বৃহস্পতিবার থেকে পূর্ণ দিবস কর্ম বিরতিতে যাচ্ছেন কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপি’গণ

প্রকাশিত: ১:৩০ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৬

বৃহস্পতিবার থেকে পূর্ণ দিবস কর্ম বিরতিতে যাচ্ছেন কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপি’গণ

এসবিএন: চাকুরী জাতীয়করণ, ইনক্রিমেন্টসহ বকেয়া বেতন ভাতা প্রদানের দাবীতে কমিউনিটি ক্লিনিকে কর্মরত কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার সিএইচসিপি’র কেন্দ্রীয় সংগঠন বিসিএইচসিপিএ ঘোষিত কর্মসূচির আওতায় সিলেটের সকল কমিউনিটি ক্লিনিক গুলোতে ১৮ ফেব্রুয়ারী ১৬, বৃহস্পতিবার পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি পালন করবে।

বিসিএইচসিপিএ দাবী আদায় কমিটির সদস্য ও সিলেট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিক থেকে মাসে গড়ে ৮০-৯০ লাখের উপরে গ্রামীণ হতদরিদ্র জনগন সেবা গ্রহণ করে এবং সাড়ে ১১ হাজার সাধারণ প্রসব সম্পাদিত হয় কিন্তু একটি মা ও শিশু মারা যায়নি।

কমিউনিটি ক্লিনিকের কল্যাণে মাতৃ মৃত্যু ও শিশু মৃত্যু হ্রাস পেয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতীসংঘ থেকে সাউথ সাউথ এওয়্যার্ডে ভূষিত হয়েছেন।

কিন্তু দুঃখজনক হলেও এই সফলকতার কারিগর কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডারগণ নিয়মিত বেতন বোনাস পায় না, এমনকি ঈদে পূজায় সময়মতো বেতন বোনাস পাওয়া যায় না।

আমরা ৫ বছর থেকে একই বেতনে চাকুরী করছি। আমাদের দাবী নিয়ে স্থানীয় এমপি, অর্থমন্ত্রী, স্বাস্থ্যমন্ত্রীসহ সরকারের গুরত্বপূর্ণ ব্যক্তির দ্বারস্থ হয়েছি।

সকলে আমাদেরকে আশ্বস্ত করেছেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রনালয় ও প্রকল্প অফিস থেকে জাতীয়করণের জন্য বারবার লিখিত ও মৌখিক আশ্বাস প্রদান করলেও তা বাস্তবায়ন হয়নি।

১৪ হাজার সিএইচসিপিদের মধ্যে সাড়ে ৪ হাজার মুক্তিযোদ্ধার সন্তান রয়েছেন। আমাদের অধিকাংশের সরকারী চাকুরীর বয়স শেষ।

উপায়ান্তর না দেখে আমরা কর্মবিরতির মতো কঠিন কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। দাবী আদায় না হলে আগামী ২৩শে ফেব্রুয়ারি কমিউনিটি ক্লিনিক প্রকল্পের কার্যালয়ে প্রতিকী অনশন করবো।

আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কৃপাদৃষ্টি কামনা করি। উল্লেখ্য কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপি’গণ চলতি মাসের ১ তারিখ থেকে অনলাইন ও হাতে লেখা রিপোর্ট প্রদান বন্ধ রেখেছেন। এভাবে চলতে থাকলে তৃণমূলের স্বাস্থ্য সেবা কার্যক্রম ভেঙে পড়বে।