বয়ানে রামাদান ২৭

প্রকাশিত: ৯:০৮ অপরাহ্ণ, মে ২০, ২০২০

বয়ানে রামাদান ২৭


চৌধুরী হাফিজ আহমদ

আল্লাহর মেহেরবানী ও করমে আজকে আমরা ২৭ তম দিন অতিবাহিত করছি । আল্লাহর প্রতি অবনত চিত্তে শুকরিয়া জানাই। তিনি আমাদের কে রামাদান মাস উপহার দিয়ে এরমধ্যে ক্কাদরের রজনী দিয়ে সম্মানিত করেছেন । আমাদের আগে সৃষ্ট কোন জাতি কেঊ এই রকম দিন বা রজনী পেয়েছেন বলে আমার জানা নাই – একমাত্র মানুষ জাতী ই তা বার বার পেয়েই যাচ্ছে , অন্য কোন নবী আঃ কেও কোরআনের মতো সম্পূর্ণ কোন কিতাব নাই যা দিয়েছেন আখেরি নবী রাহমাতুলিল আলআমিন এর কাছে , তাহার মাধ্যমেই আমরা অনেক অনেক নিয়ামত পেয়েছি তাহার কাছেই আল্লাহ আমাদের জন্য আল- ইসলাম কে একমাত্র মনোনীত করে সম্পূর্ণ করেছেন যা চলবে কিয়ামত পর্যন্ত, এর মধ্যেই হচ্ছে রামাদান এক বিশেষ ভুমিকা রাখার বিষয় আমাদের জীবনে । আমি সালাত ও সালাম প্রেরন করছি নবী মূহাম্মাদ সঃ এর প্রতি । আলাহ গোনাহ মাফির জন্য অনেক ব্যবস্তা রেখেছেন যা আমাদের শিখিয়ে দিয়েছেন , শুধু কি মাফ ! আমল নামা থেকে একদম মুছেই ফেলবেন - যার কোন তথ্যই খুঁজে পাওয়া যাবেনা - এর জন্য শুধু অন্তর দিয়ে বলতে হবে , এই জপগুলা তাসবীহ হিসেবে মর্যাদার , আল্লাহূম্মা ইন্নাকা আফুয়ুন তুহিব্বুল আফুউয়া ফায়ফু আন্নি – এখানে তুহিব্বুল আফুউয়া বলতে ক্ষমা করতে ভালবাস ক্ষমা চাই , আর ফায়ফু অর্থ ক্ষমাকরার পরে গোনাহগুলা মুছে দাও হে প্রভু , রাসুলুল্লাহ সঃ বলেছেন এই তাসবীহ পড়তে তিনি নিজেই পড়তেন , আমাদের আলেম উলামারা বলেছেন এই তাসবীহ লাইলাতুল ক্কাদরে বেশী করে পাঠ করতে । কোরআন হচ্ছে রাসুলুল্লাহর কাছে একক ক্ষমতার মুজেজা – এমন শক্তি রাখে আল- কোরআন মানুষের মন কে মুহুরতেই বদলে দেয় , পাষাণ কে গলিয়ে মোমের বাতিতে পরিণত করে – জাহিলকে ওলীতে পরিণত করে এমন ক্ষমতা ধর কিতাবের জন্ম মাস হচ্ছে রামাদান , তাই গুরুত্ব যে অসীম তা বলার অপেক্ষা রাখেনা , বয়ানে রামাদানের আজকের ২৭ পর্বে এই মাস ব্যাপী লিখনিতে যে পরিবর্তনের কথা ব্যক্ত করে আসছি তা হচ্ছে বাকী ১১ মাস । রামাদান পরেই যেন আমরা কোরআনকে ভুলে না যাই – যে শিক্ষা আমরা রামাদান থেকে অর্জন করলাম তাকে কাজে লাগানোই হচ্ছে রামাদানের সার্থক তা , এবং তা বাস্তবে জিবনে ফুটিয়ে তোলার মানেই হচ্ছে তাওবা কবুল হওয়া – রামাদান শেষে আসবে শাওয়াল এখানে ও ৬ তি দিন সিয়াম করব এ ছাড়া ও প্রতি সোমবার বৃহস্পতিবার সিয়াম পালন করবো – সালাত কায়েম করব – ব্যবহার সুন্দর করব – অন্যদের প্রতি জুলুম নির্যাতন করবোনা -লোভ – হিংসা – ঘুস – দুর্নীতি – মামলা – হামলায় যাব না – হক্ক আদায় করব – মদ -সুদ- জুয়া- জিনায় যুক্ত হবনা – হালাল কামাইয়ের জন্য ঘাম ঝরানো মেহনত করবো , আল্লাহর কাছ কিন্তু কল্যানের পথে চলার বা চালাবার জন্য তাওবা করেছি , শর্ত হীন পন করেছি – এখন আরেক বছর রামাদান আসা পর্যন্ত কল্যানের অভ্যাসেই থাকব । যদি রামাদান না আসে এরমধ্যে মৃত্যু র ডাক এসে যায় তবে জান্নাত যে পাচ্ছি তা নিশ্চিত – কেননা আমরা আল্লাহর রহমতের আওতার মধ্যেই চলছি ও আছি – আর তাহাই হচ্ছে মাহে রামাদানের সিয়াম সাধনার ফসল । বিপরীত মুখী আচরণ করলে হবেনা আল্লাহ আগের পিছনের ডান বাম সব দিকের খবর রাখেন তাহার ঈলমের মধ্যে কিছুই লোকানো নেই – তিনি আমাদের সৃষ্টি করে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সব কিছু অবগত করেছেন আমরা তাহার কাছেই ফিরতে হবে – আমাদের কে করতে হবে জবাবদিহি কে সত্য কে মিথ্যা তিনি ভাল করেই জানেন – তাই তাহাকে এড়িয়ে চলে লাভের থেকে ক্ষতি ই বেশী । আমরা যাহারা পবিত্র থাকতে চাই তাদের জন্য ই ঈমান- সালাত সিয়াম – যাকাত – হাজ্জ ।একটা ওপরটার সাথে মিশে আছে । এত শক্তি এই পাঁচের মধ্যে যে দুনিয়াতে কারো শক্তি হয়নি অতীতে বর্তমানে ভবিষ্যতে তাহাকে ভাঙ্গার ,যে বা যাহারাই সাহস করেছে সে নিজেই ধ্বংস হয়ে নিঃশেষ হয়ে অস্তিত্ব হারিয়ে জাহান্নামে অবস্তান নিয়েছে । যেহেতু কারো পক্ষে সম্ভব হয়নাই হবেনা সুতরাং এই পাঁচ নির্দেশনা কে মেনে চলাই মানুষের জন্য উচিত , রামাদানের এত উপকার যে বর্তমানে বিজ্ঞান ও স্বীকার করে নিয়মিত সিয়াম যে কোন রোগ সাড়িয়ে তুলতে সক্ষম – প্রতি সপ্তাহে ২ দিন উপবাস এখন ইউরুপ আমেরিকায় স্পেশাল ডায়েট নামে পরিচিতি পেয়েছে – রক্ত পরিক্ষায় ফাসটিং অর্থাৎ রাত ১২ ঘটিকা থেকে দুপুর ১২ ঘটিকা পর্যন্ত কিছু না খাবার জন্য ডাক্তার বলে দেয় , মরডান কনসেপ্ট বলে চিকিৎসায় যে ফাসটিং এর কথা এখন জানছি তাহাকে আল্লাহ রাব্বুল আল` আমিন রাসুলুল্লাহ সঃ এর মাধ্যমে আমাদের জানিয়েছে অনেক আগেই শুধু তাই নয় এর ও আগের যত নবী আঃ এসেছেন তাহাদের মাধ্যমে ও জানিয়েছেন তবু ও আমরা উপকার বুঝতে সক্ষম হইনা । মানব দেহের জন্য উপকারী বিধায় রামাদানের বা সিয়ামের এই ধারা অব্যাহত রেখেছেন সয়ং আল্লাহ তায়ালা । আমরা গাাফেল লোভ প্রিয় স্বার্থপর তাই বলেই – রহমত বরকত মাগফিরাত নাজাত এর মত প্যাকেজ ঘোষণা করে বান্দাহ দের ইবাদতে মশগুল করে নিয়ামত বর্ষণ করেন যাহাতে আমরা তৃপ্ত হয়ে শুধু ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেই চলি আমি আমার নিজের বেলায় ই দেখি সামনে আলহামদুলিল্লাহ না বলে উপায় নাই পিছনের দিকে তাকালে আসতাগফিরুল্লাহ না বলে বাচাই মুশকিল , কারন জিন্দেগীর গোনাহ আমাকে শুধু পিছনেই টানে আর পিছনে টানা মানেই জাহান্নাম – সামনে অপেক্ষায় আছে জান্নাত , আমি সেই জান্নাতেই যেতে চাই ,তাই বলেই আল্লাহর গোলামিতে লিপ্ত হয়ে গোলামীতেই রত থাকতে চাই । আমি জানি আল্লাহ ই আমার রক্ষক এই কারনেই আমাদের বলে গেছেন নিয়ামত প্রাপ্তরা –

