । কিন্তু এর ব্যবহারে সতর্কতা প্রয়োজন । প্রযুক্তি ব্যবহার করে সাইবার অপরাধ হয়, আবার একই কারণে অপরাধীরা ধরাও পড়ে । মোবাইল ব্যবহারে বিশ্ব আপনার হাতের মুঠোয় । আবার একই কারণে আপনিও বিশ্বের হাতের মুঠোয় ।আপনি কোথায় আছেন ,কার সঙ্গে কি কথা বলছেন ,সব কিছুই জানা যাচ্ছে সহজে । জয়ন্ত সেন বৃহস্পতিবার বনানীতে বি অ এম এ কার্যালয়ে সাইবার অপরাধ ও অনলাইন মিডিয়া শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন । তিনি জানান,ষাটের দশকের শেষ ভাগে ছাত্র জীবনে তিনি কিছুকাল সাংবাদিকতা পেশায় ছিলেন । ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে তিনি সরাসরি তাতে অংশ নেন । যুদ্ধপরবর্তী কালে সামরিক বাহিনীতে যোগ দেন । কিন্তু সাংবাদিকতা পেশার প্রতি তার শ্রদ্ধাবোধ আজো অটুট আছে । তিনি মনে করেন, বিতর্কিত ৫৭ ধারা বাতিলে সরকারি সিদ্ধান্ত সাংবাদিকদের কারণেই গৃহীত হয়েছে । সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া এসোসিয়েশনের সভাপতি সাবেক অতিরিক্ত আইজিপি ডক্টর আব্দুর রহিম খান পি পি এম । মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন সাধারণ সম্পাদক সৌমিত্র দেব । বক্তব্য রাখেন জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক আহমেদ রেজা ,ডক্টর গোলাম মোস্তাফা ,কবি তামান্না জেসমিন, এ এফ এম লুৎফুর রহমান, টিকে সরকার ও ইঞ্জিনিয়ার রুবেল রানা ।ডক্টর আব্দুর রহিম খান বলেন,সাইবার অপরাধের বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টি করবে অনলাইন মিডিয়া ।অধ্যাপক আহমেদ রেজা বলেন,সাইবার অপরাধ দমন করা খুব জরুরি ।ডক্টর গোলাম মোস্তফা বলেন,সাইবার অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যাবস্থা নিতে হবে । তামান্না জেসমিন বলেন, সাইবার অপরাধের শিকার হচ্ছেন নারী সমাজ ।এ এফ এম লুৎফুর রহমান বলেন ,সাইবার অপরাধ প্রতিরোধে কাজ করবে বি ও এম এ ।ইঞ্জিনিয়ার রুবেল রানা বলেন ,ডোমেইন এর নামকরণ নিয়ে এখনো কোন নীতিমালা না থাকায় সাইবার অপরাধ নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হয়ে পড়েছে । মূল প্রবন্ধ পাঠ করতে গিয়ে সৌমিত্র দেব বলেন, সাইবার মিডিয়াকে কেন্দ্র করে যে সব অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে তা নিয়েও আমাদের ভাবনার সময় এসেছে ।
অনলাইন মিডিয়া পরিচালনার জন্য ডোমেইন এবং হোস্টিং নিতে হয় । এই কাজে বরাবরই হোস্টিং কোম্পানির কাছে নাজেহাল অনলাইন মিডিয়ার মালিক ও সম্পাদকেরা । এ ব্যাপারে কোন সুষ্ঠু নীতিমালা না থাকায় এই সেক্টরটি জিম্মি হয়ে আছে ওই সব কোম্পানির কাছে । প্রচলিত আইনে এদের বিরুদ্ধে কিছু করা যায় না । এ রকমই একজন কুখ্যাত সাইবার অপরাধী শরিফ মাসুম। হোস্টিং করতে গিয়ে প্রথমেই ক্লায়েন্টের ডোমেইন নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে যায় সে । তারপরেই সেই ডোমেইন জিম্মি করে টাকা আদায় করে । তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় জিডি করা হয়েছে । স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে করা হয়েছে লিখিত অভিযোগ । তবু তার কিছু হয় নি । এ ভাবে আরো অনেক শরিফ ও মাসুম তাদের সুন্দর নামের আড়ালে এই কুৎসিত ব্যাবসা চালিয়ে যাচ্ছে ।