বয়ানে রামাদান ২৫

প্রকাশিত: ১০:৫৩ অপরাহ্ণ, মে ১৮, ২০২০

বয়ানে রামাদান ২৫


চৌধুরী হাফিজ আহমদ
আজকে পবিত্র মাহে রামাদানের ২৫তম দিন চলছে । মহান প্রভু আল্লাহর কাছে অনেক অনেক কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি তিনি যে আমাদের তাওফিক দিয়েছেন আজো পর্যন্ত সিয়াম – সালাত- কিয়াম করে লাইলাতুল ক্কাদরের রজনী তালাশ করে ইবাদত করার , দুরুদ ও সালাম মানবতার মুক্তি দুত কুল মাখলুকের জন্য রাহমাত নবীয়ে কারীম সঃ এর প্রতি । আজকের রজনীতে তে হতে পারে লাইলাতুল ক্কাদর – অনেকেই বলেছেন শেষ দশকের বেজোর রাত্রিগুলাতে খুঁজতে এখানে চমক থাকায় আবার অনেকেই বলেছেন শেষ দশকের প্রতিটা রজনী ই গুরুত্বপূর্ণ কেননা এই শেষ দশেই আল্লাহ নাজাত দেন তাহার কাছে অনুতপ্ত হয়ে তাওবা করে যাহারা ফেরত আসে তাহাদের – এই জন্য তাওবার সাথে অবস্তান নেয়াই হবে বুদ্ধিমানের কাজ । রামাদান প্রতি বছর ঘুরে ঘুরে আসে একই বার্তা নিয়ে কারন ইসলামের ভাণ্ডারের অন্যতম এক অমুল্য সম্পদ হচ্ছে রামাদান ,আল্লাহ চান তাহার বান্দাহগন কেউ যেন রামাদানের ভাণ্ডার হতে কিছু না কিছু নিয়ে জীবন কে আলোময় করে সাজাক – এই সালাত – সিয়াম – যাকাত – হাজ্জ এই সব কিছুই হচ্ছে ঈমানদার দের জন্য । ঈমানদারদের জন্য ই এই সব অলংকার – আমরা আল্লাহর কাছে চাইব দুনিয়াতে আখিরাতে যা যা চাই সব এখন থেকেই যদি পরিকল্পনা করি এবং তা আল্লাহর শাহী দরবারে পেশ করি তা হলে আমাদের মালিক আমাদের ফিরিয়ে দেবেন না তিনি হচ্ছেন ক্ষমাশীল দয়াবান । এবারের রামাদান আমাদের মধ্যে উপস্তিত হয়েছে পৃথিবীর সকল দেশেই মহামারী চলাকালীন অবস্তায় , প্রতিদিন আমাদের থেকে বিদায় নিচ্ছেন আপন স্বজন কেউ না কেউ বিপদ সংকুল সময়ে রামাদান যে রহমত হয়ে এসেছে এতে আমার কোন সন্দেহ নাই – এই পরিক্ষায় ও আলহামদুলিল্লাহ আমরা উত্তীর্ণ হতে চলেছি সিয়াম কিয়াম পালন করে আমরা ২৫ দিন অতিক্রম করেছি , এই ত্যাগ কিন্তু কম নয় , এবারে আল্লাহর কাছে সম্পূর্ণ ভাবে আত্মসমর্পণের পালা , যত বেশী নত হয়ে আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করব সিজদায় আগামীতে হিদায়াতের পথে চলার আকাঙ্ক্ষা পোষণ করব তাহাতেই ক্ষমা প্রাপ্তি সহজ হবে ,রামাদানের মধ্যে যে সব আমল করা জরুরী সবগুলাই আমরা পালন করছি এতে যে চর্চা হল সেই অভ্যাসের ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে বলেই আমি আশাবাদী । কেননা রামাদান এসেছেই আমাদের দক্ষ করে তুলতে – সমাজ জিবনে কি করে রামাদানের শিক্ষা কে প্রয়োগ করে প্রাতিস্টানিক রূপ দিয়ে সমাজ থেকে অশান্তি দূর করে দুনিয়াতে শান্তি প্রতিশ্তা ও আখিরাতে মুক্তি লাভ করে জান্নাতে পৌছাতে । আমি আমার রামাদানের আলোচনা ও লেখাগুলাতে প্রত্যেক বছরেই একই বিষয়ের বার বার অবতারনা করি এর কারন হচ্ছে আল- কোরআনের বার্তাকে পাকা পোখতা করা , তা এমন এক বিশাল ব্যাপার যা ছিল আমাদের জন্য আমরা তার আনুগত্য না করে বরং ব্যবহার করছি নিজেদের একান্ত স্বার্থের জন্য – তাই ভারতের সাবেক রাষ্ট্র পতি শংকর দয়াল শর্মা একটি কবিতা লিখেছিলেন যা আজকের প্রেক্ষাপটে খুব মানান সই কবিতাটি হচ্ছে এই রকম –
আমল করার কিতাব ছিলো
দু`আ র কিতাব বানিয়ে ফেলেছো ।
এটা বোঝার কিতাব ছিলো
তুমি এটা পড়ার (না বুঝে) কিতাব বানিয়ে ফেলেছো ।

