বঙ্গবন্ধু হত্যার পেছনে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র ছিল ঃ আইন মন্ত্রী

প্রকাশিত: ১০:৫১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৭, ২০১৯

বঙ্গবন্ধু হত্যার পেছনে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র ছিল ঃ আইন মন্ত্রী

আইন মন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যার পেছনে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র ছিল। জিয়াউর রহমান সরকার গঠনের পর শাহ আজিজুর রহমানকে প্রধানমন্ত্রী করেছিলেন। তিনি পাকিস্তানের দোসরদের নিয়ে মন্ত্রিসভা গঠন করেছিলেন। এতেই প্রমাণিত হয় , জিয়াউর রহমান প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন না। তিনি বাংলাদেশের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করেন নি।
মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে সম্প্রীতি বাংলাদেশ আয়োজিত শোকের মাস, ষড়যন্ত্রের মাস আগস্ট শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন তিনি।


অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান এমপি বলেন, বাঙালি জাতি বঙ্গবন্ধুকে হত্যার কলঙ্কমুক্ত হওয়ার দিন গুণছে। তাই যারা এ হত্যাকা-ের নেপথ্যে রয়েছে তাদের চিহ্নিত করতে হবে।

সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহবায়ক পীযুষ বন্দোপাধ্যায় এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান, সাবেক রাষ্ট্রদূত আতিকুর রহমান, সাবেক সচিব নাসির উদ্দিন, মেজর জেনারেল (অব.) মোহাম্মদ আলী শিকদার, সংগঠনের সদস্য সচিব প্রফেসর ডা. মামুন আল মাহতাব প্রমুখ আলোচনা করেন।




আইন মন্ত্রী বলেন, ২৬ সেপ্টেম্বর ১৯৭৫ সালে ইনডেমনিটি অর্ডিনেন্স জারি করা হয়। এই ইমডেমনিটি অর্ডিনেন্স অর্থই হলো বঙ্গবন্ধু হত্যার কোন বিচার হতে পারবে না। তিনি বলেন,তাদের ষড়যন্ত্র, ২১ বছরের শাসন এবং তাদের বারবার্স আদর্শকে তারা কতটা গভীরে নিয়ে গিয়েছিল, তা বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলা করতে গিয়ে আমরা দেখেছি। বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার বিচার পেতে হাইকোর্টেও বেগ পেতে হয়েছে। হাইকোর্ট বিভাগের ৭ জন বিচারক এই মামলার আপিল শুনতে বিব্রতবোধ করেছেন।

তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিল। বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার তদন্তের সময়ই তার জড়িত থাকার তথ্যটি পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু জিয়াউর রহমান তখন বেঁচে না থাকায় আইনানুযায়ী তাকে অভিযোগ পত্রে আসামী হিসেবে দেখানো যায়নি। একারণে খন্দকার মোশতাককেও বাদ দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার হবে না, এমন ব্যবস্থা করা হয়েছিল। বলেন, আগামী প্রজন্ম জানতে চায়, কেন বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছিল। তার হত্যার বিচারের জন্য কেন ২১ বছর দেশকে অপেক্ষা করতে হয়েছে। কেন নেপথ্যের মানুষদের এখন পর্যন্ত বিচার হয়নি। এ অবশ্যই একটি কমিশন গঠিত হবে।
তিনি বলেন, দেশের জনককে এই হত্যাকা-ের নেপথ্যে যারা ছিল, তাদের চিহ্নিত করে শাস্তি দেওয়ার সুযোগ আমরা পেয়েছি। আমরা সেই সুযোগ ছেড়ে দিবো না। আমরা এই কমিশন ইনশা আল্লাহ গঠন করবোই। মন্ত্রী বলেন, কমিশন গঠন অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি কাজ। অনেকেই বলছেন যে, এই কমিশনকে দিয়ে অন্যান্য যে হত্যাকা- হয়েছে সেগুলোকেও তদন্ত করতে হবে। আমি মনে করি, এই কমিশনকে শুধুমাত্র বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্যের লোকজনকে চিহ্নিত করতে কাজ করার সুযোগ দেয়া উচিত হবে।
মন্ত্রী বলেন, এরশাদের সময়, খালেদা জিয়ার সময় দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের মাধ্যমে বাংলাদেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্র বানানো চেষ্টা করা হয়েছিল। এই ষড়যন্ত্র থেকে আমরা উঠে এসেছি। এখন শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত করেছেন। তিনি বাংলাদেশকে একটা মর্যাদার আসনে বসিয়েছেন। এটাই ছিল তাঁর পিতার কাছে অঙ্গীকার। তাঁর স্বপ্নই হচ্ছে তাঁর পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করা।
তিনি বলে, বঙ্গবন্ধুর কাছে সকল প্রজন্মের ঋণ আছে। এই ঋণ কিছুটা হলেও শোধ করতে হবে। এই ঋণ হচ্ছে তিনি আমাদের একটি দেশ, একটি পতাকা, একটি সংবিধান ও একটি স্বপ্ন দিয়ে গেছেন। তাঁর এই ঋণ শোধ করার জন্য জননেত্রী শেখ হাসিনার পাশে থেকে তাঁর হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। জননেত্রী শেখ হাসিনার ভিশন-২০২১, ভিশন-২০৪১ এবং ভিশন-২১০০ বাস্তবায়ন করতে পারলে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা হবে। বঙ্গবন্ধুর কাছে আমাদের যে ঋণ তা কিছুটা হলেও আমরা শোধকরতে পারবো।

ছড়িয়ে দিন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Calendar

October 2021
S M T W T F S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31