বন্ধু বজলুর অকালমৃত্যু এবং আমাদের করণীয়

প্রকাশিত: ৫:৪৭ অপরাহ্ণ, মে ৩১, ২০২০

বন্ধু বজলুর অকালমৃত্যু এবং আমাদের করণীয়

আমিনুল ইসলাম

বজলুল করিম চৌধুরী আর নেই। করোনা মহামারীর শিকার হয়ে তিনি ছেড়ে গেলেন এই দুনিয়া। তিনি সরকারের সাবেক সচিব এবং ঢাকার সাবেক বিভাগীয় কমিশনার। টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক ছিলেন। তিনি আমার ব্যাচমেট এবং বন্ধু। আমরা বেশকিছুদিন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে একসাথে কাজ করেছিলাম। নিষ্ঠাবান, নিরহংকার এবং অমায়িক। তিনি যখন গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ে এবং পরে রাজউকে, দু’অফিসেই ওর কাছে গেছি অফিসের কাজে। ওর আন্তরিক সহযোগিতায় আবারও মুগ্ধ হয়েছি।

তিনি ২২ মে ২০২০ তারিখ থেকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মুগদা হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। অবস্থার অবনতি হলে তাকে আইসিইউতে ভেন্টিলেশন দেয়া হয়। কিন্তু তিনি আর সুস্থ হয়ে উঠতে পারেননি। আজ ১১-৪০ মিনিটে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। তার অকাল মৃত্যুতে আমি গভীরভাবে শোকহত। তিনি জান্নাতবাসী হউন, এই-ই প্রার্থনা।

করোনায় আরও অনেক মৃত্যুর মতো বজলুর মৃত্যুও আবার জানিয়ে গেল, করোনায় আক্রান্ত হলে বাঁচা না বাঁচা একেবারেই অনিশ্চিত যেহেতু এর আজ পর্যন্ত এর কোনো মেডিসিন নেই। চিকিৎসকদেরও তেমন কিছু করার নেই। ‘প্রতিরোধ’-ই মূল উপায়। সেই লক্ষ্যে নিজস্ব সতর্কতা ও সাবধনতার ওপর সবখানি জোর দিতে হবে। আসুন, আমরা সাধ্যমতো সতর্ক হই! যতখানি সম্ভব হয়, করোনা-সংক্রান্ত নির্দেশনা মেনে চলি!
আমিনুল ইসলাম ঃ কবি ও কর্মকর্তা

ছড়িয়ে দিন