মিলান কুন্ডেরা, স্লোনেস আর আনিসুল হক সমাচার

প্রকাশিত: ১২:১০ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ৭, ২০২১

মিলান কুন্ডেরা, স্লোনেস আর আনিসুল হক সমাচার

 

আকমল হোসেন খোকন 

কুন্ডেরা’র নাম শুনে আমরা চিনি। ছবি দেখে আমরা চিনি। অথচ এই ভদ্রলোক যে নোবেল পেয়েছেন, গণমানুষের আলোচনার বিষয় হয়েছেন, তেমনও নয়। তবে নোবেল প্রাপ্য বিবেচ্য হয়েছেন বহুবার। সম্ভবত সে-কারণে আমাদের মতো নেহাৎ দরিদ্রের কুটিরেও কুন্ডেরা প্রবেশাধিকার অর্জন করেছেন। ১ এপ্রিল ১৯২৯ এ চেকোশ্লোভাকিয়ায় জন্মগ্রহণ করা এই ভদ্রলোকটি তাঁর দেশের সরকারের চোখে অভদ্র বিবেচিত হয়ে দেশান্তরিত হন, ফ্রান্সে যান ১৯৭৫ এ। ১৯৮১ তে সেখানকার নাগরিকত্বও পান। মাতৃভাষা চেক হলেও দেদার লিখেছেন ফরাসি ভাষায়। তাঁর প্রথম উপন্যাসেই বাজিমাত করেছেন তিনি- ‘The Joke’। বাংলায় আমরা ‘ঠাট্টা’ বলি। আমাদের মুরুব্বি লেখকরা মার্কেজ বোর্হেজ কাম্যু কাফকা নিয়ে প্রচুর মাতামাতি করেন। আমরা যারা একটু স্বল্পগতি-পাঠক, তারা এই সব মাতামাতি থেকে কৌতূহল উদ্দীপ্ত করে খুঁজেপেতে পড়ার চেষ্টা করি তথাকথিত কৃতী লেখকদের। আর সাধারণভাবে আমাদের দরিদ্রের কুটিরে বিশ্বসাহিত্য থেকে যারা উৎকীর্ণ হন, তারা কেবল নোবেল বিজয়ী হলেই আলাচনায় আসেন, অনূদিত হন, পাদপ্রদীপের আলোয় ফেলে আমরা তাঁদের রসোদ্ধার করার প্রয়াস পাই। মিলান কুন্ডেরা এবংবিধ বিবেচনায় ভূয়সী ব্যতিক্রম।
কুন্ডেরাকে নিয়ে এলোমেলো, গোছালো-অগোছালো বিপুল কাজের একটা সারাৎসার দাঁড়াল- যখন আনিসুল হক তাঁকে অনুবাদ করলেন। ব্যতিক্রমী বিষয়- লেখক যাকে এ উপন্যাসের একটা প্রধান উপকরণ বলেছেন- যৌনতা নিয়ে নিরীক্ষা নিশ্চয় করেই অনেকে করেছেন। বিশ্বসাহিত্যে এ-ও কোনো আপাত নতুন উপাদান নয়। কিন্তু কুন্ডেরা বিষয়টিকে ভাবতে ভাবতে লিখেছেন, লিখতে লিখতে ভেবেছেন বলেছেন আনিসুল হক। আমরা মুগ্ধ হয়ে দেখি আনিসুল হক নিজেও তা-ই করেছেন। ভাবতে ভাবতে লিখেছেন, লিখতে লিখতে ভেবেছেন। লেখার এই নিরীক্ষার কারণে যৌনতা নামক চিরায়ত বিষয়টি পরিণত হয়েছে অতিআরাধ্য উপকরণে ; বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে অতিপ্রাত্যহিকতা অতিক্রম করে দর্শনীয় ও উপভৌগিক আশ্লেষের। যাঁরা বিশ্বসাহিত্যের রস খুব কালেক্টিভলি আস্বাদন করতে ভালবাসেন- প্রিয় পাঠক, স্লোনেস তাই আপনার জন্য অবশ্যপাঠ্য অনুবাদ- যার নির্মাতা আনিসুল হক। বাতিঘর বইটি প্রকাশ করে একটা সাহসী ও যৌক্তিক দায়িত্ব পালন করেছে সন্দেহ নেই। কিন্তু ফ্ল্যাপে লেখকের বয়স অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে ৯ বছর বাড়িয়ে দিয়ে আমাদের প্রিয় লেখককে জোর করে ষাটোর্ধ্ব বানানো উচিৎ হয় নি। 😃
৪ তারিখ প্রিয় কবি, কথাকার, সম্পাদক, সংগঠক, চিত্রক আনিসুল হক-এর জন্মদিন ছিল। আর তাঁর জন্মদিনকে ঘিরে ৪ আর ৫ মার্চ বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের বাতিঘরে বসেছিল “আনিসুল হক বইমেলা”। বরাবরের মতন আমি/ আমরা প্রিয়কবিকে প্রাণভরে দেখতে, তাঁর কথা শুনতে এবং তাঁর নতুন বই স্লোনেস কিনে তাঁর অটোগ্রাফ নিতে হাজির হয়ে যাই সেখানে। কবি-গবেষক ড. গোলাম মোস্তফা, কবি-সম্পাদক সৌমিত্র দেব , শিশু সাহিত্যিক  শাহাদত বখত শাহেদসহ আমি আনিসুল হকের হাতে ফুল তুলে দিই। বাচ্চাদের মত করে তাঁর সঙ্গে ছবি তুলতে ব্যগ্র হই। অটোগ্রাফ নিই। আপ্যায়িত হবার সুযোগ নিই গরম গরম সিঙারার। ৫ তারিখটা এভাবেই আমাদের জীবনে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠল।

Calendar

April 2021
S M T W T F S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  

http://jugapath.com