জীবিত ( জীবন যাপনের) কিতাব ছিলো
মৃতদের( পরকালের) কিতাব বানিয়ে ফেলেছো ।

এটা জ্ঞানের কিতাব ছিলো
মূর্খদের দখলে ছেড়ে দিয়েছো ।

এটা মৃত জাতিকে জাগাতে এসেছিলো
তুমি এটাকে মৃতের জন্য দু`আ র কাজে লাগিয়েছো ।

হে মুসলমান তুমি এটা কি করেছো ?
আশা করব কোরআনের জন্ম মাসে আমরা কোরআন মাজীদ কে বুঝার চেষ্টা করব এবং সেই অনুযায়ী জীবন চালাতে তৎপরতা চালাব ।
আগামী যে কয়টা দিন বাকী আছে আমরা তাহাকে কাজে লাগাতে পারি একান্ত ভাবে আল্লাহর কাছে তাওবার মাধ্যমে । যত বদ অভ্যাস রামাদানে ছেড়েছি তা আগামি জিবনে আর ফেরত আনবনা সালাতের যে অভ্যাস গড়ে তুলেছি তা আর ত্যাগ করবনা এই রকম পন করতে পারলে ইনশাহআল্লাহ দুনিয়া ও আখিরাতে কামিয়াব হব – আল্লাহ রাব্বুল আলআমিন চান আমরা গোলামেরা যেন তাহার পথেই ফিরে আসি তাই তিনি সাধারন ক্ষমা ঘোষণা দেন সপ্তাহে মাসে বারংবার । আল্লাহ কে জানতে ও পেতে হলে ভোগের চাইতে ত্যাগের দিকেই অগ্রসর হতে হবে - আল্লাহর রাস্তায় যত বেশী ত্যাগ তত বেশী মর্যাদা । আল্লাহ সুবহানাহু তায়ালা আমাদের এই চলিত রামাদানের ও লাইলাতুল ক্কাদরের যত বরকত - রহমত - মাগফিরাত - নাজাত রয়েছে তা দিয়ে যেন আমাদের কবুল করেন তাই কামনা করছি , একে অপরে কল্যানের জন্য দুআ অব্যাহত রাখব তা আশা করছি , রামাদানের অনেক কিছু আছে আমাদের অপছন্দের কিন্তু আল্লাহর কাছে তা খুব প্রিয় – যেমন সিয়াম পালন কারীর মুখের দুর্গন্ধ – কাউকে ইফতার করানো বা এক সাথে ইফতার সাহরী করা – দান খয়রাত করা – সংযম পালন করা , আল্লাহ যেন আমাদের ভাল কাজ করার তাওফিক দান করে হিদায়াত এর পথে চালান – আমাদের সকল হাজত পুরা করে দেন – আমাদের রোগ থেকে শিফা দান করেন – আমাদের অভাবকে দূর করে দেন , মা বাবার খিদমাত করার তাওফিক দেন , মৃত সকল উম্মাহ কে মাগফিরাত দান করেন রামাদানের সকল ইবাদত কে কবুল করে আমাদের আল- কোরআনের সাথী হবার যোগ্য করে দেন – আল্লাহুম্মা আমিন -ইয়া রাব্বাল আল-আমিন – ওয়া তাওক্কাল আলাল হাইয়্যিল লাজি লা ইয়ামুতু আলহামদুলিল্লাহিল লাজি লাম ইয়াত্তাখিজু ওয়ালাদান , রাব্বানা আতমিম লানা নুরানা ওয়াগফিরলানা – রাব্বির হামহুমা কামা রাব্বায়ানি সাগীরা – আসতাগফিরুল্লাহা ওয়া আতুবু ইলাই হি ।

ছড়িয়ে দিন

Calendar

December 2021
S M T W T F S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031