ভারত থেকে ফিরেই যা বললেন জি এম কাদের

প্রকাশিত: ১২:১৪ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০২৩

ভারত থেকে ফিরেই যা বললেন   জি এম কাদের
সদরুল আইনঃ
ভারত সফর শেষে আজ সন্ধ্যায় দেশে ফিরেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জি এম) কাদের।
  গত রোববার ভারত সরকারের আমন্ত্রণে দিল্লি সফরে যান তিনি। এই সফরে কার কার সঙ্গে বৈঠক, এবং কী বিষয়ে আলোচনা হয়েছে এ নিয়ে গণমাধ্যমকে বিস্তারিত বলতে জি এম কাদের অপারগতা প্রকাশ করলেও কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলছে, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাপার অবস্থান, অংশগ্রহণ এবং জোট গঠনসহ রাজনৈতিক ইস্যু এ সফরে গুরুত্ব পেয়েছে এবং আগামী নির্বাচনে যাওয়ার ব্যপারে জি এম কাদের ভারত সরকারকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বলে সংশ্লিষ্ট কূটনৈতিক সূত্রে প্রাপ্ত খবরে জানা গেছে।
কূটনৈতিক সূত্রে প্রাপ্ত খবরে জানা গেছে যে, জি এম কাদের দিল্লি সফরে ভারত সরকারের জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা অজিত কুমার দোভাল সহ সরকারের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি এবং ক্ষমতাসীন দল বিজেপি’র শীর্ষ নেতৃবৃন্দের সঙ্গে একাধিক বৈঠক করেছেন। আর এ সমস্ত বৈঠকে বাংলাদেশের আগামী নির্বাচন নিয়ে খোলামেলা আলোচনা হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রটি বলছে, জি এম কাদের ভারত সরকারের জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা অজিত কুমার দোভালকে বাংলাদেশের আগামী নির্বাচন নিয়ে দুটি বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন।
একটি হলো জাতীয় পার্টি আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে। আর অন্যটি হলো বিএনপি যদি শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে আসে সেক্ষেত্রে জাতীয় পার্টি মহাজোটে থেকেই নির্বাচন করবে।
 আর যদি শেষ পর্যন্ত বিএনপি নির্বাচন বর্জন করে সেক্ষেত্রে জাতীয় পার্টি এককভাবে ৩০০ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে।
তবে সফরের বিষয়ে বিস্তারিত কথা বলতে অপারগতা প্রকাশ করেছেন জি এম কাদের। তিনি বলেন, আমি ভারত সরকারের আমন্ত্রণে সেখানে গিয়েছিলাম। সেখানে বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির সঙ্গে খোলামেলা আলোচনা হয়েছে। সেই আলোচনা কার সঙ্গে হয়েছে বা কী বিষয়ে হয়েছে এ প্রসঙ্গে বিস্তারিত বলতে পারবো না।
 কারণ আলাপগুলো ওইভাবেই হয়েছে। তারা যদি কিছু প্রকাশ করতে চান করবেন, আমার পক্ষ থেকে উনাদের পারমিশন ছাড়া কিছু বলতে পারবো না। তবে দ্বিপাক্ষিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে।
জি এম কাদের আরও বলেন, তারা আশা প্রকাশ করেন যে, বাংলাদেশের সঙ্গে সুসম্পর্ক থাকলে, বাংলাদেশ স্থিতিশীল থাকলে, সুন্দর নির্বাচনের মাধ্যমে পরবর্তী সরকার যদি গঠিত হয় তাহলে তাদের পক্ষে এসব কাজ করা সহজ হবে।
তারা প্রত্যাশা করেন, যেন সবাই মিলে ওই ধরনের একটা পরিবেশ সৃষ্টি করেন, যাতে সুন্দর নির্বাচন হয়। নির্বাচনে যেন সহিংসতা, অরাজকতার পরিস্থিতি না হয়।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

লাইভ রেডিও

Calendar

April 2024
S M T W T F S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930