বয়ানে রামাদান ০৬

প্রকাশিত: ১০:৩৯ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৯, ২০২০

বয়ানে রামাদান ০৬

চৌধুরী হাফিজ আহমদ
সিয়াম এবং কিয়াম সবার কিসমতে নাই । অনেকে বলে যারা ধর্ম পালন করে তাহারা অন্ধ বা পাগল ,এরা কিসের জন্য সিয়াম সালাত এই গুলা পালন করে নিজেরাও জানেনা । যারা বলে ওরা তা হলে এমন কিছু করে দেখায়নি কেন । যা জীবন কে সচল করে জিবন্ত রাখে এখন পর্যন্ত কোন মতবাদ সিয়াম সালাত এর বিকল্প কিছু করে দেখাতে পারেনি – সমাজতন্ত্র – পুঁজিবাদ – গনতন্ত্র – মানুষের কল্যানের জন্য কিছুই করতে পারেনি যাহাতে মানুষ আকৃষ্ট হয় এবং শান্তি পায় দিশেহারা মানুষ যখন পথ পায়না অশান্ত হৃদয় যখন নীড় খুজে পায়না তখনি আসে ইসলামের আদর্শে কারন হচ্ছে এই পৃথিবীতে মানুষের মুক্তির জন্য একমাত্র আদর্শ হচ্ছে ইসলাম এখানে যেমন রয়েছে সমাজতন্ত্র- গনতন্ত্র – তেমনি রয়েছে পরকালতন্ত্র যখনি মানুষ ভয় পায় তখন যদি সাথে কেউ থাকে তখন সাহস আপনা আপনি আসে ঈমানদার রা কখনো একা হয়না একা থাকেনা সয়নে স্বপনে বাস্তবে কর্মে লেনদেনে সামাজিকতায় সর্বত্র সাথী হচ্ছেন আল্লাহ সুবহানাহু তায়ালা যখন সে প্রভুকে সাথী পায় তখন পাপ কারয্য করা তো দূরে থাক চিন্তা ও করতে পারবেনা অবৈধ কিছু করার কারন যিনি সাথী তিনি দেখছেন সকল কর্মকাণ্ড সেই কারনেই ঈমান আনার কথা বলা হয়েছে ঈমান বিহীন জীবন একদম অসাড় যাহাদের ঈমান আছে তাহারাই শুধু মাত্র সিয়াম সালাত করতে পারবে নতুবা শত চেষ্টা করলে তার দ্বারা এই সব মেহনতি কাজ সম্পাদন করা সম্ভব নয় সিয়াম সালাত কিয়াম এইগুলা সহজ নয় খুব কঠিন ভোর রাতে জেগে সালাত আদায় করার মত কষ্ট সামান্য আহার করে ূর্য উদয় থেকে অস্ত যাওয়া পর্যন্ত উপোষ করার মত কষ্ট নিজের পরিশ্রমে অর্জিত সম্পদ থেকে কিছু বিলিয়ে দেবার মত কষ্ট আর কিসে আছে ? ত্যাগের কথা বললেই কেউ রাজী হয়না সেখানে নিয়ম কানুন মেনে চলা সহজ নয় তাই রামাদানের সিয়াম সালাত খুব কঠিন কিন্তু এই কঠিনতাকে ঈমানদারেরা হাসি মুখে পালন করতে পারে আর তাহাই হচ্ছে ঈমানের শক্তি । আজকে আমাদের চলছে ষষ্ট দিন রামাদান মাসের আমরা পালন করছি সানন্দে তবে কতটুকুন সফল হতে পেরেছি তা বলা মুশকিল তবে আশা আল্লাহ আমাদের সিয়াম সালাত কিয়াম কে কবুল করে সকলার প্রতি তাহার রহমতের ঝরি বর্ষণ অব্যাহত রাখবেন ‍- এবং আগামি দিনে আরও ভাল করে ইবাদত বন্দেগী করার তাওফিক দেবেন রামাদানের অনেক আকর্ষণ আছে চমকের পর চমক এতে এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে কোরআন মাজিদের চর্চা করা , যাহাকে তিলাওয়াত বলা হয় এমন করে বুঝা যে আমরা যেন এর থেকে আলো বা শিক্ষা অর্জন করতে পারি সকল মাসের রাজা এই মাসেই জন্ম হয়েছে আল- কোরআনের আর সেখানেই রয়েছে সিয়ামের ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য কখন ইফতার করতে হবে সেহরীর নিয়ম কি কেমন করে সংযম পালন করব কিভাবে নিজেকে অশ্লিলতা যৌনতা থেকে বিরত রাখব কাহাকে কাহাকে দান দিব দানের পরিমান কত ইত্যাদি বর্ণনা , আমি প্রায় ই বলি বা বলেছি আমার রামাদান আলচনায় নিজেকে পরিবর্তন না করলে বা অভ্যাসের উন্নতি না ঘটালে সিয়ামের সফলতা আসেনা , সারা জীবন চলেছি নিজের খেয়াল খুশী মত যা ইচ্ছে তাই করেছি ঘুষ নিয়েছি সুদে জড়িয়েছি – জেনা করেছি – জুয়াতে – মদ পানে – জুলুমে -সব অন্ধকার জগতের করেছি কিন্তু রামাদান এলেই সাধু সাজলাম এতে পাপ মোচন হবেনা যতক্ষন না একদম খাঁটি তাওবা করবো , সোজা কথা নিজেকে পরিবরতন না করব তাওবা করে আবার যদি সেই অন্ধকার জগতে ফিরে যাই তা হলে তাওবা