বাংলাদেশের আইটিখাতে বিনিয়োগ করবে জাপান

প্রকাশিত: ৩:৩৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৭, ২০১৮

বাংলাদেশের আইটিখাতে বিনিয়োগ করবে জাপান

 

বাংলাদেশের তথ্য প্রযুক্তিখাতে ব্যাপকভাবে বিনিয়োগ এবং বাংলাদেশের কম্পিউটার প্রকৌশলীদের জাপানে কর্মসংস্থানের আগ্রহ প্রকাশ করেছে জাপান।জাপান এক্সটারনেল ট্রেড অরগানাইজেশন (JETRO) এর কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টিটিভ ডক্টর আরাই এর নেতৃত্বে জাপানের ১০টি খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানের 15 সদস্য বিশিষ্ট এক ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দল আজ ডাক, টেলিয়োগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের সাথে স্বাক্ষৎকালে এই আগ্রহের কথা ব্যক্ত করেন। উল্লেখ্য, JETRO জাপানের ট্রেড এন্ড ইন্ডাস্ট্রি মিনিস্ট্রির অধীন একটি প্রতিষ্ঠান।
প্রতিনিধি দল মন্ত্রীকে জানান, জাপানে বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানে প্রচুর আইটি ইঞ্জিনিয়ারের চাহিদা রয়েছে। তারা বাংলাদেশি কম্পিউটার প্রকৌশলীদের ভূয়শী প্রসংশা করে বলেন, এদেশের আইটি ইঞ্জিনিয়াররা অত্যন্ত দক্ষ ও পরিশ্রমী। তাই তাদের বিভিন্ন আইটি প্রতিষ্ঠানের জন্য বাংলাদেশ থেকে প্রাথমিকভাবে তারা চারশ আইটি ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগ করতে চায়। প্রতিনিধি দল গমনইচ্ছুক প্রকৌশলীদের জাপানী ভাষা শিক্ষার উপর গুরুত্বারোপ করেন। উল্লেখ্য, গত কয়েক মাসে জাপানে বাংলাদেশের তিনশতাধিক আইটি ইঞ্জিনিয়ারারের কর্মসংস্থান হয়েছে।  গত মে মাসে তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার ‘Japan IT Wee’ এ অংশগ্রহণ করেন। এসময় তিনি JICA, RECRUIT সহ নয়টি খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহীদের সাথে বাংলাদেশরে আইটি খাতের উজ্জ্বল সম্ভাবনা নিয়ে মতবিনিময় করেছেন।  মতবিনিময়ের ফলোআপ হিসেবে  কোম্পানির প্রতিনিধি দলের সদস্যগণ বাংলাদেশে সফর করছেন। তিনি জাপানে কর্মরত বাংলাদেশি কম্পিউটার প্রকৌশলীদের সাথেও মতবিনিময় করেছেন।
তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী বলেন, জাপান বাংলাদেশের  বন্ধু ও উন্নয়ন সহযোগী। জাপান বাংলাদেশের ভালো ব্যবসা ক্ষেত্র। অনুরূপভাবে বাংলাদেশও জাপানের উত্তম ব্যবসা স্থান। তিনি প্রতিনিধি দলকে জানান, বাংলাদেশে আইসিটি বিভাগের অধীনে বিভিন্ন ভাষা শেখানোর জন্য “সারা দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার ও ভাষা প্রশিক্ষণ ল্যাব স্থাপন” প্রকল্প চালু রয়েছে। সেই প্রকল্পের অধীনে ৬৫টি ল্যাবে জাপানী ভাষাসহ বিভিন্ন ভাষা শেখানো হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে বিদেশী বিনিয়োগকারীদের জন্য চমৎকার পরিবেশ বিরাজ করছে। বর্তমান সরকার দেশে উচ্চ প্রযুক্তি নির্ভর শিল্প গড়ে তুলতে বিভিন্ন স্থানে হাই-টেক পার্ক গড়ে তুলছে। আইটি খাতে বিনিয়োগের জন্য সরকার হাট-টেক পার্কে জমি বরাদ্দ প্রদান, শতকরা ১০% ক্যাশ ইনসেন্টিভ, ১০ বছর ধরে ট্যাক্স হলিডে প্রদান, নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ, যোগাযোগসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা প্রদান করছে। ইতোমধ্যে এসব পার্কে আগ্রহী হয়ে উঠেছে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা। SAMSUNG ও HUAWEI সহ বিভিন্ন কোম্পানি মোবাইল ফোন, ট্যাব, ল্যাপটপ ও এসব এর যন্ত্রাংশ উৎপাদন শুরু করেছে। কালিয়াকৈর হাই-টেক পার্কে শ্রীলঙ্কা, কোরিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, চীন এবং সৌদি আরবের কয়েকটি প্রতিষ্ঠান শিল্প কারখানা স্থাপন করার জন্য কার্যক্রম শুরু করেছে। তিনি জাপানী বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে আইটি খাতসহ বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগের মাধ্যমে সরকার প্রদত্ত সুযোগ-সুবিধা গ্রহণের আহ্বান জানান।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

লাইভ রেডিও

Calendar

April 2024
S M T W T F S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930