বিকল্প গণমাধ্যম ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ

প্রকাশিত: ১:৪৬ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৪, ২০১৮

বিকল্প গণমাধ্যম ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ

শরিফুল ইসলাম শরিফ

গত ২৯ জুলাই,রোববার রাজধানীর এয়ারপোর্ট সংলগ্ন কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনে জাবালে নূর নামে একটি পাবলিক বাসের চাপায় শহীদ রমিজ উদ্দিনের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু ও ৬ জন শিক্ষার্থী আহত হওয়ায় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা রাস্তা অবরোধ বিক্ষোভ শুরু করে। এ সময় তারা জাবালে নূরসহ বেশ কয়েকটি পাবলিক বাস ভাংচুর করে। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে পরিবহন শ্রমিকদের নেতা নৌমন্ত্রী শাহজাহান খান সাংবাদিকদের সামনে বিতর্কিত বক্তব্য রাখেন।যা ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার পাশাপাশি অনলাইন গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। যা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে ব্যাপকতা লাভ করে।যার ফলে দুই শিক্ষার্থীদের মৃত্যুর প্রতিবাদ ও বিচারের দাবিসহ ৯ দফা দাবির আন্দোলনটি এক বিশাল গণ আন্দোলনে রূপ নেয়। টানা ৬ দিন ধরে এই আন্দোলনটি অব্যহত রয়েছে।
“নিরাপদ সড়ক চাই” এই স্লোগানে মুখরিত রাজধানীর রাজপথ। যার মূল উত্থানের মাধ্যম হিসেবে অনলাইন ও বিকল্প সব সামাজিক গণমাধ্যম। বিক্ষোভের নানা চিত্র ফেসবুক লাইভ ও ভিডিও আপলোডের মাধ্যমে এই আন্দোলনটি ব্যাপক বিস্তার লাভ হয়। নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনটি মূলত বিকল্প গণমাধ্যম নির্ভর আন্দোলন। বিকল্প গণমাধ্যম নির্ভর এ ধরনের আন্দোলন যেমন গণমানুষের কথা বলে পক্ষান্তরে একটি গুষ্ঠী ফায়দা হাসিলের জন্য এই আন্দোলনকে ভিন্নখাতে পরিচালিত করার চেষ্টা করে। আর এর জন্য মিথ্যা ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা বিকল্প গণমাধ্যমে ছড়িয়ে উস্কানি দেয়।সিরিয়ার আসাদ সরকার বিরোধী আন্দোলনটি উল্লেখ্যযোগ্য একটি নজির। তাই সরকার অনলাইন নীতিমালার ব্যাপার আরও সতর্ক ভূমিকা রাখবে বলে আমরা মনে করি । বিকল্প গণমাধ্যম ও অনলাইন গণমাধ্যমের জনপ্রিয়তা দিন দিন যেমন বৃদ্ধি পাচ্ছে তেমনি এই মাধ্যমের সাহায্যে সমাজে নানা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে কিছু সাইবার অপরাধী । এ ব্যাপারে বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সৌমিত্র দেব জানান ,মিথ্যা ও অতিরঞ্জিত সংবাদ পরিবেশন অনলাইন গণমাধ্যমের মান ক্ষুন্ন করে । তাই আসুন আমরা বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করি ।