বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বাড়াতে নতুন ক্ষেত্র খুঁজে বের করবে বাংলাদেশ ও ভুটান

প্রকাশিত: ১১:৫৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৪, ২০২১

বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বাড়াতে নতুন  ক্ষেত্র খুঁজে বের করবে বাংলাদেশ ও ভুটান

বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বাড়াতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইটি), কৃষি, হর্টিকালচার, পর্যটন এবং মৎস্যসহ আরও নতুন নতুন সহযোগিতার ক্ষেত্র খুঁজে বের করতে পারে বাংলাদেশ ও ভুটান।

বাংলাদেশ সফররত ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং আজ বুধবার বিকেলে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। এ সময় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এ কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি সফররত বিদেশি অতিথিকে বলেন, ‘দুই দেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য, কানেকটিভিটি, শিক্ষা, সাংস্কৃতিক বিনিময়, জনগণের পর্যায়ে যোগাযোগ এবং পর্যটনের ক্ষেত্রে চমৎকার সহযোগিতা বিরাজ করছে। দুটি দেশই আইসিটি, কৃষি, হর্টিকালচার এবং মৎসসহ আরও নতুন সহযোগিতার ক্ষেত্র খুঁজে বের করতে পারে।’

রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। রাষ্ট্রপতি ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে ভুটানের সমর্থনের কথা স্মরণ করে ভুটান সরকার এবং সেদেশের জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বলেন, ‘ভুটান বাংলাদেশের খুবই বিশ্বস্ত বন্ধু। ভুটানের সঙ্গে বাংলাদেশের চমৎকার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক রয়েছে এবং এই সর্ম্পক দিন দিন বাড়ছে।’

বাংলাদেশ সফররত ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং বুধবার বঙ্গভবনে পৌঁছালে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ তাঁকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান। ছবি : ফোকাস বাংলা
রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উৎসবে যোগ দেওয়ায় ভুটানের প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান।

ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং ঐতিহাসিক দুটি উৎসবে যোগ দিতে বাংলাদেশে তিনদিনের সরকারি সফরে গতকাল মঙ্গলবার সকালে ঢাকায় আসেন।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ভুটানে বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করায় সেদেশের সরকার ও জনগণকে বিশেষ ধন্যবাদ জানান। দেশটিতে হাজার হাজার প্রদীপ জ্বালিয়ে এবং স্মারক ডাক টিকিট প্রকাশ করে উৎসব পালন করা হয়।

আনুষ্ঠানিক দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শুরুর আগে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদকে একটি স্মরক ডাক টিকিট উপহার দেন। বাংলাদেশে এই ঐতিহাসিক উৎসবে ডা. শেরিংকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য তিনি বাংলাদেশ সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতে বিশেষ করে আর্থ-সামাজিক এবং নারীর ক্ষমতায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বের প্রশংসা করেন।

এ সময় অন্যদের মধ্যে রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বঙ্গভবনের সংশ্লিষ্ট সচিবরা উপস্থিত ছিলেন।

Calendar

April 2021
S M T W T F S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  

http://jugapath.com