ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত নিরাপত্তা আরও জোরদারে বৈঠক

প্রকাশিত: ৯:৪১ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৭, ২০১৭

ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত নিরাপত্তা আরও জোরদারে বৈঠক

ভারতের কলকাতা 24×7 পত্রিকা প্রকাশিত সংবাদ হতে জানা যায়, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত নিরাপত্তা আরও জোরদার করার লক্ষ্যে আজ নবান্নে বৈঠকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সীমান্তের নিরাপত্তা নিয়ে আজ নবান্নে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন উত্তর-পূর্বাঞ্চলের মুখ্যমন্ত্রীরা৷ তাতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়াও অসম, মিজোরাম ও মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রীরা হাজির থাকবেন৷ ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার আসতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন৷ তাঁর হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবেন ত্রিপুরার মুখ্যসচিব৷ এই বৈঠককে ঘিরে সাজ সাজ রব পড়েছে রাজ্য প্রশাসনে৷ নবান্নের নিরাপত্তা ব্যবস্থা আঁটোসাঁটো করা হয়েছে৷

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুরোধে ‘নবান্নে’ এই বৈঠকের আয়োজন হতে চলেছে রাজ্য সরকার৷ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক সূত্রের খবর, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের একটা বড় অংশ জুড়েই রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ ও ত্রিপুরা৷ কিছু দিন আগেই কলকাতায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক ডাকার কথা ছিল৷ কিন্তু, সেটা শেষ মুহূর্তে বাতিল হয়৷ এ বার ফের সেই বৈঠক ডাকা হয়েছে৷ ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের মোট দৈর্ঘ্য প্রায় ৪৯৯৬ কিমি৷ তার মধ্যে এ রাজ্যের অধীনেই রয়েছে ২২১৭ কিমি৷ আজ এই বৈঠকে সীমান্ত নিরাপত্তা নিয়ে আলোচনা হবে৷

মানিক সরকারের বৈঠকে যোগ না দেওয়ার পিছনে কোনও রাজনৈতিক কারণ আছে কি না তা অবশ্য স্পষ্ট হয়নি৷ সরকারি সূত্রের খবর, বিকেল তিনটে নাগাদ নবান্ন সভাঘরে ওই বৈঠক শুরু হবে৷ অনুপ্রবেশ, আন্তঃরাজ্য চোরাচালান, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে কাঁটাতার বসানো নিয়ে বৈঠকে বিস্তারিত আলোচনা হবে৷ আলোচনা হবে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ নিয়েও৷ বৈঠকের ফাঁকে রাজনাথের সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একান্ত আলোচনা হওয়ারও সম্ভাবনা রয়েছে৷ সেই বৈঠকে দার্জিলিংয়ের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে রাজনাথের কাছে নালিশ জানাতে পারেন মমতা৷

বুধবার রাতেই কলকাতায় চলে আসেন রাজনাথ৷ শহরে এক বন্ধুর বাড়িতে তাঁর ওঠার কথা থাকলেও সায় দেননি তাঁর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা অফিসাররা৷ ফলে রাজভবনেই ওঠেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী৷
ছড়িয়ে দিন