তুহি ক্কাদির জালিলুল্লাহ জাহা দর
বহার হালে তুহি হামারা নিগাহগার ।

আমাদের সাথে থাকবে আর মাত্র ২ দিন আজকের পরে – আমার হৃদয় ক্ষরন শুরু হয়ে গেছে রামাদানের বিদায়ে – জানিনা আগামী রামাদান পর্যন্ত আল্লাহ তায়ালা আমাকে দুনিয়াতে রাখবেন কি না -আমরা কেউ ই গায়েবের খবর জানিনা একমাত্র আল্লাহর কাছেই গায়েব আবদ্ধ এই জন্য ই কবি বলেছেন ২টি জিনিষ একে অপরে অঙ্গা অঙ্গি ভাবে জড়িত কেউ জানেনা কার অবস্তান কোথায় !

এক চিজ আওর এক চিজ কাশাদ জোর জোর
এক হ্যায় আবি দানা দিগর খাঁকে গোর ।

যাহারা আমার এই বয়ানে রামাদানের পাঠক আসুন আমরা আল্লাহর দেয়া নীতিমালা বাস্তবায়নে রাসুলুল্লাহ সঃ প্রদর্শিত পথে চলি এতে নিজে সহ সমাজ জীবন আলো পাবে সুস্ততা ফিরে আসবে মনে প্রানে ঈমানের শক্তিতে বলিয়ান হবে রুহ ।
রামাদানের শেষ প্রহর গুলাতে একে অপরের জন্য কল্যাণকামী হই এবং তাওবার মাধমেই আল্লাহর নেয়ামতের সাথী হয়ে থাকি ।
আস সালাতু আলান নাবী – আল্লাহূম্মা আফিনি বি বাদানী – আল্লাহূম্মা ইন্নি আসআলুকাল আফিয়া – রাব্বানা আতমিম লানা নুরানা ওয়াগফির লানা । ইহদিনাস সিরাতুউয়াল মুসতাক্কিম ।

ছড়িয়ে দিন

Calendar

December 2021
S M T W T F S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031