বন্ধ বিডিনিউজ বি ও এম এর প্রতিক্রিয়া

প্রকাশিত: ১১:৫২ অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০১৮

বন্ধ  বিডিনিউজ বি  ও এম এর প্রতিক্রিয়া

সরকারি নির্দেশে বন্ধ হয়ে গেল দেশের প্রথম অনলাইন সংবাদমাধ্যম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর.কম। ১৮ জুন, সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার পর বাংলাদেশের অনেক এলাকা থেকে আর সাইটটিতে ঢোকা যাচ্ছে না।

সংবাদমাধ্যমটি বন্ধের  খবর প্রকাশের পর থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছিলেন অনেকে। নির্দেশনা পাঠানোর পর প্রায় দুই ঘণ্টা চালু ছিল প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইট। সাড়ে ৭টার পর থেকে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে সাইটটিতে ঢুকতে না পারার খবর আসতে থাকে। এখনও দু-একটি এলাকা থেকে সাইটটির দু-একটি সাব ডোমেইনে ঢোকা যাচ্ছে।

এর আগে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর.কম বন্ধে মোবাইল ফোন ও আইআইজি অপারেটরগুলোকে নির্দেশ দেয় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

বিটিআরসি ডোমেইন ব্লক করলেও দেশের বাইরে থেকে সংবাদমাধ্যমটি দেখা যাবে।

এ বিষয়ে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর.কমের বার্তা সম্পাদক মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘বিটিআরসি আজ বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বিডিনিউজ বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে। কেন বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হলো সেটার কারণ এখন পর্যন্ত আমরা জানতে পারিনি, জানার চেষ্টা করছি।’

‘যে মেইলে আইআইজিতে সাইট বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, সেখানে কোনো কারণ বলা হয়নি। আর আমাদেরকেও কোনো স্টেটমেন্ট দিয়ে কারণটা জানায়নি কর্তৃপক্ষ,’ বলেন মনিরুল ইসলাম।

১৮ জুন, সোমবার বিকেলে এক ইমেইলের মাধ্যমে অপারেটরগুলোকে এই নির্দেশ দেওয়া হয়। বিটিআরসির জ্যেষ্ঠ সহকারী পরিচালক তৌসিফ শাহরিয়ারের নামে পাঠানো এক ই-মেইলে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দেওয়া হয়।

বিটিআরসির পাঠানো ওই ইমেইলে বলা হয়, ‘কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নিচের ডোমেইনগুলো অবিলম্বে আপনার আইআইজিতে ব্লক করার নির্দেশ দেওয়া হলো।’

নির্দেশনায় https://www.bdnews24.com/ ও https://m.bdnews24.com/ ডোমেইন দুটি বন্ধ করতে বলা হয়েছে।

ই-মেইল পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (আইএসপিবি) সভাপতি এম এ হাকিম। তিনি বলেন, ‘আমরা এই নির্দেশনা পেয়েছি। তবে শুধু বিডিনিউজটোয়েন্টিফোর বন্ধের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।’

বিডিনিউজ২৪ এর সংবাদকর্মীরা প্রতিবাদের করে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে “খুলে দাও ” লেখা ব্যানার প্রকাশ করেছে। তারা ফেসবুক, ইস্টাগ্রামে তাদের নিজেস্ব প্রোফাইলের ছবি হিসেবে প্রকাশ করেছে এ প্রতিবাদের ভাষা।এ ব্যাপারে বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া এসোসিয়েশন বি ও এম এর  সাধারণ সম্পাদক সৌমিত্র দেব বলেন, আমরা এ বিষয়ে এখনো কিছু জানি না । সব জেনে বুঝে তারপর সাংগঠনিক ব্যাবস্থা নেবো ।