যাবে বিফলে এর কোন মর্যাদা থাকবেনা আল্লাহর কাছে তা কবুল হবেনা । তাই নিজেকে সম্পূর্ণ ভাবে পরিবর্তনের নিয়তে রামাদানের সিয়াম সালাত আদায় করে নিজেকে আল্লাহর কাছে সমর্পণ করতে পারলেই ক্ষমার আশা করা যায় অন্যতায় তা সম্ভব হবেনা ,তাই বলব ঈমানদারেরা পাগল নয় বা বোকা নয় এরাই হচ্ছে বুদ্ধিমান কারন সমাজতন্ত্র কিংবা গনতন্ত্র পরকালের ব্যাপারে নীরব জাণ্ণাত জাহান্নামের ব্যাপারে তাহাদের কোন বক্তব্য ই নেই এমন কি পরকাল বা মৃত্যু পরবর্তী জীবন যে আছে তাহাতেই বিশ্বাস করেনা – নানা ছল চাতুরী বের করে বাস্তবতাকেই পাশ কাঠিয়ে যায় , আজকের দিন গেলে বাকী রইল মাত্র ২৪ দিন এরমধ্যে কদরের রাত্রি কে তালাশ করতে হবে আমাদের এখন থেকে প্রস্তুতি না নিলে কদরের প্রাপ্তি হাতছাড়া হয়ে যেতে পারে কদরের প্রাপ্তি পেতে হলে আগেভাগেই নিজেকে সংশোধনের জন্য পন করি এবং ভাল হবার মনোবাসনা নিয়ে জিবনে কি কি চাই তা আল্লাহর সমীপে পেশ করি প্রতি সিজদায় প্রতিটি কথায় আবেদন দিয়ে রাখলে অবশ্য ই আশা করতে পারি কবুল হবার ,এই কদরের রাত্রে তাকদিরের ফায়সালা হয় ভাগ্যের চাকা কল্যানের শান্তির পথে ঘুরাতে এই রাতের প্রয়োজন এমন করে আত্মসমর্পণের পরিকল্পনা করি যাহাতে মিস না হয় এবারে । বর্তমান সময়ের মহামারি থেকে পরিত্রান বা নিজেকে সমাজ কে এর থেকে বাঁচাতে হলে ফরিয়াদ জানাতে ভুলে গেলে চলবেনা , আমার কাছের আমার আত্মীয় স্বজন বন্ধু শুভাকাঙ্ক্ষী শত শত প্রান হারিয়েছেন আমি তাহাদের জন্য দুআ করছি আল্লাহ যেন তাহাদের মাগফিরাত দান করেন , যার যার সকল মৃতদের জন্য এই মাসে দুআ করা জরুরী কেননা কবরের খবর আমাদের কারো কাছে আসেনা তা একমাত্র আল্লাহ আর কবরে যে থাকে সেই জানে আমাদের উচিত কবরবাসী দের জন্য নিয়মিত দু`আ করা । রামাদানের ভাল অভ্যাসের মধ্যে অন্যদের কে ইফতার করানো ও একটি ইবাদত যে কাউরে ইফতার বা সেহরী করানোর মধ্যে ফায়দা এবং শিক্ষা রয়েছে প্রচুর সেই লোক যদি সিয়াম অবস্তায় অসহায় হয় তা হলে লটারি লেগে যেতে পারে কপালে তাই আমরা সামরথ অনুযায়ী চেষ্টা করব সবাই একে অপরে সহযোগিতা করব সেহরী এবং ইফতারে, মিলেমিশে খেলে তৃপ্তি ও বরকত আসে , রামাদানের দিন ও রাত সমান পুন্যময় এমন কি নফল ইবাদত ও পেয়ে যায় ফরজের মর্যাদা এবং সুন্নত ও ফরজ পায় হাজারগুন বাড়িয়ে মর্যাদা তাই কম ঘুমিয়ে বেশী সালাতে কিয়াম করব ইস্তেগফার দুরুদ শরিফ পাঠ করে সময় কাঠাব বলেই পরিকল্পনা করি তাহলেই মনের মধ্যে ও সাহস পাব পরবর্তীতে ভাল অভ্যসে অটল থাকার আজকের দিনে ও অনুরুধ করব সবাইকে – কোরআন পরুন বুঝুন চর্চা করুন এতেই কল্যান সার্থকতা ও পরকালে শান্তি ও মুক্তি , কোরআন শুধু যে বার্তা নিয়ে এসেছে তা নয় একেকটি বাক্যের মধ্যে রয়েছে প্রচুর শক্তি নিয়মিত তাসবীহ জপলে কাজে ও আসে আমি গত কালকে বলেছিলাম কিছু আজকে ও বলছি পাটক সমাজ এর থেকে ফায়দা হাসিল করতে পারেন ।
হাসবুনাল্লাহু নিয়মাল ওয়াকিল

  • লাহাওলা ওয়ালা কুয়াতা ইল্লা বিল্লাহ
  • ইয়া হাইউ ইয়া কাইয়ুম বিরাহমাতিকা আস্তাগিছু রাব্বি আন্নি মাগ্লুবুন ফানতাসির ।
  • আল্লাহুম্মা ছাল্লি আলা মুহাম্মাদ
  • আল্লাহুম্মা আজিরনি মিনান নার
    এই সব তাহবিহ পাঠ করলে নিয়মিত বাজে আলাপ বা বাজে গল্প থেকে দূরে থাকা যায় এবং কথা বলেই সাওয়াব সঞ্চয় করা হয় , আসুন আমরা এই রামাদান কে সঠিক কাজে লাগিয়ে সার্থক ভাবে জীবন যাপন করি ।
ছড়িয়ে দিন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Calendar

December 2021
S M T W T F S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031