মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের 2 নেতা আটক

প্রকাশিত: ১০:৪৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৯

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের 2 নেতা আটক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ পাবার পর
ডাকসু ভিপি নুরুল হক নূরসহ কয়েকজনের ওপর হামলার ঘটনায় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের দুই নেতাকে আটক করেছে পুলিশ । আটক হয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আল মামুন এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আরাফাত তূর্য।

রোববার দুপুরে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের একটি সংগঠনের ব্যানারে কর্মসূচির পর ডাকসু ভবনে নূরদের ওপর হামলা হয়। ছাত্রলীগের একদল নেতা-কর্মীকেও সেই হামলায় দেখা যায়।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা লাঠিসোঁটা নিয়ে ভিপি নূরের কক্ষে ঢুকে বাতি নিভিয়ে সেখানে থাকা সবাইকে এলোপাতাড়ি পেটান বলে আহতদের ভাষ্য।

হামলায় আহত নূরসহ ২৮ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। এর মধ্যে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতা তুহিন ফারাবীকে রাতে নেওয়া হয় লাইফ সাপোর্টে। ওই হামলার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ও প্রশাসনিক ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । এ কথা সোমবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ভিন্ন মত প্রকাশের অধিকার সবার রয়েছে, ডাকসুর ভিপি আমাদের সমালোচনা করতে পারে, সরকারের সমালোচনা করার অধিকার তার আছে। এখানে অন্যান্য যে বহিরাগতরা আসে এসব কথা অনেকে বলে, যত কিছুই হোক, যে হামলা হয়েছে এটা নিন্দনীয় ঘটনা, আমি এটার নিন্দা করি।

সোমবার দুপুরে ঢাকার শাহবাগ এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয় বলে গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার আবদুল বাতেন জানান।

আল মামুন ছাত্রলীগের গত কমিটিতে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক উপ সম্পাদক পদে ছিলেন। আর তূর্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের বর্তমান সাংগঠনিক সম্পাদক।

পুলিশের রমনা বিভাগের উপ কমিশনার সাজ্জাদুর রহমান জানান, দুজনকে আটক করা হলেও হামলার ঘটনায় সোমবার দুপুর পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় সোমবার লাইফ সাপোর্ট খুলে ফারাবীকে নিউরোলজি ওয়ার্ডে নেওয়া হয়। এখন নূর, ফারাবীসহ মোট ৫ জন হাসপাতালে ভর্তি আছেন বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদও ওই ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন। তবে ভিপি নূর কেন বহিরাগতদের নিয়ে ডাকসু ভবনে গিয়েছিলেন, সেই প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

ছড়িয়ে দিন