বিদেশী কর্মী কমোনোর পরিকল্পনা সৌদি আরবের

প্রকাশিত: ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৫

বিদেশী কর্মী কমোনোর পরিকল্পনা সৌদি আরবের

এসবিএন ডেস্ক:
সৌদি আরব বিদেশী কর্মীর ওপর থেকে নির্ভরতা কমাতে পরিকল্পনা গ্রহণ করছে। নিবিড়ভাবে বিনিয়োগ পর্যবেক্ষণ ও উচ্চ প্রযুক্তি জ্ঞানসম্পন্ন সৌদি শ্রমিকদের নিয়োগের মাধ্যমে এটি করা হবে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার।

সৌদি অর্থমন্ত্রী ইব্রাহিম আল-আসাফ গতকাল সোমবার বাজেট অধিবেশনে বলেন, বাছাইকৃত বিদেশী কর্মী নিয়োগ দেয়া হবে।

আর সৌদি কর্মীদের বিভিন্ন খাতের জন্য দক্ষ করে গড়ে তুলতে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে।

বিদেশী কর্মীদের ওপর থেকে নির্ভরতা কমানোর পরিকল্পনাটি অত্যন্ত যৌক্তিক বলে মন্তব্য করেন ইব্রাহিম।

তিনি বলেন, রিয়াদের মেট্রো ও বড় পরিবহন প্রকল্পের সময় এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে।

আরব নিউজের খবরে বলা হয়, বিশ্বে তেলের দামে ধস নামায় বাজেট ঘাটতি কমাতে বিভিন্ন পরিকল্পনা গ্রহণ করছে সৌদি সরকার।

সোমবার সৌদি সরকার ৮৪ হাজার কোটি রিয়ালের বাজেট ঘোষণা দিয়েছে। এতে আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৫১ হাজার ৪০০ কোটি রিয়াল। আর বাজেট ঘাটতি ধরা হয়েছে ৩২ হাজার ৬০০ কোটি রিয়াল। এবার তেল বিক্রি থেকে ৭৩ শতাংশ আয় নির্ধারণ করা হয়েছে।

তবে ব্যক্তির আয়ের ওপর কর আরোপের কোনো পরিকল্পনা নেই বলে জানান ইব্রাহিম। তিনি জানান, বহিরাগতদের আয়ের ওপরও করারোপের কোনো পরিকল্পনা নেই।

সৌদি আরবে ১০ লাখ বিদেশি কর্মী কাজ করেন। এর মধ্যে ভারত, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ ও আফ্রিকার কয়েকটি দেশের নাগরিকই বেশি।

আর যুক্তরাষ্ট্র ও পশ্চিমা অন্য দেশগুলোর এক লাখ ২৫ হাজার কর্মী সৌদি আরবে কাজ করেন। বিদেশী নাগরিকদের আয় থেকে কোনো প্রকার কর নেয় না সৌদি সরকার।

তবে গতকাল সোমবার সৌদি অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে জানানো হয়, এমনটি সব সময় চলবে না।

ছড়িয়ে দিন