বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৮:০৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২০, ২০২১

বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশ থেকে উন্নত দেশের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছে। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে ।
আজ দিনাজপুরের বিরল উপজেলা পরিষদের অডিটরিয়ামে শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র ও অস্বচ্ছল শারীরিক প্রতিবন্ধীদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বিরল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সবুজার সিদ্দিক সাগরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান একেএম মোস্তাফিজুর রহমান বাবু ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক রমাকান্ড রায় প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘করোনা মহামারির পরিস্থিতিতে বাংলাদেশসহ সমগ্র পৃথিবী একটি কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি দাঁড়িয়েছে। ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে এখন পর্যন্ত একটি ভিন্ন রকম পরিবেশে জীবন যাপন করছি। করোনাকে মোকাবেলার জন্যে সমগ্র পৃথিবী নিরলসভাবে মেধা, মনন ও শক্তি বিনিয়োগ করেছে। এ মহামারী করোনার মধ্যেও বাংলাদেশের রিজার্ভ ৪৩ বিলিয়ন ডলার দাঁড়িয়েছে। এই করোনার মধ্যেও মাথাপিছু আয় ২ হাজার ডলার ছাড়িয়ে গেছে। বাংলাদেশের জিডিপি এখনো প্লাস আছে।’

খালিদ মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৬ কোটি মানুষকে নিয়ে বিচক্ষণতার সাথে করোনা মোকাবেলা করে আসছেন।

 

তিনি বলেন, বাংলাদেশের স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা ধারণা করেছিল যে ঘনবসতিপূর্ণ দেশে হাজার হাজার, লাখ লাখ মানুষের জীবন বিপন্ন হতে পারে; অর্থনৈতিক, সমাজ, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থা বিপর্যস্থ হওয়ার ব্যাপক সম্ভাবনা দেখা দিতে পারে এবং বাংলাদেশ অন্ধকারের দিকে চলে যেতে পারে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে এই কঠিন পরিস্থিতির মোকাবেলা করতে হয়নি।

 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার মতো একজন যোগ্য নেতৃত্ব থাকলে একটি জাতি কিভাবে দুর্যোগ মোকাবেলা করতে পারে, তা আমরা সমগ্র পৃথিবীকে জানিয়ে দিতে সমর্থ হয়েছি। করোনা পরিস্থিতি সুন্দরভাবে মোকাবেলা করার জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছে।

 

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ, বাংলাদেশের প্রতিটি শিশু স্কুলে যায়, মানুষেরা চিকিৎসা পায়। করোনা ভ্যাকসিন আসছে; আমরা প্রত্যেকটি মানুষকে ভ্যাকসিন দিব শুধু তাই নয়, বিনামূল্যে প্রদানের ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষের কোন অভাব নাই। খাদ্য-বস্ত্রের কোন অভাব নাই। বাংলাদেশের প্রত্যেকটি মানুষ যাতে গৃহ পায় সে লক্ষ্যে সরকার কাজ করছে। মানুষের মৌলিক চাহিদাগুলো পূরণ করা হচ্ছে।

বাসস: