বাংলাদেশকে হালকাভাবে দেখছে না অস্ট্রেলিয়া ?

প্রকাশিত: ১০:৩৬ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২১, ২০১৬

বাংলাদেশকে হালকাভাবে দেখছে না অস্ট্রেলিয়া ?

এসবিএন ডেস্কঃ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের স্বপ্ন এখনও অধরা রয়ে গেছে অস্ট্রেলিয়ার। প্রতিবারের মত এবারও শিরোপার স্বপ্ন নিয়ে ভারতে আসে অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু বিশ্বকাপের শুরুতেই হোচট খান স্টিভেন স্মিথের দল।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বিপক্ষে ৮ রানের বড় পরাজয়ে বিশ্বকাপের যাত্রা শুরু অস্ট্রেলিয়া। সোমবার দ্বিতীয় ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ। ২০১৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর এবারই প্রথম কোনো ম্যাচ খেলতে মাঠে নামবে ২ দল। ২০১৫ ওয়ানডে বিশ্বকাপে ম্যাচখেলার সুযোগ আসলেও বৃষ্টিতে ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়। এছাড়া ওই বছরই বাংলাদেশে আসার কথা থাকলেও নিরাপত্তার কারণে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ স্থগিত করে অসিরা।

২ বছর পর বিশ্বমঞ্চে আবারো মুখোমুখি বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া। মূল মঞ্চে নামার আগে রোববার সংবাদ সম্মেলনে আসেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন অসি অধিনায়ক।

প্রশ্ন : উইকেট কেমন মনে হল?
স্মিথ : উইকেটে ঘাস আছে। ভেজা উইকেট। প্রচণ্ড গরম এখানে। মনে হচ্ছে সেগুলো শুকিয়ে যাবে। মনে হচ্ছে না পূর্বের মত উইকেটে টার্ন থাকবে। খুব ভালো উইকেট।

প্রশ্ন: এ ধরনের উইকেটে তো সচরাচর বড় স্কোর হয়। আগামীকালও কী তা হতে যাচ্ছে?
স্মিথ : অনেকটা আইপিএলের মত উইকেট মনে হচ্ছে। হ্যাঁ, এটা সত্য যে অনেক রান এখানকার উইকেটে হয়। হাই স্কোরিং ম্যাচ। আমারও মনে হচ্ছে আগামীকাল সেরকম কিছু হতে যাচ্ছে।

প্রশ্ন : তাসকিন ও সানীর বিষয়টি তো অবশ্যই শুনেছেন? ফর্মে থাকা দুজন খেলোয়াড় নেই। নিশ্চিতভাবেই আপনাদের সাহায্য করবে?
স্মিথ : না এরকমটা ভাবছি না। তাদের দুজনের বাদেও ভালো বোলিং আক্রমণ বাংলাদেশের রয়েছে। আমরা কোনোভাবেই তাদেরকে হাল্কাভাবে নিচ্ছি না। আমরা আমাদের পরিকল্পনামত কাজ করব। যদি আমরা তা করতে পারি তাহলে আমরা সফল হব।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ গত এক-দেড় বছর ধরে বেশ ভালো ক্রিকেট খেলছে। আপনাদেরও চ্যালেঞ্জ জানাতে তারা প্রস্তুত..
স্মিথ : তারা যথেস্ট উন্নতি করেছে। চন্দিকা হাথুরুসিংহে পুরো দলটাকে পাল্টে দিয়েছে। আমি তার অধীনে নিউ সাউথ ওয়েলসে কোচিং করেছি এবং যথেস্ট কিছু শিখেছি। আমি মনে করি বাংলাদেশ আমাদের কাল চ্যালেঞ্জ জানাতে পারে। সেজন্য আমরা সতর্ক আছি।

প্রশ্ন : তাহলে কি কাল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ কোনো ম্যাচ হচ্ছে?
স্মিথ : ম্যাচটি কঠিন হবে এতে কোনো সন্দেহ নেই। আমি আবারো বলছি বাংলাদেশ যথেস্ট উন্নতি করেছে। তাদের বেশ কয়েকজন ম্যাচ উইনার রয়েছে। তাদের বিপক্ষে ম্যাচ জিততে হলে আমাদেরকে সেরা ক্রিকেট খেলতে হবে।

প্রশ্ন :হাথুরুসিংহের অভিজ্ঞতাকে কাজে আসবে? কী মনে হচ্ছে?
স্মিথ : আমি নিশ্চিত করে বলতে পারছি না হাথুরুসিংহের অভিজ্ঞতা বাংলাদেশের কাজে আসবে কি না। আমরা আমাদের কম্বিনেশন ও আমাদের ক্রিকেটারদের ওপর বিশ্বাস রাখছি। এখানকার কন্ডিশনে কিভাবে খেলতে হয় সে সম্পর্কে ধারণা আমাদের ক্রিকেটারের আাছে। হয়তোবা আমরা প্রথম ম্যাচে কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারিনি। আমরা বাংলাদেশের থেকে কী প্রত্যাশা করছি সেটা আমি জানি। আমরা লড়াইয়ের জন্যে প্রস্তুত।

ছড়িয়ে দিন